Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২১ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

মইনুলকে ঢাকায় এনে স্বাস্থ্য পরীক্ষা কেন নয় হাইকোর্টের রুল

ডিজিটাল মামলায় চার্জশিট

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

সাবেক তত্ত্ববাধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ডের নেতা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে ঢাকায় এনে উপযুক্ত চিকিৎসার (স্বাস্থ্য পরীক্ষার) নির্দেশ কেন দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।
আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশের (মহাপরিদর্শক) আইজিপি, আইজি প্রিজন কারা কর্তৃপক্ষ ঢাকা, আইজি প্রিজন কারা কর্তৃপক্ষ রংপুর, সিভিল সার্জন ঢাকা, সিভিল সার্জন রংপুর ও জেলা প্রশাসককে (ডিসি) কে এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। গতকাল রোববার এ সংক্রান্ত আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই রুল জারির আদেশে দেন। আদালতে ব্যারিস্টার মইনুলের পক্ষে শুনানি করেন খন্দকার মাহবুব হোসেন ও অ্যাডভোকেট আব্দুর রহিম, সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. মাসুদ রানা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী জিনাত হক।
এর আগে গত ৮ নভেম্বর সাবেক তত্ত্ববাধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে রোববারের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশদেন হাইকোর্ট। রংপুর কারা কর্তৃপক্ষ ও রংপুর মেডিকেল কর্তৃপক্ষকে এই নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। আদালতের নির্দেশ অনুসারে প্রতিবেদন গতকাল দাখিল করা হয়েছে। ওই প্রতিবেদনের ওপর শুনানির জন্য রোববার দিন ধার্য করা হয়েছে। এর আগে গত ০২ নভেম্বর বিশেষায়িত হাসপাতালে ব্যারিস্টার মইনুলের চিকিৎসা ও রংপুর আদালতে লাঞ্চিত হওয়ার ঘটনা সরকারের নিষ্ক্রিয়তা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে মইনুলের স্ত্রী সাজু হোসেন এ রিট দায়ের করেন।
আইনজীবী মোঃ মাসুদ রানা বলেন, মইনুল হোসেনের বয়স ৭৮ বছর। তিনি হার্টের রোগী। এর আগে তিনি ওপেন হার্ট সার্জারি করেছেন। এ ছাড়া মইনুল হোসেনের কিডনিসহ নানাবিধ সমস্যাও রয়েছে। গত ৩ নভেম্বর ব্যারিস্টার মইনুলকে রংপুর কারাগারে পাঠানো হয়। এর আগে রংপুরে করা মানহানির এক মামলায় গত ২২ অক্টোবর ঢাকার উত্তরা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। রংপুরের বাসিন্দা মিলি মায়া ২২ অক্টোবর আদালতে মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন। ওই দিনই তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়।
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে
মইনুলের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র
সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে নিয়ে মানহানিকর মন্তব্য করার অভিযোগ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গুলশান থানার পুলিশ পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম ঢাকা সিএমএম আদালতে এ অভিযোগ পত্র দাখিল করেন। এদিকে গতকাল ঢাকা মহানগর হাকিম দেবদাস চন্দ্র অধিকারী অভিযোগপত্রটি সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে বদলির আদেশ দেন।
গত ২৪ অক্টোবর আওয়ামী লীগের উপকমিটির যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সদস্য সুমনা আক্তার লিলি সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে এ মামলা করেন। ওই দিন বিচারক মামলাটি এজাহার হিসেবে গ্রহণের জন্য গুলশান থানাকে নির্দেশ দেন। উল্লেখ্য, মাসুদা ভাট্টিকে ‘চরিত্রহীন’ বলার অভিযোগে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ব্যারিস্ট্যার মইনুলের বিরুদ্ধে ১১টির বেশি মামলা দায়ের করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন

২৪ অক্টোবর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ