Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৩ পৌষ ১৪২৫, ৯ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

জাপার বনানী অফিসে তালা, এরশাদের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

নির্বাচন নিয়ে আওয়ামী লীগ, বিএনপি থেকে শুরু করে গণদলের মতো ক্ষুদ্র দলের অফিস যখন সরগরম; তখন এরশাদের জাতীয় পার্টির বনানী অফিসে গতকাল সারাদিন তালা ঝুলেছে। দলের নেতাকর্মী এবং ‘চেয়ারম্যানের কার্যালয় সিÐিকেট’কে যারা মনোনয়ন নিশ্চিত করতে অর্থ দিয়েছেন তারা এসে ঘুরে গেছেন। হঠাৎ জাতীয় পার্টির বনানী চেয়ারম্যানের কার্যালয় ‘রজনীগন্ধা’য় তালা দেয়া হলো? পুলিশ ছাড়া গতকাল কাউকেই ভিতরে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি। এর আগে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী একাধিক হেভিওয়েট প্রার্থী পদত্যাগ করেন। গতকাল চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে এসে পদত্যাগেরঘোষণা দেন ঢাকা-১৩ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী ও প্রেসিডিয়াম সদস্য শফিকুল ইসলাম সেন্টু। তিনি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর। এর আগে জাপা চেয়ারম্যানের কাছে চিঠি দিয়ে পদত্যাগ করেন গাইবান্ধা-২ আসনের সাবেক এমপি এখন একাদশ নির্বাচনের প্রার্থী ও পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুর রশিদ সরকার। পদত্যাগ করার পর তিনি বিএনপিতে যোগ দেন। নিলফামারী-৪ আসনের বর্তমান এমপি শওকত চৌধুরী বলেছেন, ৬০ লাখ টাকা দিয়েছি; কিন্তু কিছুই পাইনি। গাজীপুরের এক মনোনয়ন প্রত্যাশী বলেছেন, ২২ হাজার টাকা দিয়ে মনোনয়ন কিনে এক প্যাকেট বিরিয়ানি পেয়েছি। আরো কয়েকজন বিক্ষুব্ধ নেতা বলেন, এরশাদের বনানী অফিসে সিন্ডিকেট গড়ে উঠেছে। এই সিÐিকেট নতুন নতুন মুরগি ধরে এনে দলের পদপদাবি দেয়, মনোনয়ন দেয়ার লোভ দেখিয়ে টাকা কামায়। এই টাকার ভাগ সবাই পাওয়ায় সিÐিকেটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া যায় না।
’৯১ ও ’৯৬ সালের এমপি আব্দুর রশীদ জানান গাইবান্ধা-২ আসনে মনোনয়ন না পেয়ে তিনি পদত্যাগ করেন। আব্দুর রশীদের অভিযোগ কেবল ‘টাকার অঙ্ক কমে যাওয়ায়’ জাপা তাকে ২০০১ সালে মনোনয়ন দেয়নি। একই কারণে ২০০৮ সালের নির্বাচনেও মনোনয়ন পাননি। অথচ ড. টিআইএম ফজলে রাব্বী চৌধুরী ও এ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী চৌধুরী চলে যাওয়ার পর তিনিই জেলা জাতীয় পার্টির নেতৃত্ব দেন।
মহাজোট থেকে জাতীয় পার্টিকে মূলত আসন দেয়া হয়েছে ২২টি। পরে জানানো হয় জাপাকে ৪৫টি আসন দিতে চেয়েছে আওয়ামী লীগ। এরশাদের বনানী অফিস থেকে ১১১ জন প্রার্থীকে মনোনয়ন পত্র দাখিল করতে বলা হয়। বাস্তবে সারাদেশে দুই শতাধিক প্রার্থী লাঙ্গল মার্কায় ভোট করতে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। জাতীয় পার্টির অবস্থান কি এবং কতগুলো আসনে প্রার্থী দেবেন সে সম্পর্কে দলের নেতারা অন্ধকারে। জাপার মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার জোর দিয়ে বলেছেন, ‘জাপা অবশ্যই মহাজোটে থেকেই নির্বাচন করবে’। তার ‘মহাজোটে থাকবে অবশ্যই’ জোর দেয়া নিয়ে রহস্যঘুনিভূত হচ্ছে। কেউ কেউ বলছেন শেষ পর্যন্ত জাতীয় পার্টি মহাজোট থেকে বের হয়ে ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে আসন সমঝোতা করতে পারে। কারণ ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে যে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া গঠিত হয়েছিল তার অন্যতম সদস্য ছিলেন জিএম কাদের।
সুত্র জানায়, বিগত ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনে আসন ভাগাভাগিতে রওশন এরশাদ ভুমিকা রাখলেও এবার মহাজোটের মধ্যে আসন ভাগাভাগির আলোচনায় সক্রিয় ছিলেন এরশাদ। এর মধ্যেই হঠাৎ করে দু সপ্তাহ আগে আবারো সিএমএইচে ভর্তি হন। সিএমএইচ থেকে ফিরে এরশাদ কোথায় আছেন তা নিযে কয়েকদিন ধূ¤্রজাল থাকলেও শেষ পর্যন্ত জানানো হয় হাঁটুব্যাথাসহ নানা শারীরিক জটিলতার কারণে তাকে সিএমএইচে নেয়া হয়। মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, এরশাদকে সিংগাপুরে নেয়ার দরকার নেই; বিদেশে নেয়া হচ্ছে না। তাহলে এরশাদের অসুস্থতা কি রাজনৈতিক? জাপার নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এরশাদের অসুস্থতার সুযোগে মহাজোটের সঙ্গে আসন সমঝোতা করছেন মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার। কিন্তু দলের নেতারা হাওলাদার ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মনোনয়ন বাণিজ্য এবং নিজেদের দুই আসন রক্ষা করে অন্য আসন ছাড় দেয়ার অভিযোগ তুলেছেন। বরিশালে প্রতিদিন হাওলাদার ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে ঝাটা মিছিল হচ্ছে। আবার যে রংপুরকে এরশাদের ঘাটি বলা হয় সেখানেও ধ্বস নেমেছে। রংপুরের কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বৃহত্তর রংপুরের মানুষ এরশাদের উপর ক্ষুব্ধ। তারা বলেন, ’৯১ এ ফাঁসি থেকে বাঁচাতে এরশাদকে ভোট দিয়ে রংপুর বাসী ফেঁসে গেছে। রংপুরে এরশাদ বিপুল ভোট পাওয়ায় স্ত্রী, দুই ভাই, বোন, দুই ভাজিতা, ভগ্নিপতি, ভাগিনাকে এমপি করেন। অথচ রংপুরের উন্নয়নে কোনো কোনো কাজ করেননি। রংপুর-৩ আসনে এরশাদ নিজে ও ভাই জিএম কাদের ও স্ত্রী রওশনকে এমপি করেছেন। ২০০৮ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ৫ বছর এমপি থাকার সময় রওশন এরশাদ এলাকায় গেছে ৩বার। জনগণ দূরের কথা কখনোই তিনি দলীয় নেতাদের সঙ্গে মিট করেননি। এবার মহাজোটে এরশাদ যাওয়া নিয়ে মানুষ চরম ক্ষুব্ধ। তাদের বক্তব্য এরশাদ নৌকায় উঠেছেন নিজের স্বার্থে রংপুরের মানুষের স্বার্থে নয়। এরশাদ বিক্রি হয়েছেন আমরা তো বিক্রি হইনি। এবার এরশাদ উচিত জবাব পাবেন।
এরশাদের অসুস্থতা, দুই যুগ ধরে রাজনৈকি ক্যারিকেচায় জাতীয় পার্টির ভবিষ্যত অনিশ্চিত হয়ে পড়ছে। তার অনুপস্থিতিতে গত কয়েকদিনে জাতীয় পার্টিতে মনোনয়ন নিয়ে ক্ষাভ বিক্ষোভ তুঙ্গে উঠেছে। যদিও কয়েকজন সিনিয়র নেতা নিশ্চিত করেছেন সরকারের সঙ্গে আসন নিয়ে আলোচনা চলছে। এ অবস্থায় কার্যত অস্তিত্বের সংকটে পড়তে যাচ্ছে এরশাদের জাপা। পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করে দলটির একাধিক প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেন, অন্যের আলোয় আলোকিত হওয়ায় জাপার রাজনীতি ক্রমশ দুর্বল হচ্ছে। ৫ বছর সরকারে না বিরোধী দলে এই পরিচয় সংকটের কারণে দলটির সমর্থন কমছে। এবারের নির্বাচনে এটা স্পষ্ট হবে। অবশ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের আস্তস্থ্য করে বলেছেন, এরশাদের অসুস্থতা নিয়ে এমন কথা না বলাই ভাল। এরশাদ সাহেবের অসুস্থতা গতবারের মত (২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারী নির্বাচনের এক মাস আগে ১২ নভেম্বর সিএমএইচ-এ নেয়া হয়) নয়। অবস্থা সঙ্কটের দিকে ছিল, এখন স্থিতিশীল আছে। ##



 

Show all comments
  • হতদরিদ্র দীনমজুর ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:৫১ এএম says : 0
    ਀আবার ১৪সালের নাটক਀ ১৫৩আসন਀কম না বেশি਀না কি রাহুর দসা਀সাবধান਀পটুয়াখালী যুগান্তর পুড়িয়েছ਀স্বত্যপ্রকাশের জন্য਀সদাস্বত্য প্রকাশে਀
    Total Reply(0) Reply
  • Anwar Hossain ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১:২৩ এএম says : 0
    কিছু দিন আগে বলেছে জাতীয় পাটি একমাত্র দল বাংলাদেশে বি এন পি কোন দলই না, আর এখন দেখি সে নিজেই হাওয়া হয়ে গেছে তার দলের নেতারা এদিক সেই দিক যোগদান করতেছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Tariqul Islam ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১:২৩ এএম says : 0
    Bengal mirzafar and this is a big devil
    Total Reply(0) Reply
  • Hafizur Rahman ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১:২৪ এএম says : 0
    এরশাদ ও রওশন এরশাদের করুণ পরিণতি দেখার অপেক্ষায় বাংলার জনগণ।
    Total Reply(0) Reply
  • Titu Safwan ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১:২৪ এএম says : 0
    উপযুক্ত পরিশ্রমের ন্যায্য পারিশ্রমিক মহান আল্লাহতা’আলা দান করেন. তিনিই সর্বশ্রেষ্ঠ বিচারক.
    Total Reply(0) Reply
  • Sharif Ahmed ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১:২৪ এএম says : 0
    বাটপারদের অবস্হা এমনি হয়
    Total Reply(0) Reply
  • Guljar Ahmed ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১:২৫ এএম says : 0
    এরশাদ মানেই বিনোদন
    Total Reply(0) Reply
  • Md Samim Niloy ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১:২৫ এএম says : 0
    ২০০০ হাজার টাকা দিয়ে নমিনেশন নিয়েছি টাকা ফিরত দাও
    Total Reply(0) Reply
  • M Hasan Mustafa ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১:২৬ এএম says : 0
    বিশ্বের সকল রাষ্ট্রপতিদের কলঙ্ক
    Total Reply(0) Reply
  • Qudrutul mowla ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১০:৪৪ এএম says : 0
    একবার যার সাথে হয়েছিল শত্রুতা, পুনরায় তার সাথে না করিও মিত্রতা,যদিও থলে আর বলে সোয়াহাত বাম্ভু রাখে বোগলের তলে। বলছিলাম আওয়ামীলীগ Vs এরশাদের কথা।
    Total Reply(0) Reply
  • কামরুল হাসান ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ৯:৫৩ এএম says : 0
    এরশাদ আর তার দল হলো বাংলার জীবন্ত মীরজাফর!!! প্রতিনিয়ত তারা নিজেদের সার্থে জনগনের সাথে প্রতারণনা করছে।।। ক্ষমতা লোভে তারা অন্ধ হয়ে গেছে
    Total Reply(0) Reply
  • Qudrutul mowla ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ১০:৪৯ এএম says : 0
    যদি পৃথিবীতে কোন মিথ্যাবাদীর ও অত্যাচারীর competition হয়? নিঃসন্দেহে বাংগালী প্রথম স্থান লাভ করবে।
    Total Reply(0) Reply
  • আমিন ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ৭:৪৩ এএম says : 0
    হায়রে বেচারা এরশাদ। জেলের ভয়ে কতো নাটকই না করলো। এখন রাজনীতিতে চরিত্র বলতে কিছুই রইলো না। যে যার মতো বলে যাচ্ছে,করে যাচ্ছে। সাধারন মানুষ বড়ই অসহায় রাজনীতিবিদদের কাছে।
    Total Reply(0) Reply
  • ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ৩:১৮ পিএম says : 0
    জাপা বড় ভুল করেছে তিনশ আসনে নমিনেশন না দিয়ে. লৗগ বেঈমানৗ করবে সেটি আমরা আগেই জানি.
    Total Reply(0) Reply
  • ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ৩:১০ পিএম says : 0
    জাপার ঊচিত ছিল তার নিজস্ব জোট নিয়ে তিনশ আসনে নমিনেশন দেওয়া তাহলে লৗগের কাছে যাওয়ার কোন দরকার হতো না
    Total Reply(0) Reply
  • Zakaria ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ৩:৪৩ পিএম says : 0
    এরশাদ চাচা এখনো সময় আছে। জনগনের সাথে পতারণা না করে। জনগণের স্বার্থে ঐক্য ফ্রন্টের সাথে যোগাযোগ করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • মো জাহা্ঙ্গীর আলম ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ৩:৪৪ পিএম says : 0
    জাতীয় পার্টি ধ্বংসের জন্য রওশন এরশাদ এবং এরশাদ ই দায়ী। তারা আওয়মীলীগের মতো ভয়ংকর শাপের অভিশাপে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে।
    Total Reply(0) Reply
  • এরশাদুল ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ৩:৪৫ পিএম says : 0
    একবার বউটানে একবার টানে হাওলাদার কখনো জেলের ভয়ে চলে যায় হাছিনার টানে কেউ যদি হেচকা টানে ঐক্যফ্রন্টে নিয়ে যেতে পারে তবেই মামু হিট
    Total Reply(0) Reply
  • Md zahngir alam ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ৩:৪৯ পিএম says : 0
    জাতীয় পার্টির করুন পরিনিতির জন্য এরশাদ এবং রওশন এরশাদই দায়ি। আওয়ামীলীগের মতো ভয়ংকর সাপের ধ্বংশনে বরবাদ হয়ে গেছে। জাতীয় পার্টি এখন সাইনবোর্ড ভিত্তিকদলে পরিনত হয়েছে।
    Total Reply(0) Reply
  • ১ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:১১ এএম says : 0
    কোন সমস্য হবে না জাপা ভাল ফলাফল করবে নিশ্চিত. জাপার জনপ্রিয়তা যে কোন দলের থেকে বেশ ভাল অবসহায় আছে. তবে চিনতা আসনে নমিনেশন দেওয়া ঊচিত ছিল.
    Total Reply(0) Reply
  • ১ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:১৮ এএম says : 0
    নিবাচনের পরে বিলুপ্ত হবে BNP not jatiyo party. Jatiyo party is a popular party in Bangladesh.
    Total Reply(0) Reply
  • ১ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:২৪ এএম says : 0
    জাপার ঊচিত ছিল সব কয়টি আসনে নমিনেশন দেওয়া. লৗগের ঊপরে নিভরশৗল সবচেয়ে বড় ভুল জাপার. জাপাকে বাঁচাতে হলে জি এম কাদের কে দলৗয় চেয়ারমান করে শামৗম হায়দার পাটুয়ারিকে মহাসচিব করা
    Total Reply(0) Reply
  • ১ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:১৫ এএম says : 0
    ইনশাআল্লাহ জাপা আগামৗতে আরো শঔিশালৗ হবে। দলৗয় চেয়ারমান হবেন জি এম কাদের.
    Total Reply(0) Reply
  • ১ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:২৮ এএম says : 0
    No problem at all jatiyo party is a most popular party in Bangladesh and that party must be get eighty seats coming general election
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ