Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী

বাড়ছে শীতের কামড়!

শফিউল আলম | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:৫১ পিএম

অগ্রহায়ণ মাস শেষের দিকে। পঞ্জিকার হিসাবে হেমন্ত ঋতুর অবসান এখনও বাকি। পৌষ-মাঘ শীতকাল আসার আগেই গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে গেছে রাতের তাপমাত্রা। আগামী ২৪ ঘণ্টায় রাতের তাপমাপক পারদ আরও ২ থেকে ৩ ডিগ্রি সে. হ্রাস পাওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় রাতের তাপমাত্রার পারদ আরও নেমে যেতে পারে। সেই সাথে বাড়ছে শীতের কামড়।
শুধুমাত্র ঢাকা বাদে দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল, বৃহত্তর চট্টগ্রামের পার্বত্যাঞ্চল এবং দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও তাপমাত্রা ধীরে ধীরে কমে এসেছে। সাধারণত ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সে. পর্যন্ত তাপমাত্রাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ হিসেবে ধরা হয়। আর চলতি মওসুমে তা শুরু হয়েছে দেশের উত্তর জনপদ থেকেই।
গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বনি¤œ তাপমাত্রা ছিল তেঁতুলিয়ায় ১০ ডিগ্রি সে.। এছাড়া রাজশাহীতে ১৩.৯ ডিগ্রি, দিনাজপুরে ১৩.১ ডিগ্রি, যশোরে ১৩, বরিশালে ১৪.৮, শ্রীমঙ্গলে ১৪.৫, রাঙ্গামাটিতে ১৪, সীতাকু-ে ১৩.৭, চট্টগ্রামে ১৬.৮, ময়মনসিংহে ১৫.৬, ঢাকায় ১৯.১ ডিগ্রি সে. ছিল রাতের সর্বনি¤œ তাপমাত্রা। দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল টেকনাফে ২৮.৫ ডিগ্রি সে.। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৭.৫ ডিগ্রি সে.।
আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ সূত্র জানায়, সুদূর উত্তরের সাইবেরীয়া থেকে হিমশীতল বায়ুমালার বাংলাদেশ ও আশপাশ অঞ্চলে আগমন প্রবাহ বৃদ্ধি, ঊর্ধ্বাকাশের জেটবায়ুর নিম্নমুখী  স্রোত বেড়ে যাওয়া এবং পশ্চিমা উচ্চচাপ বলয়ের ভারতের বিহার থেকে বাংলাদেশ পর্যন্ত বিস্তার লাভÑ এই তিনটি ফ্যাক্টরের জন্যই অগ্রহায়ণ শেষ না হতেই বিশেষত উত্তরাঞ্চল থেকে শীতের কামড় বেড়ে চলেছে। তবে আগামী সপ্তাহের শেষ দিক থেকে শীতের তীব্রতা কিছুটা হ্রাস পেয়ে পরবর্তীতে আরও বেড়ে যেতে পারে।
এদিকে উত্তুরের হিমেল হাওয়ার সাথে কুয়াশায় এবং শীতের প্রকোপ বৃদ্ধির কারণে বিভিন্ন স্থানে জ্বর-কাশি, সর্দি, হাঁপানি, চর্মরোগ, পেটেরপীড়াসহ শীতজনিত রোগ-ব্যাধির প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের অধিকাংশ স্থানে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়ছে। কুয়াশায় দৃষ্টিসীমা হ্রাস পেয়েছে এবং যানবাহন চলাচলে সতর্কতা বৃদ্ধি পেয়েছে। সেই সঙ্গে বেড়েছে দুর্ঘটনার ঝুঁকি।
হিমেল কনকনে হাওয়ার সাথে শীতের মাত্রা বৃদ্ধির সাথে সাথে ফুটপাত থেকে শুরু করে অভিজাত বিপণি কেন্দ্রগুলোতে গরম কাপড় কেনাকাটায় ক্রেতাদের ভিড় বেড়ে চলেছে।
আগামীকাল (শুক্রবার) সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানা গেছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারী ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি সে. হ্রাস পেতে পারে। দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। পরবর্তী ৪৮ ঘন্টায় রাতের তাপমাত্রা আরও হ্রাস পেতে পারে। তবে এর পরের ৫ দিনের শেষের দিকে রাতের তাপমাত্রা আবারও বৃদ্ধি পেতে পারে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর