Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

জনগণ জয়ের টাকার উৎস সম্পর্কে জানতে চায় নজরুল ইসলাম খান

প্রকাশের সময় : ৪ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীপুত্র জয়ের বিরুদ্ধে সন্দেহজনক লেনদেনের যে অভিযোগ উঠেছে সরকারের উচিত তার তদন্ত করা। কারণ, জনগণ এই টাকার উৎস সম্পর্কে জানতে চায়। গতকাল গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র এম এ মান্নানের মুক্তি দাবিতে এক সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে এ সভার আয়োজন করে ‘মান্নান মুক্তি পরিষদ’ নামের একটি সংগঠন।
নজরুল ইসলাম খান বলেন, জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে একটি নির্বাচিত সংসদ প্রতিষ্ঠার জন্য বিএনপি আন্দোলন করছে। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি করছে। এটি ন্যায্য দাবি। কারণ এই সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন সুষ্ঠু হতে পারে না।
তিনি বলেন, এই সরকার জানে, বিএনপির দাবি মানলে তারা আর ক্ষমতায় থাকতে পারবে না। কারণ, তাদের কোনো জনপ্রিয়তা নেই। পায়ের নিচ থেকে মাটি সরে গেছে। সে জন্য সব ধরনের স্থানীয় নির্বাচনের কারচুপির আশ্রয় নিয়েছে।
তিনি বলেন, জনগণকে বোঝাতে হবে, এই সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়। সে জন্য তারা জনগণের জন্য কোনো কাজ করবে না। তারা সব প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে দিয়েছে, আরো করবে। ব্যাংকব্যবস্থা লুট হয়ে গেছে। সব জায়গায় একই অবস্থা।
দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, দলে পদ পেতে নিজেদের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকবে। কিন্তু সেটি যদি প্রতিপক্ষে রূপ নেয় তাহলে ক্ষতি। একজন আরেকজনের বিরুদ্ধে দোষারোপ বন্ধ করে ঐক্যবদ্ধ হোন। তাহলেই দল সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী হবে।
সভায় অংশ নিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, গণতন্ত্র, মানবাধিকার, আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ সবকিছু এই সরকার খেয়ে ফেলেছে। এরই ধারাবাহিকতায় সিটি করপোরেশন লুট করার জন্য সেখানকার নির্বাচিত মেয়রদের সরিয়ে দিচ্ছে। সে জন্য এম এ মান্নানসহ নির্বাচিত সব মেয়রকে কারাগারে ভরে রাখা হয়েছে।
তিনি অভিযোগ করেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার সংবাদপত্রের স্বাধীনতা সংকুচিত করতে প্রেস কাউন্সিলের মাধ্যমে নতুন আইন প্রণয়ন করতে যাচ্ছে। এর মাধ্যমে গণতন্ত্রের শেষ স্তম্ভ¢টুকুও ধ্বংস হয়ে যাবে।
আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ও গাজীপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী সায়েদুল আলম বাবুলের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ-দপ্তর সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম, শ্রীপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোতালেব হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মনির হোসেন। এছাড়া গাজীপুরের স্থানীয় নেতারা বক্তব্য রাখেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ