Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬, ১৮ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের মুখে ইসির তালা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে দেশী-বিদেশী পর্যবেক্ষকদের মুখে তালা ঝুলিয়ে দিলো নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন পর্যবেক্ষণে বাধা থাকবে না; কিন্তু তারা ভোটকেন্দ্রে ব্যালট ছিনতাই, ভোটকেন্দ্র দখল ও অনিয়ম দেখলেও কেউ মুখ খুলতে পারবেন না। নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে গতকাল ইসি সচিব সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, নির্বাচনে পর্যবেক্ষকরা মূর্তির মতো দাঁড়িয়ে পর্যবেক্ষন করবেন। ভোটগ্রহণের সময় যতই ঝামেলা হোক না কেন মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না; মিডিয়ায় কথা বলতে পারবেন না। গতকাল আগারগাঁস্থ নির্বাচন ভবনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ১১৮টি পর্যবেক্ষক সংস্থার প্রতিনিধিদের এক ব্রিফিং ইসি সচিব এসব কথা বলেন।
ইসি অতিরিক্ত সচিব মোঃ মাখলেসুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা করেন যুগ্ম সচিব খন্দকার মিজানুর রহমান ও এএসএম আসাদুজ্জামান। এবার নির্বাচনে ৪০ হাজার ২০০টি কেন্দ্রের প্রতিটিতে একজন করে পর্যবেক্ষক রাখার একটা নীতিমালা করা হয়েছে। পর্যবেক্ষকদের বয়স ২৫ বছরের নিচে নয় এবং এসএসসি পাসের যোগ্যতা থাকতে হবে। নির্বাচন পর্যবেক্ষণে স্থানীয় নিবন্ধিত ১১৮টি সংস্থাকে ২১ নভেম্বরের মধ্যে ইসিতে আবেদন করতে হবে। আর বিদেশি পর্যবেক্ষক সংস্থাগুলো ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে প্রয়োজনীয় কাজ শেষ করবে বলে ইসি প্রত্যাশা করছে। বিদেশি পর্যবেক্ষকদের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিতে আগামী ২৫ নভেম্বর পররাষ্ট্র, স্বরাষ্ট্র, তথ্য মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বসবে নির্বাচন কমিশন। এর আগে আগামী ২২ নভেম্বর পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।
পর্যবেক্ষকরা কোনো লাইভ প্রচারে অংশ নিতে পারবেন না কোনো ইন্টারভিউ দিতে পারবেন না জানিয়ে পর্যবেক্ষক সংস্থার প্রতিনিধিদের উদ্দেশে সচিব হেলালুদ্দীন বলেন, যখন আপনারা পর্যবেক্ষক নিয়োগ করবেন তখন কয়েকটি সাবধান বাণী উচ্চারণ করবেন। নির্বাচন কমিশনের দেয়া পরিচয়পত্র সার্বক্ষণিক গলায় ঝুলিয়ে রাখতে হবে। যাতে যে কেউ বুঝতে পারেন যে আপনি একজন পর্যবেক্ষক। প্রথমে কেন্দ্রে গিয়ে প্রিসাইডিং অফিসারকে তার পরিচয় দিতে হবে। কেন্দ্রে কোনো মোবাইল ফোন নেয়া যাবে না। কোনো ছবি তুলতে পারবে না, কোনো কমেন্টস করতে পারবে না। শুধু মূর্তির মতো দাঁড়িয়ে পর্যবেক্ষণ করবে। কেন্দ্রে ভোট নিয়ে যত প্রবলেমই হোক সে পর্যবেক্ষণ করে আপনার কাছে একটি রিপোর্ট পেশ করবেন।
তারপর আপনি সবার কাছ থেকে রিপোর্ট নিয়ে কম্পাইল করে আমাদের কাছে প্রতিবেদন দিবেন। পর্যবেক্ষণের সময় গোপন কক্ষে যাওয়া যাবে না, কাউকে নির্দেশনা দিতে পারবে না। প্রিসাইডিং, পোলিং অফিসারকে কোনো পরামর্শ দিতে পারবে না। এগুলো ক্লিয়ার করে বলে দেবেন। যদি কেন্দ্রে অনিয়ম হয়, এটা তারা কমিশনকে অবহিত করতে পারেন বা আপনাকে লিখিতভাবে অবহিত করতে পারেন।
ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, অনেক সাংবাদিক তাদের সামনে ক্যামেরা ধরবেন, উনি (পর্যবেক্ষক) কিন্তু কথা বলতে পারবেন না। কোনো সংবাদ পত্রে লাইভে কথা বলতে পারবে না, কমেন্টস করতে পারবে না। ব্রিটেনের পুলিশের মতো মূর্তির মতো দাঁড়িয়ে শুধু পর্যবেক্ষণ করবে। আপনাদের কাছে লিখিত রিপোর্ট জমা দেওয়ার আগে কোনো মন্তব্য নয়। আপনারাও যখন কম্পাইল করে জমা দেবেন, তার আগে আপনারাও কোনো কমেন্টস করবেন না। রিপোর্ট কম্পাইল হলে প্রয়োজনে সংবাদ সম্মেলন করতে পারেন। আপনাদের আচরণ হবে নিউট্রাল। এমন কোনো ব্যক্তিকে আপনারা নিয়োগ করবে না যে কোনো রাজনৈতিক দলের সদস্য। এগুলো আপনাদের খেয়াল রাখতে হবে। একটা জিনিস খেয়াল রাখবেন নিবন্ধন যাতে বাতিল না হয়। সে দিকে আপনারা খুব বেশি খেয়াল রাখবেন। আপনারা অনেকে কিন্তু এনজিও হিসেবে কাজ করেন। অন্যান্য কাজের পাশাপাশি আপনারা নির্বাচনেও কাজ করেন। কিন্তু এখান থেকে যদি আমরা রিপোর্ট দেই যে, আপনি এই ধরণের একটি আচরণ করেছেন। যেটার জন্য নির্বাচন প্রক্রিয়াটাই প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে গেছে। তাহলে কিন্তু আপনার নিবন্ধনটা বাতিল করার জন্য যারা নিবন্ধন দেয় তাদেরকেও আমরা চিঠি দিয়ে দেবো। বি কেয়ারফুল। এমন কোনো কাজ করবেন না যেটার জন্য নির্বাচন প্রক্রিয়া ভÐুল হতে পারে বা প্রশ্নবিদ্ধ হতে পারে।



 

Show all comments
  • Abc ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ৪:৫৪ পিএম says : 0
    No need eec for conducting election.Any organisation can work like eec. Big shame for whole nation.
    Total Reply(0) Reply
  • Roderick K Roy ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ২:০৯ পিএম says : 0
    Why so many negative comments about it.why don't people take it positively. Does this mean all the people want a problem in the vote which can kill more people.
    Total Reply(0) Reply
  • মুজিবির রহমান ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ৪:২৪ পিএম says : 0
    পুলিশ ইনচার্জ সত্য কে মিথ্যা বলবে আর মিথ্যা কে সত্য বলবে পুরো তামাশা মোবাইল থাকলে সমস্যা কি? ভোট চুরি করলে কি করবেন? সুস্পষ্ট কোনো যাগা তে ভোট চুরি হইনাই পরে বলবে আর কি।
    Total Reply(0) Reply
  • আহমেদ হোছাইন ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ২:০০ পিএম says : 0
    বর্তমান দখলদার সরকার চাইতেছে বিএনপি নির্বাচন বর্জন করুক, বিএনপির উচিত হবে সর্বশক্তি নিয়োগ করে একজন একজন করে না মরে একই দিনে একইসঙ্গে মৃত্যুর জন্য তৈরি হওয়া।
    Total Reply(0) Reply
  • দিলারা বাসিম ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:৫০ এএম says : 0
    এ রকম "মূর্তি পর্যবেক্ষক" বানিয়ে সারা বিশ্বকেই হাসানো হচ্ছে! বহিঃর্বিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি কোথায় গিয়ে ঠেকবে?
    Total Reply(0) Reply
  • আঃজাববার ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:৫৫ এএম says : 0
    এটা হলোনি,,,,,স্যার,,ওরা কি কচু খাবে
    Total Reply(0) Reply
  • নুরামিন ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১:৪০ এএম says : 0
    এমন পর্যবেক্ষকের কি দরকার? যারা তাদের সঠিক মত সঠিক সময় প্রকাশ করতে পারবে না
    Total Reply(0) Reply
  • ফারুক হোসেন ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১:০৯ এএম says : 0
    ভুল বাংলাদেশে গণতন্ত্রের কোন প্রয়োজন নেই। সেনাশাসন চাই
    Total Reply(0) Reply
  • ইলিয়াস মাহমুদ ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১:১০ এএম says : 0
    ধরা যাবে না। ছোয়া যাবে না। বলা যাবে না কথা। রক্ত দিয়ে পেলাম... এ কোন স্বাধীনতা?
    Total Reply(0) Reply
  • নুরামিন ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১:৪৩ এএম says : 0
    এমন পর্যবেক্ষকের কি দরকার? যারা তাদের সঠিক মত সঠিক সময় প্রকাশ করতে পারবে না
    Total Reply(0) Reply
  • Nannu chowhan ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ৩:০৬ পিএম says : 0
    What a shame EEC!Actually eec working like a tail of the Aowamilig govorment...
    Total Reply(0) Reply
  • Mosharraf Hossain ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১:১১ এএম says : 0
    এটা কি মগের মু্ল্লুক। ইসি অামাদের কী বোঝাতে চায়। এটা কে কি সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষণ বলে। মোদ্দা কথা- বাকশালি নির্বাচনের পথে দেশ ।
    Total Reply(0) Reply
  • রুবেল ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১:৪৩ এএম says : 0
    এটা আবার কি ধরনের কথা, ভোট কেন্দ্রে সাংবাদিক বেশিক্ষন থাকতে পারবেনা! সাংবাদিকরা লাইভ দেখাতে পারবেনা! একসঙ্গে ৫ জন এর বেশি সাংবাদিক ভোট কেন্দ্রে থাকতে পারবেনা!এখন আবার বলছে পর্যবেক্ষকগন মিডিয়ায় ভোট এর অবস্থা জানাতে পারবেনা! তাহলে এই সংস্থার লোকজন কি ওখানে ঘোড়ার ঘাসকাটার জন্য যাবে!!!❓ তার চেয়ে বলে দেব সাংবাদিক দের ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ নিষেধ ।
    Total Reply(0) Reply
  • রুবেল ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১:১৪ এএম says : 0
    সংবিধানের কোথায় লেখা আছে নির্বাচন কমিশনের সচিব সাহেব,যা বলবেন জাতির কাছে প্রকাশ করুনঃ জাতি জানতে চায়।
    Total Reply(0) Reply
  • M.S Sahed Rangpur ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১১:৫৭ এএম says : 0
    ভুল বাংলাদেশে গণতন্ত্রের কোন প্রয়োজন নেই। সেনাশাসন চাই .........! জনাব,গণভবনে বসে আপনারা ঘোষণাটা দিয়ে দিলেত হয়।আর দেশের কোটি কোটি টাকা ও খরচ হলনা মানুযও ঘুম হতে হলোনা খুন হতে হলোনা।দেশ ও বাচলো দেশের জনগনও বাচলো।আপনার কাজের জন্য ধন্যবাদ
    Total Reply(0) Reply
  • রুবেল ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১:৪৬ এএম says : 0
    এটা আবার কি ধরনের কথা, ভোট কেন্দ্রে সাংবাদিক বেশিক্ষন থাকতে পারবেনা! সাংবাদিকরা লাইভ দেখাতে পারবেনা! একসঙ্গে ৫ জন এর বেশি সাংবাদিক ভোট কেন্দ্রে থাকতে পারবেনা!এখন আবার বলছে পর্যবেক্ষকগন মিডিয়ায় ভোট এর অবস্থা জানাতে পারবেনা! তাহলে এই সংস্থার লোকজন কি ওখানে ঘোড়ার ঘাসকাটার জন্য যাবে!!!❓ তার চেয়ে বলে দেব সাংবাদিক দের ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ নিষেধ।
    Total Reply(0) Reply
  • Solaiman Solaiman ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ২:৪৮ এএম says : 0
    কোন নির্বাচন কমিশনের দরকার নাই নির্বাচনের অফিসের দরকার নাই ভবনের দরকার নাই। সব বদ্ধ। দেশ একজনের শাসন করব।
    Total Reply(0) Reply
  • abdus sattar ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ৭:১৩ এএম says : 0
    নির্বাচন কেন্দ্রে আসলে হবে টা কি ?
    Total Reply(0) Reply
  • nuruddin ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ৮:২৮ এএম says : 0
    ভালো ডিসিসান । গতবারে মনে হচ্ছিল যে ওরাই যেন
    Total Reply(0) Reply
  • shafiq ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১০:৪০ এএম says : 0
    জনাব,গণভবনে বসে আপনারা ঘোষণাটা দিয়ে দিলেত হয়।আর দেশের কোটি কোটি টাকা ও খরচ হলনা মানুযও ঘুম হতে হলোনা খুন হতে হলোনা।দেশ ও বাচলো দেশের জনগনও বাচলো।আপনার আপনার কাজের জন্য ধন্যবা।
    Total Reply(0) Reply
  • ইয়াছিন সোহেল ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১১:০৬ এএম says : 0
    তাহলে নির্বাচনে পর্যবেক্ষকের কি দরকার....!
    Total Reply(0) Reply
  • Khandaker Firoze Hassab ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ১১:৩২ এএম says : 0
    ব্রিটেনের পুলিশের মত দারিয়ে থাকবে,তাহলে পর্যবেক্ষক যারা থাকবে তারা কি পুলিশ? বাহ নির্বাচন কমিশন আপনাদের জবাব নেই। এটা বাদ দিয়ে অফিসে বসে আওয়ামি লীগকে 300 আসনে জয়ি ঘোষনা করে দিন। আমাদের আর ক্ষ্ট করে ভোট দিতে যেতে হবেনা........
    Total Reply(0) Reply
  • Monsur ২১ নভেম্বর, ২০১৮, ৬:৫৫ পিএম says : 0
    I don't like eec
    Total Reply(0) Reply
  • রুবেল ২২ নভেম্বর, ২০১৮, ১১:০৮ পিএম says : 0
    ধরা যাবেনা ছোঁয়া যাবেনা! বলা যাবেনা কথা'রক্ত দিয়ে পেলাম একেমন স্বাধীনতা । আজকে বাংলাদেশের মানুষ বাংলার কি মানুষএর কাছে পরাধীন হয়ে আছে । বাংলার মানুষ এর থেকে মুক্তি পেতে চায়! ধরা যাবেনা ছোঁয়া যাবেনা! বলা যাবেনা কথা'রক্ত দিয়ে পেলাম একেমন স্বাধীনতা । আজকে বাংলাদেশের মানুষ বাংলার কি মানুষএর কাছে পরাধীন হয়ে আছে । বাংলার মানুষ এর থেকে মুক্তি পেতে চায়
    Total Reply(0) Reply
  • মো: সৌরভ হোসেন ২৪ নভেম্বর, ২০১৮, ১:৩৩ পিএম says : 0
    এটাই ক্ষমতাসীনদের চাল বুযা বড় কঠিন। জাতীয় নির্বচন টা হবে এই রকম যে,ফুটবল খেলার মতো দুটি দলের মধ্যে একটি রেফারির আর একটি অন্য কারো।যখন রেফারি নিজের খেলা নিজে পরিচালননা করবেন তখন সূক্ষ্ম হবে কিভাবে।।।।।।।।
    Total Reply(0) Reply
  • রিপন ২৬ নভেম্বর, ২০১৮, ৫:৪১ পিএম says : 0
    বেহুদা কমিশনের ভাষার কী ছিরি! - মূর্তি! শুনলে রাগে আমাদেরই ব্রহ্মতালু গরম হয়ে যায়, সেখানে বিদেশিরা অপমান বোধ করবে না, তা কী করে হয়, মশাই?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাতীয় নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন