Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ জানুয়ারি ২০১৯, ০৭ মাঘ ১৪২৫, ১৩ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

সিলেট-২ আসন: আমাকে হয়রানি করছেন মহাজোট প্রার্থী : ইলিয়াস পত্নী লুনা

আবুল কালাম আজাদ, বালাগঞ্জ (সিলেট) থেকে | প্রকাশের সময় : ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৭:০০ পিএম

সিলেট-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী তাহসিনা রুশদীর লুনার মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশনের দেয়া সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।
একই আসনে মহাজোটের শরিক জাতীয় পার্টির প্রার্থী ইয়াহইয়া চৌধুরীর করা এক রিট পিটিশনের শুনানি নিয়ে গত বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর) সকালে এ আদেশ দেন বিচারপতি জে বি এম হাসানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চ।
হাইকোর্টের এই আদেশ জানার এক তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তাহসিনা রুশদীর লুনা বলেন, এটি এক ধরনের হয়রানি। মহাজোটের প্রার্থী ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিনা ভোটে এমপি হয়েছিলেন। এবারও সেই চেষ্টা করছেন। ফের বিনা ভোটে এমপি হতে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত মহাজোট প্রার্থী।
তিনি বলেন, মহাজোটের প্রার্থী ২০১৪ সালে বিনা ভোটে এমপি হয়েছিলেন, এবারও শুরু থেকেই সেই পাঁয়তারা করছেন। একই অভিযোগ তিনি প্রধান নির্বাচন কমিশনে দিয়েছিলেন; কিন্তু কমিশন যাচাই-বাছাই করে শুনানি শেষে আমার প্রার্থিতা বহাল রাখে।
তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় স্বায়ত্তশাষিত প্রতিষ্ঠান। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরি বিধিমালায় রয়েছে আগের দিন চাকরি থেকে ইস্তেফা দিয়ে পরের দিন সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া যাবে। গত ১ জুলাই ডেপুটি রেজিস্ট্রারের পদ থেকে ইস্তফা দেন।
হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে রায় করবেন জানিয়ে লুনা বলেন, আমি আশা করছি আদালতের মাধ্যমেই মনোনয়ন স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে প্রার্থিতা ফিরে পাব।
লুনা জানান, চাকরি ছাড়ার ৬ মাস অতিবাহিত হওয়ার পর তিনি প্রার্থী হয়েছেন। নির্বাচন কমিশনও তার প্রার্থিতা বৈধ করে তাকে প্রতীক বরাদ্দ দিয়েছেন। সুতরাং এ বিষয় নিয়ে আবারও আদালতে যাওয়া তাকে হয়রানি করা ছাড়া কিছুই নয়।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ