Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৩ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

বাংলাদেশ ব্যাংক অর্থ মন্ত্রণালয়ের অংশে পরিণত হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০৪ এএম

বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক ও ব্যবসায়ী নেতা এ কে এম আফতাব উল ইসলাম বলেছেন, বাংলাদেশ ব্যাংক অর্থ মন্ত্রণালয়ের অংশে পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে আমি দুঃখের সঙ্গে বলছি, এখন বাংলাদেশ ব্যাংক অর্থ মন্ত্রণালয়ের অংশে পরিণত হয়েছে। যা কিছু আসে, তা অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে আসে। সেটা হোক ঋণ পুনঃতফসিল অথবা অন্য কিছু।’
গতকাল মঙ্গলবার আমেরিকান চেম্বার অব কমার্স ইন বাংলাদেশ (অ্যামচেম) আয়োজিত এক মধ্যাহ্নভোজ সভায় আফতাব উল ইসলাম এসব কথা বলেন। তিনি দুই বছর ধরে বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।
প্রশ্নোত্তরমূলক অনুষ্ঠানের একপর্যায়ে ব্যাংক খাত নিয়ে কথা বলেন আফতাব উল ইসলাম। তিনি বলেন, ১৯৭২ সালে ব্যাংকিং নীতি তৈরি করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। সেটা ছিল ব্যাংক খাতের জন্য বাইবেল। ওই নীতিতে আর্থিক খাতের সর্বোচ্চ ক্ষমতা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরকে দেওয়া হয়েছিল। অথচ বর্তমানে তা অর্থ মন্ত্রণালয়ের অংশ হয়ে পড়েছে।
ঢাকা চেম্বার ও আমেরিকান চেম্বারের সাবেক এই সভাপতি বলেন, হাজার কোটি টাকা ঋণ না থাকলে তা এখন মর্যাদার প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। যদি হাজার কোটি টাকার বেশি ঋণ থাকে, তাহলে সেটার ব্যবস্থাপনা সরকারের দায়িত্ব হয়ে দাঁড়ায়। ওই ঋণ চারবার-পাঁচবার পুনঃতফসিল করা হয়। এ নির্দেশনা কখনো অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে আসে, কখনো সরকারের শীর্ষ পর্যায় থেকে আসে।
আফতাব উল ইসলাম আরও বলেন, এখন ব্যাংক খাতের অবস্থা মারাত্মক খারাপ। বাংলাদেশের অর্থনীতির সব সূচক ভালো, শুধু ব্যাংক খাতের স্বাস্থ্য ছাড়া। সরকারি বেশির ভাগ ব্যাংক এখন লাল তালিকায় আছে। অবশ্য আসছে নির্বাচনকে সামনে রেখে খেলাপির খাতা থেকে নাম কাটাতে প্রচুর অর্থ ব্যাংকে আসবে। অতএব এটা ব্যাংক খাতের জন্য একটা ভালো সময়।
অনুষ্ঠানে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) এ-দেশীয় পরিচালক মনমোহন প্রকাশ বলেন, বাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদনের ৬০-৭০ শতাংশ আসছে ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে। এখন দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের উন্নয়নের দিকে নজর দিতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ