Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ০৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

গৃহশ্রমিক অধিকার নিশ্চিতে আইন হবে : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ৬ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : দেশের গৃহশ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে গৃহশ্রমিক আইন করা হবে বলে জানিয়েছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু। গতকাল (বৃহস্পতিবার) দুপুরে রাজধানীর বিয়াম ফাউন্ডেশনে আয়োজিত বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব লেবার স্টাডিজের (বিলস্) সাধারণ সভা ও সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা নিজেদের দিকে তাকালে দেখতে পারব যে, আমাদের মধ্যে কেউই গৃহশ্রমিকদের নির্দিষ্ট কর্মঘণ্টায় কাজ করাই না। আমাদের ইচ্ছে মতো গৃহশ্রমিকদের দিয়ে কাজ করাই। তারাও তো মানুষ, তারাও তো শ্রমিক। তাই তাদের কর্মঘণ্টা ও অধিকার নিশ্চিত করতে গৃহশ্রমিক আইন করার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। খুব দ্রুত এই আইন করতে পারব বলে আশা করছি।’ এ ছাড়া তারা দেশের ৬০ হাজার ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিয়ে নতুন প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। আগামী বাজেটে এই প্রকল্পে বরাদ্দ হলেই সেটা বাস্তবায়নের কাজ শুরু করা হবে বলেও জানান তিনি।
তিনি বলেন, ‘গার্মেন্টস সেক্টরে ৪০ থেকে ৪৫ লাখ শ্রমিক কাজ করেন। তাদের মধ্যে অধিকসংখ্যকই হচ্ছে মহিলা। এদের মধ্যে আবার অনেকেই তাদের অধিকার সম্পর্কে জানেন না। এ জন্য শ্রমিক সংগঠনগুলোর দায়িত্ব হচ্ছে তাদের অধিকার সম্পর্কে জানিয়ে দেয়া এবং তাদের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধি করা।’ তিনি বিলস্-এর উদ্দেশে বলেন, ‘একজন শ্রমিক তার অধিকার আদায়ে মামলা চালাতে গেলে চাকরি হারানোর ভয়ে সেই মামলা থেকে সরে আসে। এ ক্ষেত্রে এসব শ্রমিকদের পাশে বিলস্-এর থাকা উচিত এবং তাদের সহযোগিতা করা উচিত। শ্রমিকদের জন্যই উৎপাদন বাড়ছে। একই সঙ্গে এসব পণ্য রপ্তানিও বাড়ছে। আমরা কারো দয়ায় এগিয়ে যাচ্ছি না। আমাদের শ্রমিকদের প্রচেষ্টায় দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।’ অনুষ্ঠানের স্বাগত বক্তব্যে বিলস্-এর মহাসচিব ও বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘মাত্র কয়েকদিন আগে আমরা মহান মে দিবস পালন করেছি। যার মাধ্যমে দৈনিক ৮ ঘণ্টা কাজের দাবি আদায় হয়েছিল। কিন্তু দুর্ভাগ্য হলো আমাদের আইনে এই স্বীকৃতি হলেও কোটি কোটি শ্রমিক এই অধিকার  থেকে বঞ্চিত।’
এ সময় আইএলও’র বাংলাদেশ কান্ট্রি অফিসের পরিচালক শ্রীনিবাস রেড্ডি বলেন, ‘টেকসই উন্নয়নে সে সব লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, সেখানে শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। আমরা দেশের প্রবৃদ্ধির সুফল যেন শ্রমিকদের কাছে পৌঁছে দিতে পারি, সে জন্য কাজ করতে হবে। আমি আশা করছি ২০২১ সালে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন হলে শ্রমিকরাও সুফল পেতে পারে।’
বিলসের ভাইস চেয়ারম্যান শিরীন আখতারের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- সলিডারিটি সেন্টারের কান্ট্রি প্রোগ্রাম ডিরেক্টর অ্যালেঞ্জ সুসন, এফইএস’র বাংলাদেশ আবাসিক প্রতিনিধি ফ্রান্সিসকা কন ও শ্রমিক-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের যুগ্ম সমন্বয়কারী আনোয়ার হোসেইন প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ