Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

চট্টগ্রাম বন্দরে ২৪ ঘণ্টায় কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ে রেকর্ড

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৮:১৩ পিএম

চট্টগ্রাম বন্দরের ইতিহাসে একদিনে (২৪ ঘণ্টায়) সর্বোচ্চ কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের ক্ষেত্রে অতীতের সকল রেকর্ড অতিক্রম হলো। সেই সাথে দেশের প্রধান এই সমুদ্র বন্দর চট্টগ্রাম দক্ষতা, গতিশীলতা ও অগ্রযাত্রায় অধিকতর সাফল্যের দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। আন্তর্জাতিক পোর্ট-শিপিং অঙ্গনেও তার শুভ বার্তা পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছে।
চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিব মোঃ ওমর ফারুক আজ (রোববার) দৈনিক ইনকিলাবকে জানান, গত ১ ডিসেম্বর (শনিবার) একদিনে চট্টগ্রাম বন্দরে আমদানি-রফতানিমুখী পণ্যবাহী কন্টেইনার হ্যান্ডলিং করা হয়েছে ১১ হাজার ৪৬ টিইইউএস (২০ ফুট সাইজের একক হিসাবে)। ইতিপূর্বে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের রেকর্ডটি ছিল গত ২২ সেপ্টেম্বর ১০ হাজার ৮৩২ টিইইউএস।
বন্দর সচিব আরও জানান, সম্ভাব্য দ্রুততর সময়ের মধ্যেই কন্টেইনার হ্যান্ডলিং করার ফলে সার্বিকভাবে চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজের গড় অবস্থানকাল (টার্নরাউন্ড টাইম) হ্রাস পেয়েছে। বন্দর ব্যবহারকারীগণ প্রত্যাশিত সেবা গ্রহণে সক্ষম হচ্ছেন। এরফলে দেশে ও বহির্বিশ্বে চট্টগ্রাম বন্দরের ইমেজ আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।
তাছাড়া চট্টগ্রাম বন্দরের ইতিহাসে এক মাসে সর্বোচ্চ কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের ক্ষেত্রে গত নভেম্বরে অতীতের সকল রেকর্ড অতিক্রম হয়েছে। নভেম্বর মাসে বন্দরে ২ লাখ ৬৫ হাজার ১৬৫ টিইইউএস হ্যান্ডলিং করা হয়। ইতিপূর্বে গত জুলাই মাসের সর্বোচ্চ হ্যান্ডলিংয়ের রেকর্ড ছিল ২ লাখ ৫৯ হাজার ২১০ টিইইউএস।
বন্দর কর্তৃপক্ষ ও ব্যবহারকারীরা জানান, নতুন ছয়টি কী গ্যান্ট্রি ক্রেনসহ বিভিন্ন ধরনের ভারী ও মাঝারি যান্ত্রিক সরঞ্জাম সংযোজন, নতুন ইয়ার্ড নির্মাণ, তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার, ২৪ ঘণ্টা (৭দিন) বন্দর কার্যক্রম সচল রাখা এবং সার্বিক সমন্বয় বৃদ্ধির ফলে চট্টগ্রাম বন্দরে আমদানি ও রফতানি কন্টেইনার হ্যান্ডলিং উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। এরজন্য বন্দরের সক্ষমতা বেড়েছে। ব্যবসায়ী, শিল্পোদ্যোক্তাগণ কন্টেইনারে নিত্য ও ভোগ্যপণ্য, শিল্পের কাঁচামাল, যন্ত্রপাতি ও যন্ত্রাংশ আমদানি এবং হরেক পণ্য রফতানিতে আগ্রহী।
দেশে আমদানি-রফতানি চাহিদা বৃদ্ধির সাথে সাথে বন্দরের অবকাঠামো সুযোগ-সুবিধা বিশেষত নতুন টার্মিনাল, জেটি-বার্থ, ইয়ার্ড নির্মাণ, প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি সংযোজন এবং বে-টার্মিনাল নির্মাণের কাজ অনতিবিলম্বে শুরু করার তাগিদ দিয়েছেন বন্দর সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী-শিল্পোদ্যোক্তাগণ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চট্টগ্রাম বন্দর

২৬ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ