Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৭ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৩ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

ব্রাজিলে ব্রিটেনের আয়তনে উপনিবেশ গড়েছে উইপোকারা!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ নভেম্বর, ২০১৮, ৭:৫৪ পিএম

দূর থেকে দেখে মনে হবে অসংখ্য ছোট ছোট টিলা মাথা তুলে দাঁড়িয়ে আছে। পরিপাটি ভাবে সাজানো। যেন সুপরিকল্পিত ভাবে সেই টিলাগুলোকে এক সার দিয়ে গড়ে তোলা হয়েছে! ভুলটা ভাঙে অবশ্য কাছে যেতেই। টিলার মতোই সেগুলো, তবে পাথুরে নয়, সেগুলো এক একটা বিশালাকার মাটির স্তূপ। সংখ্যাটাও নেহাত কম নয়। প্রায় ২০ কোটি!
এক একটি স্তূপ আড়াই মিটার উঁচু এবং চওড়ায় ন’মিটার। আশ্চর্যের বিষয় হল এই স্তূপগুলো ২ লক্ষ ৩০ হাজার বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে বিস্তৃত। যা গ্রেট ব্রিটেনের আয়তনের প্রায় সমান। গ্রেট ব্রিটেনের আয়তন ২ লক্ষ ৪২ হাজার ৪৯৫ বর্গ কিলোমিটার।
উত্তর-পূর্ব ব্রাজিলে সম্প্রতি এই ধরনের স্তূপের সন্ধান পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তারা জানাচ্ছেন, কোনও প্রাকৃতিক উপায়ে নয়, এই স্তূপগুলো আসলে ‘উইপোকার ঢিবি’। তিল তিল করে প্রায় ৪০০০ বছর ধরে এই উপনিবেশ গড়ে তুলেছে উইপোকারা। ঢিবির মাটি পরীক্ষার পর এমনটাই দাবি করেছেন বিজ্ঞানীরা। এক দিকে মিশরে পিরামিড তৈরি হচ্ছিল, অন্য দিকে ব্রাজিলে সাম্রাজ্য বিস্তার করা শুরু করেছিল উইপোকারা।
বছরের পর বছর ধরে খাবারের খোঁজে সুড়ঙ্গপথ তৈরি করেছে এরা। সেই মাটি স্তূপাকারে জমা হয়েছে। এবং সেই সাম্রাজ্য ধীরে ধীরে এতটাই বিস্তৃত হয়েছে, বিজ্ঞানীরা তা দেখে চমকে উঠেছেন। সালফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পতঙ্গ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক স্টিফেন মার্টিন বলেন, ‘এই ঢিবিগুলো কোনও এক প্রজাতির উইপোকাই তৈরি করেছে। জঙ্গল থেকে শুকনো পাতা নিয়ে নির্বিঘ্নে খাওয়ার জন্য জঙ্গল পর্যন্ত সুড়ঙ্গ তৈরি করেছিল তারা।’
এই সুড়ঙ্গ তৈরির ফলে যে পরিমাণ মাটি খনন করেছিল উইপোকারা, বিজ্ঞানীরা বলছেন এর পরিমাণ ১০ কিউবিক কিলোমিটার। যা দিয়ে গিজার দ্য গ্রেট পিরামিডের মতো প্রায় ৪০০০ পিরামিড তৈরি করা যাবে। সূত্র: টিওআই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্রাজিলে

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন