Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৩ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

রাজাকারদের সঙ্গে নির্বাচনে লেভেল প্লেইং ফিল্ড হবে না: খালিদ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৫:৪৪ পিএম

রাজাকার, আলবদরদের সঙ্গে কোন লেভেল প্লেইং ফিল্ড নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

তিনি বলেন, রাজাকার আর মুক্তিযোদ্ধা একই লেভেলের হবেনা। রাজাকার-আলবদররা যতদিন এই দেশে নির্বাচনে অংশ নেবে, ততদিন নির্বাচনে লেভেল প্লেইং ফিল্ড থাকবে না। স্বাধীনতাকামী মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের সন্তানরা কখনোই একজন রাজাকার-আলবদরের সঙ্গে নির্বাচন করতে পারেনা। তাদেরকে নির্বাচনের বাইরে রাখতে পারলেই বাংলাদেশে নির্বাচনে লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরি হবে।

বৃহস্পতিবার দিনাজপুরের বোঁচাগঞ্জ পাক-হানাদার বাহিনী মুক্ত দিবস উপলক্ষে ‘মুক্তিযোদ্ধা-জনতার’ বিশাল এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় এ নেতা বলেন, বাংলাদেশে একজন মুক্তিযোদ্ধা কখনো একজন পরাজিত শক্তির সাথে লড়াই করতে পারে না। ১৯৭১ সালেই আমরা সে বিষয় গুলো মীমাংসা করে ফেলেছি। ৪৭ বছর পরও আমরা তাদের সাথে যুদ্ধে অবতীর্ণ হতে পারি না।

তিনি বলেন, একাত্তরের পরাজিত শক্তিরা যাতে বাংলাদেশের কোনো জনপ্রতিনিধি হতে না পারে। বাংলাদেশের কোনো পর্যায়ের নেতৃত্বে থাকতে না পারে তার জন্য আইন করতে হবে। তিনি আরো বলেন, আগামী ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচন অত্যন্ত আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে কিন্তু এরপরও একটি দল বলছে নির্বাচনে নাকি লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নাই আমিও তাদের সাথে একমত কারণ রাজাকার আর মুক্তিযোদ্ধা একসাথে থাকতে পারে না। খালিদ বলেন, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস এখনো সম্পূর্ণভাবে আমাদের সামনে আসে নাই। নতুন প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের সংগ্রামের কথা তুলে ধরতে হলে মুক্তিযুদ্ধের সংগ্রামের কথাগুলো লিপিবদ্ধ করতে হবে। এ জন্য তিনি শিক্ষক সাংবাদিক গবেষকদের মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধের ও বোচাগঞ্জ মুক্ত দিবসের সঠিক ইতিহাস লিপিবদ্ধ করার আহবান জানান। তাহলে নতুন প্রজন্ম এর সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে।
বোচাগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফখরুল হাসান। বক্তব্য রাখেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মোঃ জাফরুল্লাহ, মুক্তিযোদ্ধা শামসুল আলম, মহিদুল ইসলাম, আফজাল হোসেন লাবু, সেতাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুস সবুর, বোচাগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ফরহাদ হোসেন চৌধুরী ইগলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আফছার আলী, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী অধ্যক্ষ আব্দুর রশিদ। বোচাগঞ্জ মুক্ত দিবস উপলক্ষে সকাল ৯টায় সেতাবগঞ্জ কেন্দ্রীয় স্মৃতি সৌধে ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।
এছাড়া মুক্ত দিবস উপলক্ষে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। বোচাগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, উপজেলা আওয়ামী লীগ, পৌর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্চাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ, সেতাবগঞ্জ প্রেসক্লাব, আব্দুর রৌফ চৌধুরী ফাউন্ডেশন, বিভিন্ন সরকারি- বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সামাজিক প্রতিষ্ঠান স্মৃতি সৌধে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন। ১৯৭১ সালের এ দিনে পাক-হানাদার মুক্ত হয় দিনাজপুরের সীমান্তবেষ্টিত উপজেলা বোঁচাগঞ্জ।



 

Show all comments
  • Monila ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৮:১৮ পিএম says : 0
    আপনার পরিচয় সবার জানা আছে, are you freedom fighters? পালাবেন না দেশে থাকবেন, যা দেশের জন্য করছেন আপনাদের বিচার হবে
    Total Reply(0) Reply
  • Nannu chowhan ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৭:২৪ পিএম says : 0
    Ke rajakar ke muktijodda desher manush valo jane.Apnader mittha golabaji kono kaje ashbena...
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর