Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৭ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

আশুলিয়ায় আবারও শ্রমিক অসন্তোষ, ২০ কারখানা ছুটি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৫:২৫ পিএম | আপডেট : ৫:২৫ পিএম, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮

সদ্য ঘোষিত মজুরি কাঠামো বৈষম্যের অভিযোগে আবারও সাভারের আশুলিয়ায় শ্রমিক অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের অব্যাহত বিক্ষোভের মুখে প্রায় ২০টি কারখানায় একদিনের জন্য সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। শ্রমিক বিক্ষোভে উস্কানির অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঝুট ব্যবসায়ীসহ ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। 

মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত জিরাবো ও কাঠগড়া এলাকার বিভিন্ন কারখানার সামনে বিক্ষোভ করে শ্রমিকরা।
পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার সকাল থেকে জিরাবো ও কাঠগড়া এলাকার বেশ কিছু কারখানায় শ্রমিকরা কর্মবিরতি দিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। এসময় শ্রমিকরা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে বেশ কিছু কারখানায় ভাঙচুর চালায়। পরে পুলিশ এসে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দিলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। পরে ভাঙচুর এড়াতে প্রায় ২০টি কারখানায় এক দিনের জন্য সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেন কর্তৃপক্ষ।
কাঠগড়া এলাকার পিকার্ড বাংলাদেশ লিমিটেড নামে পোশাক কারখানার ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) গাজী শফিকুর রহমান জানান, তাদের কারখানায় শ্রমিকদের সকল সুযোগ সুবিধা প্রদান করা হয়। আর তাই তাদের কারখানার শ্রমিকরা আজও সকালে কাজে যোগ দিয়েছিল। কিন্তু আশপাশের বেশ কয়েকটি কারখানার শ্রমিকরা সকালে তাদের কারখানার সামনে জড়ো হয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে ভাঙচুর চালায়। এসময় কারখানার প্রধান ফটকেও ভাঙচুর চালানো হয়। এতে শ্রমিকরা আতঙ্কিত হয়ে পড়লে কারখানায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়।
কাঠগড়া এলাকার এআর জিন্স প্রডিউসার লিমিটেড কারখানার সহকারী মহাব্যবস্থাপক কবির হোসেন জানান, সরকার নির্ধারিত গেজেটেই শ্রমিকদের নতুন করে বেতন বাড়ানো হয়েছে তার পরেও শ্রমিকরা না বুঝেই আন্দোলন শুরু করেছে। ফলে উৎপাদনে ক্ষতি হচ্ছে আমাদের তাই আমরা চাই শ্রমিকরা যেন কাজে যোগ দান করেন। তাদের দাবিদাওয়া আমরা মেনে নিব।
এদিকে শ্রমিক বিক্ষোভের ঘটনায় উসকানির অভিযোগে এক ঝুট ব্যবসায়ীসহ ৪ জনকে আটকের কথা জানান শিল্প পুলিশে-১ এর পরিদর্শক মাহবুবুর রহমান। তবে আটকদের মধ্যে জামগড়া এলাকার দিব্ব ফ্যাশন নামে একটি তৈরি পোশাক কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুবেল আহমদের পরিচয় জানালেও বাকীদের বিস্তারিত জানাতে পারেননি তিনি।
প্রসঙ্গত, সোমবার দুপুরে একই ঘটনায় বিশমাইল-জিরাবো সড়কে বিক্ষোভ করে ১৬টি কারখানার শ্রমিকরা। এসময় তারা বেশ কিছু কারখানায় ভাঙচুরও করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শ্রমিক অসন্তোষ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ