Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৭ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

ডবলিউ এইচ অডন স্পেন

বিদেশী কবিতা

অনুবাদক : ভবতোষ হালদার | প্রকাশের সময় : ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম


(পূর্বে প্রকাশিতের পর)

দীপ জ্বেলে দিয়ে গেছে কোন বিমানবিক অঞ্চল,
নিঃশেষে ধ্বংস হয়ে গেছে দুর্মর বীজানু অনিঃশেষ জুপিটারঃ
“তবু আমি খুঁজে খুঁজে দেখব আমার সাথীদের জীবন”।
আর নিরগ্নি গৃহের কোন দীন-দরিদ্র বিকেলের প্যাপিরাসে
ঝরাতেছে অন্তহীন অশ্রুজল।“আমাদের দিন আমাদের ক্ষয়
ওগো কৃতবিদ্য
প্রাজ্ঞ, ইতিহাসের বীক্ষণ দাও,
সময় এক শুশ্রুষার নদী’’।
প্রগাঢ় আর্তনাদে কাঁদে নিগৃহীত দেশ, উদর ও নিয়ম সর্বস্ব
এক নিশিথ সন্ত্রাসী পিশাচের মত
ডাকে ঐ যাপিত জীবন,
“তোমরা কি দেখনি স্পঞ্জের নগর সভ্যতা,”
“হাঙর ও ব্যাঘ্রের সেনা সাম্রাজ্য গড়ে উঠেছে”
পত্তন করনা কেন রবিনের তেজদীপ্ত ক্যান্টন?
পারাবতের মত নেমে এসো, নেমে এসো ক্রোধোন্মত্ত
পিতা কিংবা কোমল সংবিৎ ইঞ্জিনিয়রের মত ।
জীবন কভুও যদি সারা দেয়-তার উত্তর নগরের বিপণি
ও স্কোয়ারগুলিও দিয়েছে হৃদয় ও চোখ থেকে দিয়েছে
ফুসফুস থেকে “আহ্ আমি নই মোটেও পলায়নপর;
আজ শুধু নয়, তোমাতেও নই, বসে আছি তোমাদের মাঝে।
হ্যাঁ লোকসমূহ, সহজ প্রতারিত সরাইয়ের সাথী ;
যা-ই মনে কর, হতে পারি দৃঢ় প্রতিজ্ঞ,তোমাদের জন্য
তোমাদের রসের গল্প ভরে আছে হৃদয়-উত্তম,
আমি তোমাদের সার্থবহ স্বর-তোমাদের দোসর আমি।
কি তোমাদের প্রস্তাব? এই নগর নির্মাণ?
রাজি, এ-কি আত্মহত্যার চুক্তি, নাকি আবেগমথিত
মৃত্যু ? উত্তম, আমি রাজি,
আমি তোমাদের রুচি, তোমাদের সিদ্ধান্ত, ইয়েস আমি স্পেন।
দূর দ্বীপবাসি- বহুজন জেনেছে ইহা,
নিদ্রিত সমতল স্থিতগণ, পরিজ্ঞাত ঝঞ্জা সংকূল জেলে দ্বীপজন,
অথবা উৎকর্ণ নগরের ভ্রষ্ট হৃদয়ের নাগরিক।
পরিযায়ী সিন্ধুসারস কিংবা স্ফূরিত কুসুম রেনুর মত শুনেছে সবাই।
দ্রুতগামী যানে চোরকাঁটার মত বিদ্ধ,তমসার রাতে
হেলে পড়েছে দিকভ্রষ্ট ভূমির দিকে-আলপাইন সুরঙ্গে;
সমুদ্রের পানে ভেসে গেছে;
অতিক্রান্ত পথ-সবই পেয়েছি এ জীবনে।
তপ্ত আফ্রিকার থেকে খন্ডিত হিম-শীতল উদ্ভাবনী ইউরোপের সাথে
নিষ্ঠুরতর জোড়াতালি মারা অনুর্বর ঐ চতুষ্কোন মৃত্তিকা;
নদীতে নদীতে বিভাজিত সেই উঁচুভূমি,
বিমূর্ততায় আকীর্ণ চিন্তারাশি; জ্বর-বিকারের ভীতির দশাগুলি
সুস্পষ্ট ও প্রান্ময়। ভীতির জন্য জেগেছে সংবিৎ
যুক্ত করেছি ওষধি, সংক্ষিপ্ত সূচি-পুস্তিকায় শীত-অস্ত্রে
সৈন্যরা আক্রমনের জন্য প্রস্তুত ,
আমাদের মুখাবয়ব, মুখাবয়বের এক পাঠশালা
শেকল-সিন্ধুক, এক বৈনাশ্য
ফায়ারিং স্কোয়াড ও বোমার মত লালসায় উৎক্ষেপনন্মোখ।
হৃদয় এই মাদ্রিদ। স্ফূটোন্মুখ সতেজে ব্রম্মহ মুহূর্ত
যেন এক অ্য্ম্বাুলেন্স যেন এক বালির বস্তা;
গণবাহিনীর ভেতর লীন হয়ে যাচ্ছে সময়ের সখ্যতা।
আগামীকাল, সম্ভবত ভবিষ্যৎ-সামরিক বরকন্দাজের উপর গবেষণা
ও প্যাকারদের ব্যস্ত-ত্রস্ততা; সমস্ত
বিকিরণ সংগীত ক্রমশঃ বিস্ফোরিত হচ্ছে;
আগামিকাল খাদ্য ও নিঃশ্বাসে চৈতন্য প্রসারণের দিন।
আগামিকাল থর থর প্রেমের পুনরাবিষ্কার,
দাঁড়কাকের আলোকচিত্র মহরা; মুক্তির নিবিড় ছায়াতলে
যাবতীয় ভাড়ামি,
আগামিকাল সমরবাদকের বিজয় মিছিলের মহোৎসব;
গম্বুজের নীচে কোরাসের শ্রুতি নন্দন গর্জন,
আগামিকাল কুকুর-কুকুরীর মিলনোৎসবে অর্ঘ্য বিনিময়ের দিন,
হঠাৎ বনের সন্নিকটে সভাপতির
উৎসুক নির্বাচন অথচ আজ তুমুল যুদ্ধ।
আগামিকাল বোমার মত বিস্ফোরণমুখি তরুণ ও কবিগণ,
সম্মেলনের উত্তম সপ্তাহ, লেকের পাড়ে ঘুরে বেড়াবে,
স্নিগ্ধ গোধূলিতে আগামিকাল ডাক-বাংলোয়
বাইসাইকেল রেস অথচ আজ তুমুল যুদ্ধ।
মরণ আছে জেনে গতকাল বেড়ে গেছে মত্ততা,
প্রয়োজনীয় হননের দোষ চৈতন্যে গেঁথে আছে;
প্রশস্ত ক্ষীণজীবি প্যামফ্লেট আর বিরক্তিকর সম্মেলনে
আজ বেড়ে চলেছে শক্তির পরাকাষ্ঠা।
আজ এক নাজুক শান্ত¡না; একটি ভাগের সিগেরেট
খড়গাদার দীপাধারে ধৃত কার্ড ও চূর্ণ ধাতুর কনসার্ট,
এক পুরুষ রগড়; আজ
এক মৃগয়াপূর্ব কল্পিত অন্বেষণ ও বিফল আলিঙ্গন।
নক্ষত্ররা মৃত। পশুরা তাকাবে না,
সহচর দিনের সাথে আমরা একা, একা পরিত্যাক্ত
সময় সংক্ষিপ্ত, এবং পরাজয়ের ইতিবৃত্ত
বলতে পারি-হায়, সাহায্য অক্ষম কিংবা ক্ষমাও জানিনা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কবিতা

১৯ এপ্রিল, ২০১৯
২৯ মার্চ, ২০১৯
১৫ মার্চ, ২০১৯
৮ মার্চ, ২০১৯
২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২৫ জানুয়ারি, ২০১৯
১৮ জানুয়ারি, ২০১৯
১১ জানুয়ারি, ২০১৯
৪ জানুয়ারি, ২০১৯
১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ