Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৬ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

বড়দিনের বোনাস হিসেবে বন্দুক উপহার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ নভেম্বর, ২০১৮, ৯:১০ পিএম

যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনের এক সংস্থা কর্মচারীদেরকে এবার বড়দিনের বোনাস হিসেবে প্রচলিত চকোলেট, শ্যাম্পেন, কেক কিংবা দামি পোশাকের বদলে আগ্নেয়াস্ত্র উপহার দিয়েছে।
উইসকনসিনের হরটনভিলে ‘বেনশট’ নামে ওই কাজ করেন মাত্র ১৬ জন স্থায়ী কর্মী। মূলত বুলেটপ্রুফ বিয়ার গ্লাস বানানোই ব্যবসা তাদের। কোনও কোনও বিয়ার গ্লাসের গায়ে আবার লাগানো থাকে আসল বুলেটও। বাবা-ছেলের মালিকানায় ওই সংস্থার পণ্য বিক্রি হয় অনলাইনে। মালিকদের মাথয় এবার আইডিয়া এসেছে বড়দিনে কর্মীদেরকে তারা গিফ্ট কার্ডের আকারে আগ্নেয়াস্ত্র উপহার দেবেন। আইডিয়া অনুযায়ি, ৫০০ মার্কিন ডলার মূল্যের ওই কার্ড একে একে প্রতিটি কর্মচারীর হাতে তুলে দেওয়া হয়। যাতে নিজেদের পছন্দ মতো বন্দুক-পিস্তল বা অন্য যে কোনও ধরনের আগ্নেয়াস্ত্র কিনে নিতে পারেন তাঁরা।
কিন্তু, হঠাৎ এই আইডিয়াটা মাথায় এল কেন? সংস্থার এক মালিক বেন উলফগ্রামের দাবি, ‘কর্মীদের ব্যক্তিগত সুরক্ষার কথা মাথায় রেখেই কিছু একটা দিতে চেয়েছিলাম। সেই সঙ্গে খানিকটা মজা করেই কিছু একটা আকর্ষণীয় উপহারের কথা মাথায় এসেছিল। বেনের আরও দাবি, এই উপহার পেয়ে বেশির ভাগ কর্মীই খুব খুশি হয়েছেন।’
বেনের মন্তব্যের প্রতিফলনই দেখা গেল চেলসি প্রিস্ট নামে এক কর্মীর কথায়। সাম্প্রতিক অতীতে যুক্তরাষ্ট্রের বুকে ঘটে যাওয়া বন্দুকবাজের অসংখ্য হামলার ঘটনা ঘটেছে। চেলসি বলেন, ‘আগ্নেয়াস্ত্র হাতে পেয়ে প্রথমেই মালিককে বলেছিলাম, বন্দুকবাজের শিকার যাতে না হই সে ব্যবস্থা করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।’ নিজের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত চেলসি আরও বলেন, ‘একেই তো আমি ছোটখাটো চেহারার। তা ছাড়া, এক জন কমবয়সি মেয়ে হওয়ায় আমার সঙ্গে যে কোনও অঘটন ঘটতে পারে।’ সূত্র: ইউএসএ টুডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ