Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৩ পৌষ ১৪২৫, ৯ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

ফুলপুর খাদ্যে বিষক্রিয়ায় ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি, সুপার ও ৩ বাবুর্চীকে অব্যাহতি

ফুলপুর (ময়মনসিংহ)উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৮, ৫:৪৮ পিএম

ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার আশরাফুল উলুম বালিয়া মাদ্রাসায় বোর্ডিয়ে খাবারে বিষক্রিয়ায় এক ছাত্রের মৃত্যু ও শতাধিক ছাত্র অসুস্থ হওয়ার ঘটনায় ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি ও বোর্ডিংয়ের সুপার এবং ৩ বাবুর্চীকে অব্যাহতি, মাদ্রাসার মুহতামিমকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটি।
ফুলপুর উপজেলার আশরাফুল উলুম বালিয়া মাদ্রাসার বোর্ডিংয়ে খাবারে বিষক্রিয়ায় ছাত্র রিয়াদ হাসান (১৮)এর মৃত্যু ও শতাধিক ছাত্র অসুস্থ হওয়ার ঘটনায় বৃহস্পতিবার মাদ্রাসায় মাওঃ মুজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে মসলিসে সূরা'র (পরিচালনা কমিটি) সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় দায়িত্বে অবহেলার কারণে বোর্ডিং সুপার মাওঃ আবু ইউছুফ এবং বাবুর্চী রিয়াজ উদ্দিন, জালাল উদ্দিন ও সিদ্দিককে চাকুরী থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। সেই সাথে মূল ঘটনা তদন্তে একরামূল হক তালুকদারকে আহবায়ক করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আজহারুল মোজাহীদ সরকার, জোবায়ের হোসেন তালুকদার, শিক্ষক মোখলেছুর রহমান মন্ডল ও আঃ কাদির মাস্টার। কমিটিকে আগামী ৭ কর্ম দিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে হবে।
মজলিশে সূরার সদস্য মোঃ জোবায়ের হোসেন তালুকদার ও শিক্ষক মোখলেছুর রহমান মন্ডল তদন্ত কমিটি গঠন এবং সুপার ও বাবুর্চীকে অব্যাহতির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মাদ্রাসার মুহতামিম মাওঃ আইন উদ্দিনকে ৭ কর্ম দিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া ও তাকে কর্মস্থলে আসা বন্ধ করা হয়েছে। কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাবের উপর ভিত্তি করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। ছাত্র রিয়াদ হাসানের মৃত্যুতে সভার প্রথমেই শোক প্রস্তাব গ্রহণ করা হয় ও রিয়াদের দাফন মাদ্রাসার কবরস্থানে হবে বলেও সিদ্ধান্ত হয়।

উল্লেখ্য, আশরাফুল উলুম বালিয়া মাদ্রাসায় বোর্ডিয়ে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে প্রতিদিনের মতো প্রায় ২০০ ছাত্র ও কয়েকজন শিক্ষক রাতের খাবার খায়। খাবার খাওয়ার পর পরই সবার ডায়রিয়া দেখা দেয়। এর মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় স্থানীয় বিভিন্ন ফার্মেসী ও ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। তার মধ্যে তাদাখুল ক্লাসের ছাত্র রিয়াদ হাসান (১৮) অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে প্রথমে ফুলপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার আরও অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ময়মনসিংহ এসকে হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকাল ৯টায় তার মৃত্যু হয়।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ