Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

‘পুরাতন ভৃত্য’কে জাঁকজমক বিদায় সউদী পরিবারের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৫:১৩ পিএম

সউদী আরবের একটি পরিবারের জন্য ৩৫ বছর ধরে কাজ করছিলেন ভারতের মিডো শিরীয়ান। আর তাকেই জাঁকজমক ভাবে বিদায় জানাল সউদীর ওই পরিবার।
সউদীর ওই পরিবারে খেতমজুর হিসেবে কাজ করতেন মিডো। সঙ্গে বাড়িতে অতিথিদের খাবারদাবার পরিবেশনের কাজটিও করতেন তাদের দীর্ঘদিনের বিশ্বস্ত কর্মচারী মিডো। ওই পরিবারেরই একটি গেস্ট হাউস রয়েছে সউদীর হেইল শহরে। সউদী আরবের উত্তর প্রান্তে হেইল আর অল-জউফ শহরের পাহাড়ি এলাকা ঘুরতে গিয়ে এই গেস্ট হাউসেই উঠতেন পর্যটকেরা। আর সেখানে পর্যটকদের দেখভাল করতেন মিডো।
সউদীর ওই অল শেমরি পরিবারের ছোট থেকে বড় প্রায় সকলেই হাজির হয়ে গিয়েছিলেন দীর্ঘ দিনের প্রিয় মিডোকে বিদায় জানাতে। মিডোকে কোলাকুলি করার জন্য রীতিমতো লাইন পড়ে গিয়েছিল। তাকে উপহারের ডালি দিয়ে ভরিয়ে দিয়েছেন ওই পরিবারের প্রায় প্রত্যেকেই। বিদায় জানানোর মুহূর্তেই মোটা অঙ্কের টাকার তার হাতে তুলে দেন পরিবারের কর্তা আওয়াদ অল শেমরি। তার জীবদ্দশায় পেনশন দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন তিনি।
আওয়াদের কথায়, ‘মিডোর সততা, ঔদার্য এবং আনুগত্যে আমরা মুগ্ধ। তিন দশক ধরে আমাদের পরিবারের সঙ্গে ও আছে। এক দিনের জন্যও আমাদের পরিবারের লোকজনকে কোনও অসুবিধা বুঝতে দেয়নি।’
আটের দশকে কাজের খোঁজে সউদী পাড়ি দিয়েছিলেন মিডো শিরীয়ান। আর তার পরে হুট করেই এক দিন ওই পরিবারের নজরে পড়ে যান মিডো। কাজও পেয়ে যান ওই পরিবারেরই দেখভাল করার। তবে কিছু দিন ধরেই শরীরের নানান সমস্যায় ভুগছিলেন শিরীয়ান। আর তাই তাকে এ বার ছুটি দেওয়া দরকার বলেই জানালেন অল শেমরি পরিবারের কর্তা আওয়াদ অল শেমরি। সূত্র: এশিয়া টাইমস।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সউদী আরব

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ