Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

সিআইএ’র দাবি প্রত্যাখ্যান সউদী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ নভেম্বর, ২০১৮, ৪:২২ পিএম

সউদীর ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের নির্দেশেই সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যা করা হয়েছে বলে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ সম্প্রতি দাবি করেছে। কিন্তু এই দাবি মিথ্যা বলে প্রত্যাখ্যান করেছেন সউদী আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। খবর চ্যানেল নিউজ এশিয়া।
তুর্কি সরকারের দেয়া অডিও রেকর্ডিং, বিভিন্ন প্রমাণাদি এবং মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের তথ্যের ওপর ভিত্তি করেই সিআইএ জানিয়েছে যে, প্রিন্স সালমানের নির্দেশেই জামাল খাশেগিকে হত্যা করা হয়েছে। তদন্তকারীরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করেন যে, খাশোগিকে হত্যার মতো এমন একটি অপারেশন প্রিন্স সালমানের অনুমতি ছাড়া হয়নি।
তবে সউদীর পররাষ্ট্রমন্ত্রী মঙ্গলবার সিআইএর এই দাবিকে মিথ্যা বলে উল্লেখ করেছেন। একটি আরবি পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেছেন, ক্রাউন প্রিন্সের নির্দেশে জামাল খাশোগিকে হত্যা করা হয়েছে এমন কথা মিথ্যা। অপরদিকে সিআইএর এই মূল্যায়নে অনুমোদন দেয়নি হোয়াইট হাউসও।
প্রথমবারের মতো সিআইএর প্রতিবেদন সম্পর্কে সউদীর আল শারক আল আওসাত পত্রিকাকে আনুষ্ঠানিকভাবে দেয়া সাক্ষাতকারে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবেইর বলেন, সউদী রাজতন্ত্রে বসবাসকারী আমরা জানি যে, ক্রাউন প্রিন্সের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ মিথ্যা। এগুলোর কোন ভিত্তি নেই। আমরা সুনিশ্চিতভাবেই এটা প্রত্যাখ্যান করছি। তিনি আরও বলেন, এটা তাদের মূল্যায়ণ। কিন্তু এর বিপরীতে তাদের কাছে কোন প্রমাণ নেই। তারা ধারণার ওপর ভিত্তি করেই এসব কথা বলছে।
খাশোগি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তুরস্কের বিবৃতি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, আমরা ইতোমধ্যেই তুর্কি কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করেছি। তাদের মন্তব্যে সউদীর ঊচ্চ পর্যায় বলতে তারা কি বুঝিয়েছে সে বিষয়ে তারা জানিয়েছে। তারা সুনিশ্চিতভাবেই এখানে ক্রাউন প্রিন্সকে বোঝায়নি।
খাশোগি সউদী রাজপরিবারের সমালোচক হিসেবে পরিচিত ছিলেন। গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরে অবস্থিত সউদী কনস্যুলেটে প্রবেশের পর নিখোঁজ হন তিনি। তার বিয়ের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তুলতে কনস্যুলেটে যাওয়ার পর সেখানে তাকে হত্যা করা হয়। কিন্তু তার মরদেহ এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।
প্রথমদিকে খাশোগিকে হত্যার বিষয়টি অস্বীকার করলেও পরে সউদীর তরফ থেকে জানানো হয় যে, কনস্যুলেটের ভেতরে সংঘর্ষে জড়িয়ে নিহত হন খাশোগি। তবে এই ঘটনায় প্রিন্স সালমানের সম্পৃক্ততার বিষয়টি বরাবরই অস্বীকার করা হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ