Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৩ পৌষ ১৪২৫, ৯ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

জাবি ভিসির বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

আন্দোলনের হুঁশিয়ারি আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের একাংশের

জাবি সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৪ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:২৮ এএম

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসি অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ তুলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারী দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের একাংশের গ্রæপ ‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ’। ভিসি বিরোধী হিসেবে পরিচিত শিক্ষকদের এই অংশটি গতকাল এক সংবাদ সম্মেলন করে এই ঘোষণা দেন।

এই সময় লিখিত বক্তব্যে গ্রæপটির সম্পাদক সহযোগী অধ্যাপক ফরিদ আহমেদ বলেন, অনির্বাচিত ভিসি একের পর এক অ্যাক্ট-সংবিধি-অধ্যাদেশবিরোধী ও স্বৈরাচারী কর্মকাÐ করেই যাচ্ছেন। তিনি শিক্ষক লাঞ্ছনা, বিধি লঙ্ঘন করে নির্বাচিত সিন্ডিকেট সদস্য, ডিন ও প্রভোস্টগণকে অব্যাহতি দিয়ে তল্পিবাহক ডিন-প্রভোস্ট নিয়োগ দিয়েছেন। বিভিন্ন পদে কর্মরত শিক্ষকদের অশোভন উপায়ে অব্যাহতি প্রদান করেছেন। অবাধ নিয়োগ বাণিজ্যের মাধ্যমে শত শত অযোগ্য ব্যক্তিকে বিশ্ববিদ্যলয়ে এডহকে নিয়োগ দিয়েছেন। মিথ্যে ও বানোয়াট অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত কমিটি করে সম্মানিত শিক্ষকদের হয়রানি করছেন। অকারণে শিক্ষকদের পদোন্নতির আবেদন গ্রহণ করছেননা। এছাড়া নির্বাচিত সিনেট সদস্যগণকে অপমানসহ বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকাÐ ও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছেন। অন্যদিকে, প্রশাসনের সৃষ্ট সেশনজ্যাম আজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। এমন অবস্থায় আমাদের প্রিয় প্রতিষ্ঠানটি গভীর সংকটে পড়েছে। অনির্বাচিত ভিসির স্বেচ্ছাচারী ও সন্ত্রাসী কর্মকাÐে নিরাপত্তাহীন হয়ে পড়েছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মকর্তা কর্মচারী। এই অবস্থা চলতে দেয়া যায়না। আমরা এ-বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কমানা করছি। পাশাপাশি এ অবস্থার বিরুদ্ধে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দেওয়া হবে। এবার আন্দোলনে নামলে আমরা আর ফিরবোনা, আমাদের দাবি পূরণ করেই আমরা ফিরে যাব। আমারা যদি সত্যের পক্ষে থাকি তাহলে জয় আমাদের হবেই।

এদিকে ভিসিপন্থী শিক্ষকদের গ্রæপ ‘বঙ্গবন্ধু আদর্শের শিক্ষক পরিষদ’ গত ৮ তারিখ এক সংবাদ সম্মেলন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের যে কোন সমস্যা নিয়ে আলোচনায় বসার আহŸান জানান। কিন্তু সেই আলোচনার আহŸান প্রত্যাখান করে ভিসি বিরোধী শিক্ষকদের গ্রæপটির সম্পাদক বলেন, যারা আমাদের শিক্ষকদেরকে লাঞ্ছিত করেছে, তাদের সাথে আমরা আলোচনায় বসতে পারিনা। তাই আমরা মনে করছি গত ১৭ এপ্রিলের ঘটনার পর তাদের সাথে আলোচনায় বসার মত পরিবেশ নেই।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ