Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৩ পৌষ ১৪২৫, ৯ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৮, ১:৩৩ পিএম
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উৎসবমুখর পরিবেশে চতুর্থ দিনের মতো বিএনপির মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমাদান কার্যক্রম চলছে। বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সকাল ৯টা থেকে মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমাদান শুরু হয়।


চতুর্থ দিনে সকাল থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে নেতারা কার্যালয়ে আসতে শুরু করে। সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নয়াপল্টন এলাকায় দলটির কর্মী এবং অনুরাগীদের উপচেপড়া ভিড় বাড়ছে।

তাছাড়া বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলীয় নেতাদের নামে ব্যানার ফেস্টুন, ধানের শীষ নিয়ে শোডাউন,  খালেদা জিয়ার মুক্তির স্লোগান দিতে দেখা যায়। রাস্তা কিছুটা ফাকা রেখেই চলছে নির্বাচনী কাজ। যানবাহনও চলছে স্বাভাবিক গতিতে।
বিএনপির পক্ষ থেকে রাস্তা অবস্থান না করার জন্য বলা হয়েছে। 

গতকাল বুধবার (১৪ নভেম্বর) পুলিশের সাথে বিএনপির নেতাকর্মীদের সংঘাতের পর আজ নয়াপল্টন এলাকায় ফুটপাতসহ প্রতিটি রাস্তায় পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর অবস্থান করতে দেখা যায়।

এদিকে মনোনয়ন ফরম বিক্রির চতুর্থ দিনে মনোনয়ন ফরম বিক্রি কমলেও বেড়েছে জমাদানের কাজ।

গত তিন দিনে মোট তিন হাজার ৭০০ জন নেতা দলের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। প্রথম দিনে ১৩২৬, দ্বিতীয় দিন ১৮৯৬ এবং বুধবারসহ তিন দিনে প্রায় ৩৭০০ ফরম বিক্রি হয়েছে।



 

Show all comments
  • nurul alam ১৫ নভেম্বর, ২০১৮, ৩:৪০ পিএম says : 0
    একদলীয় শাসন হতে বহুদলীয় গণতন্ত্রে উত্তরনের বীর পুরুষ শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের দল বিএনপি সবসময়ই সুষ্ঠু ভোটের দাবি জানিয়ে আসছে । সুষ্ঠু ভোট হলে কে জেতে কে হারবে তা জনগণই নির্ধারণ করবে এটাই স্বাভাবিক । বিএনপিতো বলছেনা ভোটে তাদের জিতিয়ে দিতে হবে । তাহলে লীগের এত শংকা কিসের জন্য ? দেশের বৃহত্তম রাজনৈতিক দল বিএনপি তার প্রার্থীদের নমিনেশন ফরম বিতরণ করবে আর তাতে রেওয়াজ মত সমর্থকরা ভীড় জমাবে নেতার ফরম সংগ্রহে এটাতো গণতন্ত্রের সৌন্দর্য । গতকালের আগের ২দিনও রাজধানীর পল্টন লোকে লোকারণ্য । কাল যখনই ঢাকার মির্জা আব্বাস মনোনয়ন ফরম উঠাবেন তখনই ঝামেলা বাধল ? যানজটের অজুহাতে পুলিশের অহেতুক বাড়াবাড়ি কেন ? কোন উদ্দেশ্যে ঐ পুলিশ সেখানে গোলমাল পাকালো ? ঢাকাতেতো ৩২ নম্বরের সামনের সড়ক প্রায়ই বন্ধ করে দেয়া থাকে । সে রাস্তা কী কারো পৌত্রিক সম্পত্তি ? পুলিশ কেন বরাবরই সে রাস্তা বন্ধ রাখতে দেয় ? ঘটনা পরিস্কার । ঢাকায় বিএনপির মির্জা আব্বাস আলীগের রাজনীতির জন্য আতংক । তাকে হেনস্থা করতে পারলে বিএনপির আন্দোলনে ভাটা পড়বে এটাই আওয়ামী পুলিশের উদ্দেশ্য । কুচক্রী মহল বার বার পুলিশের গাড়ীতে হামলার কথাই বলছে কিন্তু কোন পরিস্থিতিতে কিংবা কোন কোন পুলিশের উদ্দেশ্যমূলক বাড়াবড়িতে সংঘর্ষ বেধেছে তা জাতিকে জানতে হবে । পুলিশ জনগণের সেবক । যেখানে জনস্রোত সেখানে পুলিশ কেন বাড়াবাড়ি করবে ? পুলিশের এত স্পর্ধা কোথ্থেকে এলো ? তারা পুলিশ নাকি ছাত্রলীগ কর্মী ?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।