Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

১ লাখ ৪৬ হাজার হজ কোটা দাবি

১৩ ডিসেম্বর সউদী-বাংলাদেশ হজচুক্তি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০২ এএম

আগামী ১৩ ডিসেম্বর সউদী আরবের জেদ্দায় সউদী-বাংলাদেশ দ্বি-পাক্ষিক হজ (২০১৯) চুক্তি আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পন্ন হতে যাচ্ছে। বর্তমানের ধর্ম মন্ত্রীর পদটি শূণ্য থাকায় ধর্ম সচিব মোঃ আনিছুর রহমানের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল হজ চুক্তির জন্য আগামীকাল বুধবার সন্ধ্যায় বিমানের একটি ফ্লাইট যোগে জেদ্দার উদ্দেশ্যে ঢাকাত্যাগ করবে।

ধর্ম সচিব মোঃ আনিছুর রহমান গতকাল তার দপ্তরে ইনকিলাবকে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। প্রতিনিধি দলের অন্যান্য সদস্যরা হচ্ছেন, বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ মিজানুর রহমান, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের যুগ্ন-সচিব এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী, পরিচালক হজ মোঃ সাইফুল ইসলাম ও হাবের মহাসচিব এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম। এছাড়া হজ চুক্তির প্রতিনিধি দলে সউদী আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ, জেদ্দাস্থ কনসাল জেনারেল ও মক্কাস্থ হজ মিশনের কাউন্সেলর হজ মাকসুদুর রহমান অন্তর্ভূক্ত হবেন।

সচিব বলেন, সউদী কর্তৃপক্ষ এবার হাজীদের যানবাহন ও বাড়ী ভাড়া এবং ট্রেন ভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। এতে গত বছরের চেয়ে চলতি হজ প্যাকেজ জনপ্রতি প্রায় ৪০ হাজার টাকা বেড়ে যাবে। এছাড়া হজযাত্রীদের ইমিগ্রেশন ঢাকায় সম্পন্ন করার জন্য সউদী কর্তৃপক্ষের কাছে প্রস্তাব উত্থাপন করা হবে। হজযাত্রী পরিবহনের থার্ড ক্যারিয়ার চালুর বিষয়টিও হজ চুক্তির বৈঠকে গুরুত্ব পাবে বলেও ধর্ম সচিব উল্লেখ করেন। এদিকে, হাব ওলামা সোসাইটির অর্থ সচিব মাওলানা জাহিদ আলম হজ প্যাকেজে ব্যয় বৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ব্যয় বাড়লে হাজীদের কষ্ট বেড়ে যাবে। তিনি হজযাত্রী পরিবহনের থার্ড ক্যারিয়ার চালু , বিমান ভাড়া সহনীয় পর্যায়ে কমিয়ে আনা এবং মুনাজ্জেমদের ছয় মাসের মাল্টিপোল ভিসা ইস্যু যা একনাগারে সউদী আরবে দুই মাস অবস্থান করার সুযোগ সৃষ্টির জোর দাবী জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হজ

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২০ আগস্ট, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন