Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৬ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

টাঙ্গাইল-২ : পিন্টু ও টুকুর আসনে বিএনপির মনোনয়ন চান যুবদল নেতা রফিকুল ইসলাম

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৮, ৮:৩০ পিএম

টাঙ্গাইল-২(ভূয়াপুর-গোপালপুর) আসনে সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুস সালাম পিন্টু’র আসনে বিএনপি’র মনোনয়ন চান টাঙ্গাইল জেলা যুবদলের সাবেক সহসভাপতি রফিকুল ইসলাম। দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে তিনি আশাব্যক্ত করে ইতিমধ্যে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।গত সোমবার তিনি দলের নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গিয়ে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেন।
এদিকে গত মঙ্গলবার বিকেলে সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুস সালাম পিন্টু এবং তার সহোদর যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর পক্ষে বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী শোডাউন করে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গিয়ে দলের মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় রায়ে ফাঁসির দন্ড পাওয়া সাবেক উপমন্ত্রী বিএনপি’র ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম পিন্টু বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছেন।
রফিকুল ইসলাম গোপালপুর উপজেলার রায়ের মাকুল্যা গ্রামের মৃত হাজেম উদ্দিনের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে মির্জাপুর উপজেলা সদরের বাইমহাটি এলাকায় বসবাস করছেন।এদিকে উপমন্ত্রী আব্দুস সালাম পিন্টু ও তার ছোট ভাই যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর বিপরীতে দলের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করায় রফিকুল ইসলামকে নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে কৌতুহলের সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে।
তবে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করে টাঙ্গাইল জেলা যুবদলের সাবেক সহসভাপতি ও কৃষক দলের সদস্য রফিকুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে তিনি দলের নিবেদীত প্রাণকর্মী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন।তাকে মনোনয়ন দেয়া হলে তিনি আসন পুনরুদ্ধার করতে পারবেন বলে দাবি করেন।
বাংলাদেশ সেটেলমেন্ট অফিসের মৌসুমী সরদার আমীন, বদর আমীন ও চেইনম্যান সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক আহবায়ক রফিকুল ইসলাম ১৯৮৬ সালে টাঙ্গাইল জেলা যুবদলের সহ সভাপতি ও ২০১৫ সালে জেলা কৃষক দলের সদস্য নির্বাচিত হয়ে দলকে শক্তিশালী করতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন বলে উল্লেখ করেন।
২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গোপালপুর উপজেলার নগদশিমলা ইউনিয়নের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন বলে জানান।
রফিকুল ইসলাম দাবি করে বলেন, দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়া মুক্তি আন্দোলন ও তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা রাখার পাশাপাশি তিনি এলাকায় নিয়মিত মসজিদ মাদ্রসা ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানে আর্থিক সহযোগিতা করে থাকেন।সার্বিক বিবেচনায় দল তাকে মনোনয়ন দেবেন দাবি করে রফিকুল ইসলাম বলেন, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে এলাকার জনগণ তাকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করবেন বলে তিনি বিশ্বাস করেন।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ