Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১১ মাঘ ১৪২৫, ১৭ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

স্থগিতে শেষ হচ্ছে না ইলিয়াস পত্নি লুনার প্রার্থিতা!

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১০:৩৯ পিএম

স্থগিতে শেষ হচ্ছে না সিলেট এক আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত, নিখোঁজ ইলিয়াস পত্নি বিএনপি নেত্রী তাহসিনা রুশদী লুনার প্রার্থীতা ! হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে নিতে সমর্থ হবেন বলে দৃড় আশাবাদী তিনি। ওই একই অভিযোগ নির্বাচন কমিশনে উখাপন করলে, মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছিল ইসির রায়ে।
কিন্তু নির্বাচন কমিশনের দেয়া এ সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একই আসনে মহাজোটের শরিক জাতীয় পার্টির প্রার্থী ইয়াহহিয়া চৌধুরীর করা এক রিট পিটিশনের শুনানি নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে এ আদেশ দেন বিচারপতি জেবিএম হাসানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চ। হাইকোর্টের এই আদেশ জানার এক তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তাহসিনা রুশদীর লুনা বলেন, এটি এক ধরনের হয়রানি। মহাজোটের প্রার্থী ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিনা ভোটে এমপি হয়েছিলেন, এবারও সেই চেষ্টা করছেন। ফের বিনা ভোটে এমপি হতে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত মহাজোট প্রার্থী। লুনা হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করবেন জানিয়ে বলেন, আদালতের মাধ্যমেই মনোনয়ন স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে প্রার্থিতা ফিরে পাব। লুনা আরও বলেন, মহাজোটের প্রার্থী ২০১৪ সালে বিনা ভোটে এমপি হয়েছিলেন, এবারও শুরু থেকেই সেই পাঁয়তারা করছেন। একই অভিযোগ তিনি প্রধান নির্বাচন কমিশনে দিয়েছিলেন; কিন্তু কমিশন যাচাই-বাছাই করে শুনানি শেষে তার প্রার্থিতা বহাল রাখে। তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় স্বায়ত্তশাষিত প্রতিষ্ঠান। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরি বিধিমালায় রয়েছে আগের দিন চাকরি থেকে ইস্তেফা দিয়ে পরের দিন সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া যাবে। তবু তিনি গত ১ জুলাই ডেপুটি রেজিস্ট্রারের পদ থেকে ইস্তেফা দেন। চাকরি ছাড়ার ৬ মাস অতিবাহিত হওয়ার পর তিনি প্রার্থী হয়েছেন। নির্বাচন কমিশনও তার প্রার্থিতা বৈধ করে তাকে প্রতীক বরাদ্দ দিয়েছেন। সুতরাং এ বিষয় নিয়ে আবারও আদালতে যাওয়া আমাকে হয়রানি করা ছাড়া কিছুই নয়। আমি আশা করি এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করলে আদালতের মাধ্যমেই স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার হবে।

 



 

Show all comments
  • Sayem Bhuiyan ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১০:৪০ এএম says : 0
    এটা ইতরামী ছাড়া আর কিছুই না ! মহাজট নাম ধারী আওয়ামিলীগ চায় তারা ছাড়া কেউ ইলেকশন না করতে পারে , আরে ভাই এতো ভয় কেন? তুমি যদি জনগণের জন্য কাজ কর , তাহলে জনগণ তোমাকে এমনিতেই ভোট দিবে ভোটের আগেই হারার চিন্তা কর তাহলে দাড়াইছ কেন?
    Total Reply(0) Reply
  • Shahadat ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৮:৫১ পিএম says : 0
    BAL IS KAPORUSH , THEY WANT TO WIN WITHOUT ANTY CANDIDATE
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ