Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সংবিধান লঙ্ঘনে মামলা হবে সরকার ও ইসির বিরুদ্ধে -সেমিনারে আ স ম রব

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০৪ এএম

জেএসডির সভাপতি ও ঐক্যফ্রন্ট নেতা আ স ম আব্দুর রব বলেছেন, সংবিধান লঙ্ঘনের অভিযোগে সরকার ও নির্বাচন কমিশনের (ইসি) বিরুদ্ধেমামলা করা হবে। গতকাল ‘ইভিএমকে না বলুন আপনার ভোটকে সুরক্ষিত করুণ’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন। একাদশ সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) কি ধরনের প্রভাব ফেলতে পারে তা নিয়ে বিশেষজ্ঞদের মতামত নিতে রাজধানীর লেকশোর হোটেলে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়। আ স ম রব বলেন, আমরা ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ইসি ও সরকারের বিরুদ্ধে সংবিধান লঙ্ঘনের অভিযোগে মামলা করব। সংবিধানের কোথাও ইভিএম ব্যবহারের কথা উল্লেখ নেই। সরকার এবং ইসি সংবিধান লঙ্ঘন করে সকলের মতামততে উপেক্ষা করে ইভিএম ব্যবহার করে ভোট কারচুপি করতে চায়।
তিনি বলেন, সংবিধানের ৬৫ অনুচ্ছেদের ২(ক) তে বলা আছে, সংসদ গঠন হবে প্রত্যক্ষ ভোটে। সংবিধানে ইংরেজিতে স্পষ্টভাবে ‘ডিরেক্ট’ শব্দটি উল্লেখ করা আছে, যার অর্থ প্রত্যক্ষ। ইভিএম প্রত্যক্ষ ভোটের আওতায় পড়ে না। নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করা সংবিধান বিরোধী। তাই সংবিধান সংশোধন ছাড়া ইভিএম ব্যবহার করা যাবে না।
জেএসডি সভাপতি বলেন, ভোট দেয়া থেকে শুরু করে গণনা পর্যন্ত সব নির্বাচনী প্রক্রিয়া জনগণের কাছে উন্মুক্ত থাকতে হবে। জনগণের কাছে এ মেশিনের স্বচ্ছতা নেই।
নির্বাচন কমিশনকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, সেনাবাহিনীকে বিতর্কিত করতে ইভিএম কেন্দ্রগুলোতে নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। র‌্যাব, পুলিশ, সেনাবাহিনী, ডিবি, নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের বলবো, আপনারা নিরপেক্ষ হন। নির্বাচনের পর দেশে আপনারা থাকবেন, আমরাও থাকবো। আপনাদের ভূমিকার জন্য জনগণের কাছে জবাব দিতে হবে।
এর আগে ইভিএমের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নানাভাবে ভোট জালিয়াতির কয়েকটি নমুনা দেখান বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল ও দলের তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ দল।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি নেতা মঈন খান, আমির খসরু মাহামুদ চৌধুরী, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, মাহমুদুর রহমান মান্না, ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, আন্দালিব রহমান পার্থ, অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরীসহ প্রায় ৪০ বিশিষ্ট নাগরিক।



 

Show all comments
  • মো. আল আমিন ২৩ নভেম্বর, ২০১৮, ৩:৩২ এএম says : 0
    আ স ম রব হলো জনবিচ্ছিন্ন বাজে দুরনৗতিবাজ লোক। এই ধরণের লোকের কাছে এই ধরণের কথা সত্যই হাস্যকর বটে। রব নিজেই নির্বাচিত হতে পারবে না একহাজার বার নিশ্চিত।
    Total Reply(0) Reply
  • হাননান ২৩ নভেম্বর, ২০১৮, ৭:২০ এএম says : 0
    রব একজন জনবিছিনন সুবিধাবাদী লোক তাই রবের মুখে এই কথাটি বেমানান.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ