Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৫ পৌষ ১৪২৫, ১১ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

ইসলামী কর্মতৎপরতা

| প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

তমদ্দুন মজলিস
ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক সংগঠন তমদ্দুন মজলিসের উদ্যোগে বঙ্গভঙ্গ দিবস-২০১৮ উপলক্ষে বাংলাদেশ ফটো-জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশন হল (বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটের বিপরীতে), ঢাকায় “বঙ্গভঙ্গ রদ ছিল বাঙালির ইতিহাসে একটি চরম বিপর্যয়” শীর্ষক আলোচনা সভা, রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
তমদ্দুন মজলিসের সভাপতি অধ্যাপক ড. মুহাম্মাদ সিদ্দিকের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত ভাষা সৈনিক ও প্রবীণ সাংবাদিক অধ্যাপক মোহাম্মদ আবদুল গফুর। এছাড়াও আলোচনায় অংশগ্রহন করেন অধ্যাপক ড. এস.কে আকরাম আলী, জনাব আবদুল আউয়াল ঠাকুর, ডা. ফাহমিদ-উর-রহমান, অধ্যাপক ড. এম আক্তারুজ্জামান, ড. ঈসা শাহেদী, জনাব মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম ও জনাব মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন প্রমুখ। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ঢাকা মহানগর তমদ্দুন মজলিসের সভাপতি জনাব মুহম্মদ আবদুল হান্নান। উল্লেখ্য যে, এ অনুষ্ঠানে ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক সংগঠন তমদ্দুন মজলিসের উদ্যোগে বঙ্গভঙ্গ দিবস-২০১৮ উপলক্ষে আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী সহ সকল অংশগ্রহণকারীকে পুরস্কার প্রদান হয়।
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই নির্বাচন কমিশনের প্রতি কমপক্ষে এক সপ্তাহ তফসিল পিছিয়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, দেশে নির্বাচনের কোনরকম পরিবেশ এখনও তৈরী হয়নি। সকল রাজনৈতিক দল এখন নির্বাচন পিছিয়ে দেয়ার ব্যাপারে একমত হয়েছে। অতএব কমপক্ষে এক সপ্তাহের জন্য হলেও নির্বাচন পিছিয়ে দিয়ে নির্বাচনের পরিবেশ তৈরী করে সকল রাজনৈতিক দলকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ দিতে হবে। এক বিবৃতিতে পীর সাহেব চরমোনাই নির্বাচন পিছানোর ক্ষেত্রে টঙ্গীতে অনুষ্ঠিতব্য আসন্ন বিশ্ব ইজতেমা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সে বিষয়টিও বিবেচনায় রাখার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান।
আগামীকাল সোমবার নির্বাচন কমিশনের সাথে সাক্ষাত চেয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনকে একটি চিঠি দিয়েছে।
এদিকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সর্বশেষ পরিস্থিতি পর্যালোচনার জন্য ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানীর সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন দলের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান ও মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, আলহাজ¦ হারুন অর রশিদ, কেএম আতিকুর রহমান, মাওলানা নেছার উদ্দিন, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী প্রমুখ।
সভায় প্রিন্সিপাল মাদানী সকল দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন অনুষ্ঠান এবং লেভেলপ্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান।
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সহকারী মহাসচিব ও ঢাকা-১১ আসনের প্রার্থী আলহাজ¦ আমিনুল ইসলাম বলেছেন, একতরফাভাবে তফসিল ঘোষণা প্রমাণ করে নির্বাচন কমিশনার আওয়ামী লীগের দলীয় তল্পিবাহক। সরকারের ছকেই তফসিল ঘোষণা করছে নির্বাচন কমিশন। বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে সরকারের আজ্ঞাবহ প্রতিষ্ঠানে পরিণত করা হয়েছে। এই তফসিল ঘোষণা পরিস্থিতিকে আরো জটিল করেছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সকল দলের অংশগ্রহণে নিরপেক্ষ ও সমান সুযোগ সমৃদ্ধ লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরী ছাড়া তফসিল ঘোষণা দায়িত্বহীনতার বহিঃপ্রকাশ।
গতকাল সন্ধায় ভাটারাস্থ আস্সাঈদ মিলনায়তনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা-১১ আসনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রশিক্ষণ কর্মশালায় তিনি প্রধান অতিথিল বক্তব্যে একথা বলেন। মুফতী ফরিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন মাওলানা ছফিউল্লাহ আল-মুস্তাফা, এনামুল হক ব্যাপারী, আলহাজ¦ তাজুল ইসলাম, কাউছার বিন ইউসুফ, মহিউদ্দিন, মুফতী হাবিবুল্লাহ প্রমুখ। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।