Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৩ পৌষ ১৪২৫, ৯ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

রাসূলের মুহাব্বাত অন্তরে থাকলে মুসলমানদের বিজয় কেউ ঠেকিয়ে রাখতে পারবে না -আলহাজ হাফিয সাব্বির আহমদ

কাতারে আল ইসলাহর পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী মাহফিল সম্পন্ন

কাতার সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৬:১০ পিএম

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে অবস্থিত বৃহৎ ইসলামি মারকাজ সিরাজাম মুনিরা জামে মসজিদ ও অ্যাডুকেশন সেন্টারের পরিচালক আলহাজ হাফিয সাব্বির আহমদ বলেছেন, মুমিন হওয়ার শর্তই হচ্ছে রাসূলকে নিজের প্রাণের চাইতেও ভালবাসা। আর যারা মুমিন হবে তাদের বিজয় অবশ্যম্ভাবী। রাসূলের মুহাব্বাত অন্তরে থাকলে এবং কর্মের মাধ্যমে তা বাস্তবায়ন করলে মুসলমানদের বিজয় কেউ ঠেকিয়ে রাখতে পারবে না।
আল্লাহ তাঁর রাসূলের শান ও মানকে পৃথিবীর সকল ব্যক্তি ও বস্তুর উপর উন্নীত করে রেখেছেন। তাঁকে সকল আলমের জন্য রহমত করে পাঠিয়েছেন এবং তার অনুসরণকে সকলের জন্য ফরজ করে দিয়েছেন। আজ পৃথিবীর সকল দেশেই মুসলমানরা ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছেন। যেখানেই হক্কানী আলেম-উলামা, পীর-মাশায়েখ আছেন সেখানেই নবীর আলোচনা আছে, মিলাদ কিয়াম আছে।

তিনি গত বৃহস্পতিবার কাতারের রাজধানী দোহায় আন্জুমানে আল ইসলাহ আয়োজিত পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথাগুলো বলেন।
তিনি আরো বলেন, আল্লামা ফুলতলী ছাহেব কিবলাহ নবীর আদর্শ বাস্তবায়ন করার জন্য সারা জীবন ব্যয় করেছেন। আজ তার প্রতিষ্ঠিত সংগঠন আন্জুমানে আল ইসলাহ পৃথিবীর স্থানে স্থানে নবীর আদর্শ বাস্তবায়নের জন্য কাজ করছে। সংগঠন গড়ে তুলছে। মসজিদ নির্মাণ করছে। ইউরোপ আমেরিকার বড় বড় শহরে এখন ফুলতলী মসলকের মানুষ মসজিদ, মাদরাসা নির্মাণ দ্বীনের খেদমত আঞ্জাম দিচ্ছেন।
পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক হাফিজ তুতিউর রহমানের সভাপতিত্বে এবং হাফিজ আজিজুর রহমান সাগর ও হাফিজ সিদ্দিকুর রহমানের সঞ্চালনায় বৃহস্পতিবার বাদ এশা দোহা নাজমায় রমনা হোটেলে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন আনজুমানে আল ইসলাহ কাতারের সভাপতি হাফিজ মাওলানা সৈয়দ মারুফ আহমদ।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আল ইসলাহর সহ সভাপতি হাফিজ মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মো. আজিজুর রহমান লাকি, সাবেক সহ সভাপতি হাফিজ আমিনুল ইসলাম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আবু সুফিয়ান, প্রচার সম্পাদক মাওলানা ইব্রাহীম খান, সহ প্রচার সম্পাদক সালমান খান রুয়েল, কেন্দ্রীয় সদস্য এম এ সালাম চৌধুরী, জুনাইদ আহমদ জুনেদ, আব্দুল হান্নান মিয়াজী, এহসানুল মাহমুদ নাজিম, আবু বকর, মহানগর শাখার সহ সাধারণ সম্পাদক জসিম আহমদ, আলকোর শাখার সাধারণ সম্পাদক হাফিজ সাহান আহমদ, সহ সাধারণ সম্পাদক লুতফুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, প্রচার সম্পাদক শিপলু খান, মাছুম খান, সানাইয়া শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হারুনুর রসিদ, আল ইসলাহ নেতা আব্দুল আহাদ সিদ্দিকী, ইফতেখার আহমদ, মোজাহিদুল ইসলাম জাহেদ, রাসেদ আহমদ, ফাহাদ আলী, মাওলানা আব্দুল জলিল, জালালাবাদ এসোসিয়েশন সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম, সহসভাপতি কফিল উদ্দিন, সাংগঠনিক সিরাজুল ইসলাম শাহীন, কুলাউড়া ওয়েলফেয়ার সভাপতি শাহাজান আহমদ, মৌলভীবাজার সমাজ কল্যাণ পরিষদের সভাপতি শেখ ফারুক আহমদ, ফেন্সুগঞ্জ সমাজ কল্যাণ সভাপতি মো. আব্দুল খালিক। উপস্থিত ছিলেন বদরুল আমিন, হাসান আহমদ, সাহেদ আহমদ, সাহেদ খান, রাসেল আহমদ, বিভিন্ন শাখার নেতৃবৃন্দ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর