Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১১ মাঘ ১৪২৫, ১৭ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

এরশাদের জাপায় নাটক

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

সাবেক প্রেসিডেন্ট এইচ এম এরশাদের জাতীয় পার্টিতে নাটক জমে উঠেছে। নির্বাচন এলেই দলটিতে এমন নাটকের আবির্ভাব ঘটে। ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগেও এমন নাটক হয়েছে। দলের মহাসচিব পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার এক সাপ্তাহের মধ্যেই রুহুল আমিন হাওলাদারকে জাতীয় পার্টির ‘চেয়ারম্যানের বিশেষ সহকারি’ নিয়োগ দেয়া হয়েছে। গতকাল দলের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপিকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বিশেষ সহকারি নিয়োগ করা হলো। তিনি পার্টি চেয়ারম্যানের অনুপস্থিতিতে চেয়ারম্যানের সার্বিক সাংগঠনিক দায়িত্ব পালন করবেন। তাঁর পদমর্যাদা হবে- পার্টি চেয়ারম্যানের পরে দ্বিতীয় স্থানে। এ বিজ্ঞপ্তির পর পদাধিকার বলে সিনিয়র কো চেয়ারম্যান বেগম রওশন এরশাদ ও কো চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের ওপরে উঠলেন রুহুল আমিন হাওলাদার। এর আগে মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগে রুহুল আমিন হাওলাদারকে দলের মহাসচিব পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়। নতুন মহাসচিব নিয়োগ দেয়া হয় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গাকে।
গত বৃহস্পতিবার এরশাদ মোবাইলে দলীয় নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমাকে চিকিৎসা নিতে দেয়া হচ্ছে না, চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যেতে দেয়া হচ্ছে না’। এরশাদের এ বক্তব্য মিথ্যা অবিহিত করেন নতুন মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা। শুক্রবার বনানীর চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙা বলেন, স্যারের (এরশাদ) চিকিৎসায় বাধা-এর কোনো কথাই কিন্তু সত্যি নয়। উনি সত্য কথা বলেননি। আমি ওনার পাশেই ছিলাম। সঙ্গেই ছিলাম, চিকিৎসা চলছে। নির্বাচন চলে আসছে। আমি বলেছি নির্বাচনের দু-একটা দিন থেকে আপনি বিদেশ চলে যান। স্যার চিকিৎসা নিয়ে যে অভিযোগ করেছেন তা সত্য নয়। এ বক্তব্য দেয়ার একদিন পর রুহুল আমিন হাওলাদারকে আবার মহাসচিবের চেয়ে অধিক ক্ষমতা দেয়া হলো। এখন থেকে এরশাদ যতদিন পর্দার আড়ালে থাকবেন ততদিন রুহুল আমিন হাওলাদার হবেন জাতীয় পার্টির প্রধান হর্তাকর্তা। এরশাদের এ সিদ্ধান্তে দলের বেশির ভাগ নেতাই খুশি। তাদের বক্তব্য হাঙ্গরের মুখে থাকার চেয়ে বোয়ালের মুখে থাকাই ভাল। উল্লেখ্য, জাপার গঠনতন্ত্রে ‘চেয়ারম্যানের বিশেষ সহকারি’ নামে কোনো পদ নেই। তবে এর আগে ১৯৯৮ সালে গঠণতন্ত্রে না থাকার পরও ওই সময়ের মহাসচিব আনোয়ার হোসেন মঞ্জুকে ‘সাইজ’ করতে নাজিউর রহমান মঞ্জুকে ‘অতিরিক্ত মহাসচিব’ করেছিলেন। পরবর্তীতে মিজানুর রহমান চৌধুরীকে চেয়ারম্যান করে মঞ্জু নতুন জাতীয় পার্টি গঠন করেন।
নির্বাচন নিয়ে সামনের দিনগুলোতে কি ঘটে সেটা দেখার জন্য অপেক্ষা করছে দলটির কেন্দ্র থেকে শুরু করে শেকড় পর্যায়ের নেতাকর্মী। কারণ দলের কেউ আনপ্রেডিক্টেবল এরশাদকে বিশ্বাস করেন না। তিনি কখন কি সিদ্ধান্ত নেন কেউ জানেন না। রওশন এরশাদ ও জিএম কাদের তাদের মাথার ওপর রুহুল আমিন হাওলাদারকে মেনে নেবেন বলে মনে করছেন না দলের নেতাকর্মীরা। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জাতীয় পার্টিকে কার্যত দেয়া হয়েছে ৩১ আসন। এর মধ্যে রংপুরে ২টি এবং বগুড়ায় ৪টি। বগুড়ার লাঙ্গলের প্রার্থীরা জামানত ধরে রাখতে পারেন কিনা তা নিয়ে সংশয় দলের নেতাকর্মীদের।



 

Show all comments
  • Istiac Mahmud Milon ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৩৭ এএম says : 0
    মঞ্জুর হত্যা মামলার কারনে উনি সঠিক ডিসিশন নিতে পারছেন না।
    Total Reply(0) Reply
  • Jakir Ali ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৩৭ এএম says : 0
    বুঝলাম না এই দল মানেই কি বিনোদন
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Miah ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৩৮ এএম says : 0
    নাটক আর বিনোদন পার্টি। সকালে এক পর্ব, তো বিকালে আরেক পর্ব। এভাবে বিরতিহীনভাবে চলছে। প্রতি ক্ষনে আমরা দেখছি শুধু সার্কাস আর সার্কাস।
    Total Reply(0) Reply
  • Kazi Jamal ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৩৮ এএম says : 0
    এরশাদ নিজেই একটা নাটক সে কখন কি বলে সে নিজেই বলতে পারেনা
    Total Reply(0) Reply
  • Motawakkel Sharif ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৩৮ এএম says : 0
    সে আর নতুন কী?
    Total Reply(0) Reply
  • Sultanul Islam Babu ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৪১ এএম says : 0
    সত্যি বলতে কি এরশাদ নামক স্বৈ-শাসকের পতনেন পর থেকে,এ দলটির নিয়ন্ত্রণ কখনোই এরশাদের হাতে ছিল না, আজও নেই ! আর উনি মারা যাবার পর এই পার্টিও বিলিন হয়ে যাবে, তাদের অধিকাংশ নেতারা আওয়ামীলীগ-বিএনপিতে চলে যাবে, জি এম কাদের হয়তো রংপুর আর নীলফামারীতে একটা অফিস নিয়ে পড়ে থাকবেন !
    Total Reply(0) Reply
  • Masud Parvez ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৪২ এএম says : 0
    দিলদার এর পর বাংলাদেশে এত্ত বড় বিনোদন দাতা কমেডিয়ান আর একটাও দেখি নাই। এরশাদ কাক্কু খুব ভালো মানুষ অন্তত মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে পারেন!!
    Total Reply(0) Reply
  • Abul Hasan ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৪২ এএম says : 0
    জাতীয়পাটি এদেশের সব চাইতে বেশি খতি করতেছে।এদের রাজনীতি নিষেধ করা দরকার।এরা কিসের জন্য রাজনীতি করে।বিগত ৫ বছর কিসের বিরোধীদল ছিল।কিসের জন্য এরা রাজনীতি করে।এরা আমাদের দেশের জনগণ এর খতি করতে করতেছে
    Total Reply(0) Reply
  • Mehedi Hasan ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৭:৪০ এএম says : 0
    তার মানে এরশাদ আড়ালে,অন্তরালে,গোপনে বা ওপারে যেখানেই থাকুক না কেন জাতীয় পার্টির সব সিদ্ধান্ত হাওলাদারের হাতে।রওশন বা GM কাদের কিছুই না, ব্যাপারটা ভাল
    Total Reply(0) Reply
  • Nannu chowhan ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৮:৪৬ এএম says : 0
    Amar mone hoy eai dolke binodon party nam dia mr.earshader namer poorbe mr. Binodon khetab lagan jete pare....
    Total Reply(0) Reply
  • নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০৬ পিএম says : 0
    এখন বিদেশ চলে যান যাবার আগে পদত্যাগ করে যান
    Total Reply(0) Reply
  • ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:৪২ পিএম says : 0
    Pagol
    Total Reply(0) Reply
  • greenbangla ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:৩৫ পিএম says : 0
    এরশাদ ........................................
    Total Reply(0) Reply
  • আলী বাবা ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১:৫৮ পিএম says : 0
    কাকু মিঠা পানির মানুষ
    Total Reply(0) Reply
  • আলী ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:৪৪ পিএম says : 0
    কাকু ফলটি বাজ
    Total Reply(0) Reply
  • md: mainul hasan ১২ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩:৩০ পিএম says : 0
    tar ar deshe asa dhurkanai
    Total Reply(0) Reply
  • মহসিন ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৪:০২ এএম says : 0
    এরশাদ নিজেই একটা নাটক সে কখন কি বলে সে নিজেই বলতে পারেনা। নাটকের নায়ক বানাছে তার দলোর নেতারা। টাকার লেভে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ