Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

ইসলামী কর্মতৎপরতা

| প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০৮ এএম


গণতান্ত্রিক ইসলামি ঐক্যজোট

উত্তরায় দলের চেয়ারম্যানের বাসভবনে গণতান্ত্রিক ইসলামি ঐক্যজোটে কেন্দ্রীয় কমিটির এক জরুরী সভায় দলের চেয়ারম্যান মাওলানা মাসউদুর রহমান বিক্রমপুরী বলেন আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশকে নির্বাচন নয় সংঘাতের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন দেশের প্রধান দুইটি রাজনৈতিক জোটের মধ্যে যেভাবে বাকবিতন্ডা শুরু হয়েছে এতেকরে নির্বাচন কমিশনকে বিতর্কিত করে নির্বাচন অনুুষ্ঠানকে প্রশ্ন বিদ্ধ করে তুলছে। সরকারী দল এবং বিরোধিরা একে অপরের প্রতি নির্বাচন বাঞ্চালের সড়যন্ত্রের অভিযোগ তুুুলছে এবং সকলেই নির্বাচন বাঞ্চালকারীদের প্রতিহত করার হুমকীও দিচ্ছে। উভয় দলের মারমূখি বক্তব্য দেশকে নিশ্চিত সংঘাতের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন দীর্ঘদিন পর দেশে একটি স্বচ্ছ ও গ্রহনযোগ্য নির্বাচন দেখার জন্য দেশবাসী প্রতিক্ষায় রয়েছে। এজন্য নির্বাচন কমিশন এবং নির্বাচনকালিন সরকারকে আরো সহনশীল, সতর্ক ও নিরপেক্ষ হতে হবে এবং নির্বাচন বাঞ্চালের যেকোন সড়যন্ত্র শক্তহাতে প্রতিহত করার আহবান জানান। সভায় অন্নান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কো চেয়ারম্যান খলিফা মোঃ নুদ্দিন, মহাসচিব মাওলানা শাহ মোঃ নেয়ামতুল্লাহ, মাওলানা মাহমূদ, বাহাউদ্দিন সুজন, মাওলানা আব্দুর রহিম, মুফতি এবিএম মাহমুদ প্রমুখ।
ইমাম মুয়াজ্জিন ঐক্য পরিষদ
বাংলাদেশ সকল সরকারি কলেজ মসজিদগুলোতে নিয়োজিত ইমাম ও মুয়াজ্জিনের সরকারি স্কেলে বেতন-ভাতাসমূহ প্রদানের দাবীতে ঢাকা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে সরকারি কলেজ মসজিদসমূহে নিয়োজিত ইমাম মুয়াজ্জিন ঐক্য পরিষদ বাংলাদেশ এর ঢাকা বিভাগীয় কমিটি বৃহস্পতিবার স্মারকলিপি প্রদান করেছে। জেলা প্রশাসকের পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মোঃ শাহিদুজ্জামান স্মারকলিপি গ্রহণ করেন।
সরকারি কলেজ মসজিদসমূহে নিয়োজিত ইমাম মুয়াযযিন ঐক্য পরিষদ বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় আহŸায়ক মাওলানা মোহাম্মদ এহসানা উদ্দিন এর নেতৃত্বে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিভাগীয় কমিটির সভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ নাছিম, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, মাওলানা আবু ইউসুফ, মাওলানা মোহাম্মদ আব্দুল আওয়াল, মাওলানা মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন, মাওলানা মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, মাওলানা মোহাম্মদ আব্দুল আলীম, মাওলানা মোহাম্মদ মাহবুব হাসান, মাওলানা মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, মাওলানা আব্দুল সোবাহান, মাওলানা মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান, ক্বারী মোহাম্মদ আবু তাহের, মাওলানা মোহাম্মদ আবুদল মান্নান প্রমুখ। স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, দেশের সকল সরকারি কলেজ মসজিদে টিচার্স ট্রেনিং কলেজ মসজিদ, সরকারি আলিয়া মাদরাসা মসজিদ ও কারিগরি কলেজ মসজিদে নিয়োজিত ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদিমগণ কর্মরত রয়েছেন। উক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ সরকারি স্কেলে বেতন-ভাতাসমূহ পেয়ে থাকে। কিন্তু যোগ্যতা ও দক্ষতা থাকা সত্তেও সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োজিত ইমাম ও মুয়াজ্জিনগণ সরকারি সুযোগ-সুবিধা থেকে সম্পূর্ণ বঞ্চিত। ফলে ইমাম ও মুয়াজ্জিন পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর ভাবে জীবন যাপন করছেন। ‘মসজিদ ব্যবস্থাপনা নীতিমালা-২০০৭’ প্রণয়ন করা হলেও এর ভিত্তিতে বেতন-ভাতাসমূহ প্রদান করা হচ্ছে না। স্মারকলিপিতে মসজিদ ব্যবস্থাপনা নীতিমালা ২০০৭ পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নের দাবী জানানো হয়।
প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের অন্যতম প্রচারক ও সমর্থক হিসেবে দেশের সকল সরকারি কলেজ মসজিদে, টিচার্স ট্রেনিং করেজ মসজিদ, সরকারি আলিয়া মাদরাসা মসজিদ ও কারিগরি কলেজ মসজিদে নিয়োজিত ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদিমগণের পদ সৃষ্টি করে সরকারি স্কেলে বেতন-ভাতাসহ যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা প্রদানের বিহীত ব্যবস্থা গ্রহণে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপিতে উদাত্ত আহবান জানানো হয়েছে। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর