Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

শেয়ার বাজারে আসছে ওয়ালটন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২৭ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

শেয়ার বাজারে আসছে বাংলাদেশী ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটনের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। উদ্দেশ্য প্রযুক্তিপণ্য উৎপাদনে বাংলাদেশের দ্রুততর অগ্রগতিতে দেশবাসীকে সম্পৃক্ত করা, জনগণকে ওয়ালটনের উন্নয়ন অংশীদার করা। মাল্টি ন্যাশনাল ব্র্যান্ড হিসেবে ওয়ালটনকে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে আরো ব্যাপকভাবে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে শেয়ার বাজারে প্রবেশ করতে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।
প্রতিষ্ঠানটির অনুমোদিত মূলধন (অথরাইজড ক্যাপিটাল) দেখানো হচ্ছে ৬০০ কোটি টাকা। আর পরিশোধিত মূলধন (পেইড আপ ক্যাপিটাল) ৩০০ কোটি টাকা। শেয়ার বাজারে কোনো প্রাইভেট প্লেসমেন্ট দিচ্ছে না ওয়ালটন। বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও)-এর মাধ্যমে বাজারে শেয়ার উন্মুক্ত করা হবে। পূঁজিবাজারে ওয়ালটনের ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে আছে ট্রিপল এ ফাইনান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। আর রেজিস্ট্রার টু ইস্যু প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। শেয়ার বাজার থেকে কত টাকা সংগ্রহ করা হবে? এ প্রশ্নের জবাবে ওয়ালটনের অ্যাডিশনাল অপারেটিভ ডিরেক্টর মো. ইয়াকুব আলী এফসিএ বলেন, ক্যাপিটাল এখানে মূখ্য নয়। গ্রাহকপ্রিয়তায় ওয়ালটন এখন দেশের এক নম্বর ব্র্যান্ড। ওয়ালটনের এই উন্নয়নে সাধারন জনগণকে সম্পৃক্ত করাই উদ্দেশ্য। ওয়ালটনের আন্তর্জাতিক ব্যবসা ইউনিটের প্রধান এডওয়ার্ড কিম জানান, ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ খ্যাত প্রযুক্তিপণ্য ও খুচরা যন্ত্রাংশ রপ্তানির মাধ্যমে ২০২৮ সালের মধ্যে ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়ের টার্গেট নিয়েছে ওয়ালটন। তিনি অবশ্য নির্দিষ্ট সময়ের আগেই টার্গেট পূরণের ব্যাপারে আশাবাদি। ওয়ালটনের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এবং সিএফও আবুল বাশার হাওলাদার বলেন, ওয়ালটন চাইছে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে জনগণের অংশীদারিত্ব বাড়াতে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ওয়ালটন


আরও
আরও পড়ুন