Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪ মাঘ ১৪২৭, ১৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

ড. কামাল শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিচ্ছেন -মেনন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ নভেম্বর, ২০১৮, ৭:৩২ পিএম | আপডেট : ৭:৫৪ পিএম, ২২ নভেম্বর, ২০১৮

ড. কামাল হোসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী কমরেড রাশেদ খান মেনন। তিনি বলেন, ড. কামালের কাছে নির্বাচন মুখ্য নয়, মুখ্য খালেদা-তারেকের মুক্তি। তিনি এখন বিএনপি-জামাতের ধানের শীষের বোঝা মাথায় নিয়েছেন। অথচ এই ধানের শীষ, আর তারেক সম্পর্কে তিনি অতীতে যা বলেছিলেন সেটা স্মরণ করলেই, জনগণের সাথে তার প্রতারণা ধরা পড়ে। কাউকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখাতে হয় না। আসলে তিনি শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিচ্ছেন।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকদের সাথে এবং পরবর্তীতে তৃতীয় শ্রেণী-চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারি ও নার্সদের সাথে মতবিনিময়কালে মেনন এসব কথা বলেন।

মেনন বলেন, তারা এখনও পর্যন্ত নির্বাচন নিয়ে হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। হুমকি-ধামকি দিয়ে কাউকে নির্বাচন থেকে বিরত করা যাবে না। আমরা এখনও আশা করি ঐ সংঘর্ষ-সংঘাতের পথ পরিহার করে তারা নির্বাচনে আসবে, সেখানে জনগণই সিদ্ধান্ত নেবে জনগণ কার পক্ষে থাকবে। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ চতুর্থ শ্রেণী কর্মচারির সভাপতি আবু সাঈদ।



 

Show all comments
  • মো ; সোহেল হোসেন ২২ নভেম্বর, ২০১৮, ৯:৪৭ পিএম says : 0
    ড: কামাল হোসেন স্যার এর উদ্দেশ্য তা নয়। ১০ বছর রাজনৈতিক চর্চা নাই। মানুষ কে প্রশাসন দিয়া মুখ বন্ধ করা হয়েছে।বাক স্বাধীনতা হরন ,মতামত প্রকাশ করার অধিকার খর্ব , নিরাপরাদ ব্যাক্তিদের কারাগারে রেখে চলছে ক্ষমতাসীন দলের একদলীয় শাসন যেখানে ড: কামাল হোসেন স্যার,জনগণের পাশে দাঁড়ালেন গণতন্ত্র, বাকস্বাধীনতা ,মতামত প্রকাশ করার অধিকার ফিরিয়া আনার জন্য তাতে সুবিধাভোগী লোকেরা একটু সমস্যায় পড়েছেন। এটা ই ড: কামাল হোসেন স্যার দোষ তাই না মেনন স্যার।বাংলাদেশের সর্বোচ্চ,জ্ঞানী,মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী,সুনাম ধন্য রাজনীতিবিদ ও দেশের জন্য নিবেদিত কিছু মহান ব্যাক্তিত্ব জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নামে যে সংগঠন গড়লেন,আমাদের কি জানা দরকার না, এটা মূলত কি শুধুই একটা দল,যারা ক্ষমতার জন্য এক হলেন। এরা মুক্তিযুদ্বের কান্ডারি ছিলেন।দেশ কে পাকিস্তানী বাহিনীর হাত থেকে রক্ষার জন্য জীবনের সর্বোচ্চ দিয়াছেন।আজ আমরা যদি মনে করি,তারা মনে হয় ক্ষমতার লোভে কিছু একটা করতে চান। যদি তাই হতো,অনেক আগেই তারা কোনো না কোনো দলের হয়ে উচ্চ আসনে আসীন হতেন যা এই ব্যক্তি দ্বয়ের জন্য অতি ই সামান্য, যেমন আপনি একটা ভালো পজিশন এ আছেন আওয়মীলীগে যোগ দিয়ে আপনার কি মনে হয় না এর চেয়ে অনেক অনেক গুন্ ভালো পজিশন ডঃ কামাল হোসেন স্যার থাকতে পারতেন ? মো : সোহেল হোসেন আর্টিকেল রাইটার ,ব্লগার&লেকচারার
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাতীয় নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ