Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

বাংলার আকাশে উড়বে মার্কিন যুদ্ধবিমান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ নভেম্বর, ২০১৮, ৯:০৭ পিএম | আপডেট : ১২:১১ এএম, ১ ডিসেম্বর, ২০১৮

আকাশপথে দূরত্বটা কমবেশি ১৫ থেকে ১৮ মিনিটের। চীন সীমান্ত থেকে ঠিক এই দূরত্বেই যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করছে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রে বিমানবাহিনী। পশ্চিমবঙ্গের আকাশে টানা ১২ দিন ধরে ভারতীয় ও মার্কিন বিমানবাহিনীর দাপট নিঃসন্দেহে চিন্তা বাড়াতে চলেছে চিনের। পানাগড় এবং কলাইকুন্ডা বিমানঘাঁটির দিকে তাই এখন তীক্ষ্ণ নজর বেইজিংয়ের।
৩ ডিসেম্বর শুরু হচ্ছে ভারত এবং মার্কিন বিমানবাহিনীর যৌথ মহড়া ‘কোপ ইন্ডিয়া ২০১৯’। চলবে ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত। মহড়ার জন্য যে দু’টি বিমানঘাঁটিকে বেছে নেওয়া হয়েছে, তাতে এই মহড়ার তাৎপর্যই বদলে গিয়েছে বলে প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।
পশ্চিম মেদিনীপুরের কলাইকুন্ডা এবং পশ্চিম বর্ধমানের পানাগড়— এই দুই বিমানবাহিনী ঘাঁটিতে নামছে মার্কিন এয়ার ফোর্স। দুই বিমানবাহিনীর মধ্যে সহযোগিতা ও সংযোগ বৃদ্ধি, পরস্পরের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ সামরিক কৌশল শেখা এবং বাহিনীর সক্ষমতা বাড়ানোর লক্ষ্যেই এই মহড়া। অর্থাৎ, পুরোদস্তুর যুদ্ধের মহড়াই চলবে পশ্চিমবঙ্গের আকাশে।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চিন এবং ভারতের মধ্যে সীমান্ত নিয়ে যে রকম টানাপড়েন চলছে, তার প্রেক্ষিতে পশ্চিমবঙ্গের মতো এলাকায় ভারত-মার্কিন যৌথ মহড়া অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ ভারত-চিন সামরিক টানাপড়েনের প্রশ্নে পশ্চিমবঙ্গের অবস্থান ভূকৌশলগত ভাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।
মহড়ায় অংশ নেওয়ার জন্য জাপানের কাদেনা বিমানঘাঁটি থেকে ১৫টি মার্কিন যুদ্ধবিমান আসছে পশ্চিমবঙ্গে। আর আসছে মার্কিন বিমানবাহিনীর ইলিনয় এয়ার ন্যাশনাল গার্ডের ১৮২ডি এয়ারলিফ্ট উইং।
কলাইকুন্ডা বিমানঘাঁটিতে ভারতীয় বিমানবাহিনীর পাইলটদের অ্যাডভান্স ট্রেনিং হয়। অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল সৌমিত্র রায়ের কথায়, ‘বিমানবাহিনীর পাইলটরা সর্বোচ্চ পর্যায়ের সামরিক কৌশল কলাইকুন্ডা বিমানঘাঁটিতেই শেখেন। কলাইকুন্ডার প্রশিক্ষণে উতরে যাওয়ার পরেই একজন পাইলট ফাইটার স্কোয়াড্রনে জায়গা পান। তার আগে পান না।’ এমন একটি বিমানঘাঁটি থেকে ভারত-মার্কিন যৌথ মহড়া নিঃসন্দেহে গুরুত্বপূর্ণ। সূত্র: জিনিউজ।

 



 

Show all comments
  • Sumon ৩ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৫:৪৯ এএম says : 1
    Valo
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর