Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯, ০৭ চৈত্র ১৪২৫, ১৩ রজব ১৪৪০ হিজরী।

চীন-যুক্তরাষ্ট্র দুর্যোগ প্রতিরোধ মহড়া

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ১৯ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

দক্ষিণ চীন সাগর ও স্বায়ত্তশাসিত তাইওয়ান নিয়ে চীন-যুক্তরাষ্ট্রের তিক্ত সম্পর্কের মধ্যেই সাতদিনের যৌথ দুর্যোগ প্রতিরোধ মহড়ায় মিলিত হয়েছে দেশ দুটির সামরিক সৈন্যরা। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শাসনামলে চীন-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্ক সবচেয়ে খারাপ পর্যায়ে নেমেছে। চলতি মাসের শেষে আর্জেন্টিনায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া জি২০ সম্মেলনে বৈঠকে বসার কথা রয়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্প ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের। চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়েই ফেঙ্গে ও কূটনীতিক ইয়াং জিয়েচি কিছুদিন আগেই ওয়াশিংটন ভ্রমণে গিয়েছিলেন। মার্কিন কর্মকর্তারা তাদের দক্ষিণ চীন সাগরে সৈন্য মোতায়েন বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। তাদের ওয়াশিংটন ভ্রমণের এক সপ্তাহ পরই চীনের পশ্চিমের শহর নানজিংয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এ যৌথ মহড়া। চীনা ও মার্কিন সৈন্যদের মধ্যে দ্ব›দ্ব-সংঘাতের কোনো চিহ্ন দেখা যায়নি। তারা ডামি দুর্যোগ-পরবর্তী ধ্বংসাবশেষ থেকে পরস্পরকে উদ্ধারের অভিনয় করে যাচ্ছে। চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) ইস্টার্ন থিয়েটার কমান্ডের ডেপুটি কমান্ডার কিন ওয়েজিয়াং প্রতিবেদকদের বলেন, ‘শুধু দুই পক্ষের স্বার্থ রক্ষার্থে বেশি বেশি যোগাযোগ, বিনিময় এবং সহযোগিতার মাধ্যমেই আমরা পারস্পরিক বিশ্বাস অর্জন করতে পারব এবং ভুল সিদ্ধান্তগুলো থেকে বেরিয়ে আসতে পারব। আমি মনে করি, মানবিক ও দুর্যোগ প্রতিরোধ সহযোগিতা বিনিময়ের মধ্য দিয়েই আমরা পারস্পরিক বিনিময় শুরু করতে পারি এবং পরবর্তী সময়ে আমাদের দুই পক্ষের অভিন্ন স্বার্থের জায়গাগুলোয় নিজেদের নিয়োজিত করতে পারি।’ রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন