Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

সাধারণ শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে মাথা ফাটিয়েছে রাবি ছাত্রলীগ

রাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৪:২৫ পিএম

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শহীদ শামসুজ্জোহা হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ও হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্যব্যবস্থা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র তারিক হাসানকে বেধড়ক পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে জোহা হল শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। গতবুধবার রাত সাড়ে ১০টায় জোহা হলের অতিথি কক্ষে এ মারধরের ঘটনা ঘটে। মারধরের শিকার তারিক হাসানকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হলে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্যব্যবস্থা বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ইমামুল ও একই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তারিক হাসানের মধ্যে টাকা ধার দেয়া নিয়ে কথা কাটাকাটি থেকে হাতাহাতির সৃষ্টি হয়। পরে ইমামুল বিষয়টি জোহা হল শাখা ছাত্রলীগকে জানালে জোহা হলের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা ও রাবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি গুফরান গাজীসহ কয়েকজন নেতাকর্মী মিলে তারিককে বেধড়ক মারধর করে। মারধরের এক পর্যায়ে মোবাইল দিয়ে তারিকের মাথায় আঘাত করে গুফরান গাজী। এতে তারিকের মাথা ফেটে যায়। এমন ঘটনা নতুন নয়। গুফরান এর আগে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী তরিকুল ইসলাম পিটানো, চুরির অভিযোগ এনে এক স্থানীয়কে মারধরসহ ডাব পাড়ার অভিযোগে স্থানীয় এক ছোট ছেলেকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে অভিযুক্ত রাবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি গুফরান গাজী বলেন, ‘আমি নিজে মারধর করিনি। তারা নিজেরা নিজেদের মধ্যে মারধর করেছে। এ ঘটনায় তাদের একজনের মাথা ফেটে যায়।’
এ বিষয়ে শহীদ শামসুজ্জোহা হলের প্রাধ্যক্ষ ড. জুলকার নায়েন বলেন, ‘হলে মারধরের ঘটনার কথা শুনেছি। তবে বিষয়টি এখনো পুরোপুরি নিশ্চিত না। বিষয়টি তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ