Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২১ এপ্রিল ২০১৯, ৮ বৈশাখ ১৪২৬, ১৪ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

নেত্রী ও পিতার মুক্তি চেয়ে প্রচারণা

রাজশাহী ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০৪ এএম

কারাবন্দী পিতা আর দলীয় চেয়ারপার্সনের মুক্তির জন্য দুয়ারে দুয়ারে ভোট চাইছেন অলিভ। রাজশাহীর বাঘায় শাহদৌলা (রা.) এর মাজার জিয়ারত করে দলের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে প্রচারণা শুরু করেছেন অলিভ। 
রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসনে বিএনপি তথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মনোনয়ন পেয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সদ্য সাবেক চারঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাঈদ চাঁদ। তার কাধে কুড়িটির বেশী মামলা। প্রায় সব মামলাতে উচ্চ আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন। মুক্তি পাবার মুহূর্তে গায়েবি মামলায় তার মুক্তি আটকে যাচ্ছে। এলাকার অত্যন্ত জনপ্রিয় নেতা। তার নির্বাচন ঠেকাতে বহুদিন ধরে অপতৎপরতা চলছে। শুধু মামলা দিয়ে নয়। রিটার্নিং অফিসার ঠুনকো অভিযোগে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করে। কমিশনে আপিল করে প্রার্থীতা ফিরে পান। কিন্তু কারাগার থেকে মুক্তি মেলেনি। তাই বাধ্য হয়ে ছেলে রাকিবুল হাসান অলিভ মাঠে নেমেছে। সাথে আছে এলাকার পৌর মেয়রসহ বিএনপির নেতাকর্মীরা। তাদের সাথে নিয়ে ভোটারদের দুয়ারে যাচ্ছেন। বলছেন আপনাদের একটি ভোটে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া আর আমার পিতা মুক্তি পাবেন। অতীতে যেভাবে সব সময় আমার পিতাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেছেন এবারো সেটি করবেন। প্রচারণা চালাতে গিয়ে এলাকার মানুষের সহানুভূতি পাচ্ছেন এই তরুণ। গায়েবী মামলা দিয়ে তাকে আটকে রাখাটা এলাকার মানুষ ভাল চোখে দেখছেনা। এদিকে প্রচার প্রচারণা চালাতে গিয়ে ধানের শীষের কর্মীদের ঝক্কি ঝামেলা কম পোহাতে হচ্ছে না। লাগানো পোস্টার ছিড়ে ফেলা হচ্ছে। প্রতিবাদ করতে গেলে উল্টো পুলিশ গ্রেফতার করছে। প্রচারণার মাইক ব্যাটারী কেড়ে নিয়ে পুকুরে ফেলে দেয়া হচ্ছে। রয়েছে ভয়ভীতি প্রদর্শন আর হুমকি। এসব নিয়ে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসার আর থানায় অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছেনা বলে তারা অভিযোগ করেন। এত বাধা বিপত্তির পরও তারা প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন। বললেন উপরে আল্লাহ আর নিচে জনগণ এটাই আমাদের ভরসা। এলাকার মানুষ নির্বিঘে ভোট দিতে পারলে ধানের শীষের ব্যালট বিপ্লব ঘটবে। কারাবন্দী আবু সাঈদ চাঁদের বিপক্ষে রয়েছেন আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। নির্বাচনের প্রায় ফাঁকা মাঠে সদর্পে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। চাঁদের কর্মী সমর্থকরা বলছেন চাঁদ ভাই বাইরে থাকলে প্রচারণা কাকে বলে তা দেখতেন। তারপরও মনে করছেন তার কারাবন্দী সাপেবর হবে। প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন। তার সাথে আছেন বাঘা উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি নুরুজ্জামান খান মানিক, জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি আনোয়ার হোসেন উজ্জল, উপজেলা বিএনপি নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির আহবায়ক ইউনুস তালুকদার, আজিজুল ইসলাম বারি মুক্তা, পৌর মেয়র জাকিরুল ইসলাম বিকুল প্রমূখ।



 

Show all comments
  • Amdad ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:৫৮ এএম says : 0
    ইনশায়াল্লাহ, আবু সাঈদ চাঁদ বিপুল ভোটে জয়ী হবেন।
    Total Reply(0) Reply
  • Nurul Amin ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:৫৮ এএম says : 0
    মাশায়াল্লাহ। জালেমের বন্দিশালা থেকে পিতাকে মুক্তকরতে ছেলের কি চমৎকার প্রচেষ্টা।
    Total Reply(0) Reply
  • Rubel khan ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:৫৯ এএম says : 0
    Salute you, Go ahead, We are with u
    Total Reply(0) Reply
  • Mohiuddin Ahmed ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২:৫৯ এএম says : 0
    বাবা ও নেত্রী দুজনেই মুক্ত হবে ইনশায়াল্লাহ
    Total Reply(0) Reply
  • Rafiq ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৭:২৮ এএম says : 0
    We are with u
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাতীয় সংসদ নির্বাচন

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ