Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ০৯ মাঘ ১৪২৫, ১৫ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

বাচ্চার আকিকা দেওয়ার সময় অনেকে অনেক উপহার দিয়ে থাকেন এগুলো গ্রহণ করা কি জায়েজ হবে?

সৈয়দ আহমদ
ইসিবি মিরপুর

প্রকাশের সময় : ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:১৯ এএম

উত্তর : আকীকা করা সুন্নত। যার জন্য সম্ভব নয়, তার বেলা মুস্তাহাব। করলে সুন্নত আদায় হবে, না করলে কোনো গুনাহ বা ক্ষতি হবে না। এসময় কোনো অনুষ্ঠান বা উপহার বিনিময় শরীয়তে অনুমোদিত নয়। তবে, যেহেতু পশু জবাই, গোশত খাওয়া, আত্মীয়দের আসা যাওয়ার ব্যাপার আছে। তাই, অকৃত্রিম একটি অনুষ্ঠান এখানে পাওয়া যায়। এটি শরীয়ত বিরোধী নয়। কিন্তু ঘটা করে দাওয়াত দেওয়া, কার্ড করা, উপহার আশা করা, পাল্টা উপহার দেওয়ার বাধ্যবাধকতা তৈরি করা ইত্যাদি অনুমোদিত নয়। সুন্নতের সীমারেখার বাইরে গিয়ে এসব বিদআতের পর্যায়েও চলে যাওয়ার আশংকা থাকে। আর নিষিদ্ধ গান-বাজনা, নারী-পুরুষ পর্দাহীনতা, অপচয় এসব পাওয়া গেলে তো গোটা অনুষ্ঠানটিই গুনাহের কাজ বলে সাব্যস্থ হয়। অতএব, আলেমগণের পরামর্শে নিখুঁত সুন্নত অনুযায়ী আকীকা দেওয়াই কাম্য। শর্তহীন, চাপহীন, বাস্তবেই আন্তরিক কোনো উপহার, হাদিয়া বা গিফট পাওয়া গেলে সেটি নাজায়েজ হবে না। তবে, মনে রাখবেন, উল্লেখিত সকল শর্ত পাওয়া গেলেই উপহার জায়েজ হবে। অন্যথায় নয়।

সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতাওয়া বিশ্বকোষ।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
inqilabqna@gmail.com



 

Show all comments
  • আবদুল বাছিত ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩:৫৬ এএম says : 0
    ফজরের সুন্নত ২ রাকাত না পড়লে নামাজ হবে
    Total Reply(0) Reply
  • md.azizullah aziz ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:৪৮ পিএম says : 0
    thank you
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ