Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৩ পৌষ ১৪২৫, ৯ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

আমাকেও গুম করে দিন বাবাকে দেখতে পারব

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:৪১ এএম

কতদিন হলো বাবাকে দেখি না। বাবার আদর পাই না। বাবাকে দেখতে খুব মন চায়। আমার বাবাকে ফিরিয়ে দিন। আমি বাবার সঙ্গে স্কুলে যেতে চাই। বাবার সঙ্গে খেলতে চাই। বাবা ছাড়া আমার কিছু ভালো লাগে না। আমি খুব অসহায়। কাঁদতে কাঁদতে কথাগুলো বলছিলেন ২০১৩ সালে ‘গুম’ হওয়া সাজেদুল ইসলাম সুমনের মেয়ে আফসানা ইসলাম রাইদা।
মাইকে যখন রাইদা তার বাবাকে ফিরে পাওয়ার করুন আকুতি জানাচ্ছিলেন তখন তার দু’চোখ বেয়ে পানি গড়িয়ে পড়ছিল। তার সেই কান্নায় যেন ভিজে যাচ্ছিল সভায় উপস্থিত সকলের হৃদয়। এ সময় কারো কারো গাল বেয়ে নোনা জল পড়তে দেয়া যায়। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘গুম হওয়ার পাঁচ বছর শেষ, আর অপেক্ষা কতদিন’ শীর্ষক এক আলোচনা সভার আয়োজন করে ‘মায়ের ডাক’ নামের একটি সংগঠন। এতে গুম হওয়াদের স্বজনরা বক্তব্য তুলে ধরেন। মনে জমানো কষ্টের কথাগুলো বলেন তারা। কি হবে আর কি পাবেন সব ভূলে দীর্ঘ দিনের জমানো কষ্ট ভাগাভাগি করেছেন অসহায় মানুষগুলো। সে এক অন্যরকম পরিবেশ। উপস্থিত না থেকে এ ধরনের পরিবেশ অনভূব করা বড়ই কঠিন।
উচ্চ স্বরে কাঁদতে কাঁদতে রাইদা বলছিলেন, আমি আমার বাবাকে দেখতে চাই। আমার বাবা কোথায়? আমার বাবা কেমন আছে, আমি কিছু জানি না। আমার বাবাকে ফিরিয়ে দিন। আমাকে আমার পরিবার বলে সাবধানে চলতে। আমি সাবধানে চলে কী করব। আমাকে নিয়ে যাবে, আমাকে নিয়ে যেতে দিন, গুম করে দিন। তাহলে আমি আমার বাবাকে দেখতে পারব। আমি কেমন সন্তান যে, আমার বাবাকে পাঁচ বছর ধরে দেখতে পাই না। রাইদার করুন আর্তনাত এ সময় পুরো পরিবেশটাই শোকাহত হয়ে উঠে। অনেককেই চোখ মুছতে দেখা যায়।
২০১৩ সালে গুম হওয়াদের স্বজনদের নিয়ে এ আলোচনা সভায় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিখোঁজ সুমনের বড় বোন মারুফা ইসলাম ফেরদৌসী। তিনি বলেন, প্রতিবছর আমরা আপনাদের কাছে ছুটে আসি এবং আপনাদের মাধ্যমে দেশবাসী জানতে পারে আমরা আমাদের স্বজনদের হারিয়ে কত কষ্টে জীবনযাপন করছি। দেখতে দেখতে পাঁচটি বছর শেষ হয়ে গেছে। সামনে চলে এলো একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। নির্বাচনে বর্তমান সব রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করছে। আমাদের ‘মায়ের ডাকের’ পক্ষ থেকে সব রাজনৈতিক দলের প্রতি একটি দাবি, তাহলো দলীয় ইশতেহারে গুম হওয়ার বিষয়ে প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দলের স্পষ্ট বক্তব্য থাকতে হবে।
মারুফা ইসলাম ফেরদৌসী আরো বলেন, গত পাঁচ বছরে গুম হওয়া কেউ ফিরে আসেনি। কিন্তু গুম হওয়া পরিবারের অনেকেই কাঁদতে কাঁদতে না ফেরার দেশে চলে গেছেন। মুন্নুর বাবা এই প্রেস ক্লাবে এসে সন্তানের ফিরে আসার দাবি জানিয়েছিলেন, এখন তিনি চিরদিনের জন্য আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন। পারভেজ হোসেনের বাবা ও শ্বশুর না ফেরার দেশে চলে গেছেন। তার মেয়ে হৃদি এখন কাউকে দাদু-নানু ডাকতে পারে না। সাইফুর রহমান সজীবের মা রেনু মারা গেছেন। ঝন্টুর বাবাও মৃত্যুবরণ করেছেন।
গত বছর ‘মায়ের ডাক’ আয়োজিত এমনই এক আলোচনা সভায় যুবদল নেতা পারভেজ হোসেনের চার বছর বয়সী মেয়ে হৃদি কান্নাজড়িত কণ্ঠে বক্তব্য দিয়ে হৃদয়বিদায়ক পরিবেশ সৃষ্টি করেছিল। এবারের আলোচনাতেও কথা বলেছে হৃদি। তবে ‘বাবা’, ‘বাবা’ আর কান্না ছাড়া এবার তার মুখ দিয়ে কোনো কথা বের হয়নি।
গুম হওয়া মারুফের বোন রত্মা বলেন, পাঁচ বছর হয়ে গেলে আমার ভাইকে দেখতে পাই না। সে কোথায় আছে, কেমন আছে, আমরা কিছুই জানি না। আমাদের কোনোকিছু চাওয়ার নেই, শুধু আমার ভাইকে ফেরত চাই।
অপর গুম হওয়া আব্দুল কাদের মিয়া মাসুমের মা আয়শা আলী বলেন, আমি আমার ছেলেকে সব জায়গাই খুঁজে বেড়াই। কিন্তু কোথাও পাই না। আজ কতদিন হয়ে গেল মা ডাক শুনতে পাই না। আমার একটাই সন্তান। পাঁচ বছর ধরে সরকারের কাছে একটাই দাবি জানাচ্ছি, আমার সন্তানকে ফিরিয়ে দিন। প্রধানমন্ত্রীও তো স্বজনহারা। তিনি কি স্বজন হারানোর ব্যথা বুঝেন না? আমি চাই আগামী ভোটের আগেই আমার সন্তানকে আমার কোলে ফিরিয়ে দিন।
নিখোঁজ (গুম হওয়া) এরশাদ আলীর পিতা হাজী মাহবুব আলী কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, আমি কী নিয়ে বাঁচব। আল্লাহ তুমি আমারে কী করলা। এরশাদ আলী তিনটি মেয়ে ও বউ রেখে গেছে। এদেরকে আমি কীভাবে লালন-পালন করব। আমি কি আর কখনও এরশাদ আলীকে ফিরে পাব না? এরশাদ আলী ঢাকার বংশাল থানা এলাকায় বসবাস করতো। ২০১৭ সালের ২৮ ডিসেম্বর থেকে সে নিখোঁজ রয়েছে। তিনি আরও বলেন, এরশাদ আলী বিএনপির কর্মী ছিলেন। এটাই কি তার অপরাধ? আলোচনা সভার আয়োজকদের পক্ষ থেকে গুমের বিষয়ে কিছু বলার জন্য ডাকা হয় মারুফ জামানের মেয়ে সামিয়া জামানকে। বাবাকে খুঁজে না পাওয়া এই তরুণী মাইক হাতে নিয়ে বলেন, আমার কিছু বলার নেই। পাঁচ বছর আগে গুমের শিকার হওয়া সুমনের মা হাজেরা বেগমের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন-নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, বিএনপি নেতা তাবিথ আউয়াল, জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলের ফয়জুল হাকিম লালা, মানবাধিকার বিষয়ক সংগঠন অধিকারের পরিচালক নাসির উদ্দিন এলএম প্রমুখ।



 

Show all comments
  • Habibur Rahman ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৫৭ এএম says : 0
    আল্লাহ তোমার কাছে প্রার্থনা করি এই কান্নার মিছিল যেন দীর্ঘ না হয়।জালিমের জুলুম থেকে তুমি দেশবাসীকে মুক্তি দাও
    Total Reply(0) Reply
  • Amirhossain Faisal ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৫৮ এএম says : 0
    আল্লাহ নিশ্চয়ই তোমার দোয়া কবুল করবেন।যার বাবা নাই সেই বুঝে বাবা কিযে ধন।জালিমেরা চিরদিন ক্ষমতায় থাকেনা।ওদের ধ্বংস নিশ্চিত।
    Total Reply(0) Reply
  • Tanvir Kabir ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৫৮ এএম says : 0
    কেউ গুম হোক,এটা কারোর ই কাম্য না!! আর এটা হওয়া টা উচিৎ ও না। আশা এবং দোয়া করবো যেন সবাই তাদের হারানো মানুষ টিকে ফিরে পাক, আমিন।।
    Total Reply(0) Reply
  • অন্যায়ের প্রতিবাদী ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৫৯ এএম says : 0
    মাজলুমের আর্তনাদ,মাজলুমের চোখের পানি পিস্তলের বুলেটের চেয়েও শক্তশালী। আল্লাহ তায়ালা জালিমকে দুনিয়াতে অতি দ্রুত অপদস্থ করুন এবং আখেরাতেও কঠিন শাস্তি দিন, সে আকুতি বাংলার লাখো কোটি মাজলুমের।
    Total Reply(0) Reply
  • Kamal Khan Hridoy ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৫৯ এএম says : 0
    খালেদা জিয়া রাজ বন্দী,এরশাদ গৃহ বন্দী,দেশের একতৃতীয়াংশ জনগণ আজ বাক বন্দী, এদিকে নির্বাচন কমিশন শুরু করছে আজব আজব ফন্দি!!
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Rayhan Uddin ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:০০ এএম says : 0
    Maa moni tumi opekkha korte thako ebong Allahr kase shahajjo chaite thako sedin ar beshi dure na Allah tumar kannar bichar obosshoy korben.
    Total Reply(0) Reply
  • Abdullahil Kafi ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:০১ এএম says : 0
    এই মাছুম বাচ্চার কান্না আল্লাহর দরবারে কবুল হবে ইনশা'আল্লাহ
    Total Reply(0) Reply
  • Tariqul Islam ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:০১ এএম says : 0
    হায়রে দেশ? হায়রে মুক্তি যুদ্ধের চেতনা? হায়রে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি????
    Total Reply(0) Reply
  • Nasir Uddin Muznu ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:০২ এএম says : 0
    নৌকায় ভোট দিন,এমন আরো অনেক নিউজ দেখতে পাবেন।
    Total Reply(0) Reply
  • MD Dilder Hosain Sandwip ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:০৩ এএম says : 0
    এই মেয়ে টার কাননা দেখে আমার মুখের ভাষা হারিয়ে পেলেছি
    Total Reply(0) Reply
  • ataur rahman ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৪:২৩ এএম says : 0
    আল্লাহ যেন ওদের সয়াহক হয়।আর এমন মৃত যেন কারো না আসে।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Kowaj Ali khan ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৬:১৪ এএম says : 0
    আল্লাহ তা'আলা দয়া করিয়া। এই জালীমদেরকে নমরুদের মতো করে দিন সকল জনতা মিলে জুতা পেটা করিবেন।
    Total Reply(0) Reply
  • Sajib ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:১৬ পিএম says : 0
    ai jalim sarker bashi din thakbena ,akdin tar bicher hobai,
    Total Reply(0) Reply
  • jack ali ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১১:৫৬ এএম says : 0
    We all the Father are with you..Life dose's end...you start your life with organizing all the people of Bangladesh against these savage/barbarian whose hand is bloodied our blood.... Don't worry they will get ultimate punishment in the Deepest Hell InshaAllah. We must reclaim our much sacrificed independence from their bloodied hand by not celebrating in a selected Day.
    Total Reply(0) Reply
  • Md.showkat Hossain ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:৫১ পিএম says : 0
    Actually this type of kidnape / killing nobody can support, but problem is who can solve these incident, Except Allah. So, we pray to Allah kindly helps the nations for recovery from this injustification. ... Every body will get the result according their works/activities.
    Total Reply(0) Reply
  • Nannu chowhan ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:০২ এএম says : 0
    Ami,prosnno amader prodhan montri jokhon jonoshovai nijer mrittu poribar shojonder jonno kannakati chokher pani felen tokhon manush onar proti shohanuvooti prokash kore kintu botsorer por botsor eai je goom howa neta kormi lokder shishu shontanra stri ma bap vai bonra kanna prodhan motrir ki eakto.shonuvooti hoy na? Eto kisu poro eakhon goom hotta bondh hoy na keno?
    Total Reply(0) Reply
  • Samai ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:৩৪ এএম says : 0
    কেউ গুম হোক,এটা কারোর ই কাম্য না!! আর এটা হওয়া টা উচিৎ ও না। আশা এবং দোয়া করবো যেন সবাই তাদের হারানো মানুষ টিকে ফিরে পাক, আমিন।।
    Total Reply(0) Reply
  • Md.Lutfullah Ansary ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:৪৩ এএম says : 0
    আল্লাহ তুমি আমাদের এই মজলুম জনপদ থেকে উদ্ধার কর।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Jakariya Hossen Shanto ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১১:০৩ এএম says : 0
    আল্লাহ তোমার কাছে বিচার রইল।তুমি এই জালিমদের বিচার কর।
    Total Reply(0) Reply
  • sumon ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৫:১৬ পিএম says : 0
    chokhar jol rakta parlam na
    Total Reply(0) Reply
  • ফয়সাল মাহমুদ ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:০৩ এএম says : 0
    যারা এ অসহায় লোকদের প্রিয়জনকে গুম করল তারা যেন দ্রুত সে ব্যক্তিটিকে নিজ বাড়িতে ফিরত দিয়ে যায়। অন্যথায় কুদরতের মালীক মহা ক্ষমতাবান আল্লাহ তায়ালা যেন ঐ জালিমদের প্রিয়জনদেরকে ও গুম করে উপযোক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করেন।
    Total Reply(0) Reply
  • MOHEUDDIN ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৩৯ পিএম says : 0
    আর কত গুম হলে আমরা গুমের বিরুদ্ধে মুখ খুলব ?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ