Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৫, ১৮ রজব ১৪৪০ হিজরী।

সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতীক্ষায় দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

বরিশাল বিভাগীয় সদরে নির্বাচনী প্রচারণা এখন পর্যন্ত তুলনামূলকভাবে শান্তিপূর্ণ। দুই জোটের প্রার্থীদের জমজমাট প্রচারণায় মুখর বরিশাল মহানগরী ছাড়াও সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন। তবে এতটা শান্তিপূর্ণ পরিবেশ ভোটের দিন বিগত সিটি নির্বাচনী পর্যায়ে পৌঁছবে কিনা সে বিষয়ে উদ্বেগ রয়েছে সাধারণ ভোটারসহ নির্বাচনী পর্যবেক্ষকদের মধ্যেও। পুনরায় প্রভাবশালী প্রার্থীদের পোলিং এজেন্টদের হাতে নাজেহাল হবেন না এমন প্রতিশ্রæতিও চাচ্ছেন সাধারণ ভোটার। প্রচারণার এ পর্যায়ে সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণসহ শান্তিপূর্ণ পরিবেশ অব্যাহত রাখার বার্তা নিয়ে গতকাল নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম বরিশালে পৌঁছে প্রশাসন, পুলিশ, প্রার্থী ও সাংবাদিকদের সাথেও বৈঠক করেন।
এবারের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিভাগীয় সদর বরিশাল-৫ আসনে মহাজোট প্রার্থী কর্ণেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামিম। অপরদিকে তার প্রধান প্রতিদ্ব›দ্বী ঐক্যফ্রন্টের পক্ষে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব এড. মজিবর রহমান সরওয়ার।
একাদশ সংসদ নির্বাচনে পুনরায় দুই প্রার্থী আবার দু দলের হয়ে বরিশাল বিভাগীয় সদরের ভোটযুুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছেন। তবে এবারের নির্বাচনী পরিবেশ-পরিস্থিতি ২০০৮-এর মত নয়। এবার অভিযোগ পুলিশসহ প্রশাসনেরও বিরুদ্ধে। যদিও বরিশাল মহানগর পুলিশের উচ্চ পর্যায় থেকে নিরপেক্ষ দায়িত্ব পালনের কথা বলা হচ্ছে। তবে বিএনপিসহ ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে ভোটের মাঠে নানা হুমকি-ধামকি ছাড়াও তাদের বেশিরভাগ কর্মীকে পুলিশ হয়রানি করছে বলেও অভিযোগ করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজন কর্মীকে বিনা কারণে আটক করে বিশেষ ক্ষমতা আইনে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলেও অভিযোগ করা হয়েছে। এসব বিষয়ে মহাজোট প্রার্থীর মন্তব্য, পুলিশ তার দায়িত্ব স্বাধীন ও নিরপেক্ষভাবে পালন করছে। এক্ষেত্রে তাদের প্রভাবিত করার কোন সুযোগ নেই।
এদিকে আসন্ন নির্বাচনী প্রচারণায় মহাজোট প্রার্থী উন্নয়নের কথা বলে ভোটের প্রচারণায় রয়েছেন। নৌকা প্রতীকে ভোট দিলে আগামী এক বছরে বরিশালে গ্যাস আসবে বলে প্রার্থী জাহিদ ফারুক শামিম প্রতিশ্রæতি দিচ্ছেন। পাশাপাশি পদ্মা সেতু, বরিশালে রেললাইন ছাড়াও বরিশাল-ঢাকা মহাসড়ক চার লেনে উন্নয়নসহ পায়রা বন্দর চালু করতে নৌকার কোন বিকল্প নেই বলেও তিনি ভোটারদের কাছে বার্তা দিচ্ছেন।
তবে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী সরওয়ার গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারসহ জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে ধানের শীষে ভোট চাচ্ছেন। পাশাপাশি বরিশাল বিভাগ প্রতিষ্ঠা, বিমানবন্দর, রেডিও স্টেশন, টিভি রিলে স্টেশন, বরিশাল-ফরিদপুর মহাসড়ক উন্নয়ন, শিকারপুর, দোয়ারিকা ও দপদপিয়ায় সেতু নির্মাণ ছাড়াও কুয়াকাটায় পর্যটন মোটেল নির্মাণসহ বিভিন্ন উন্নয়নের কৃতিত্ব দাবি করে ভোটারদের সহানুভূতি আদায়ের চেষ্টা করছেন।
আগামী ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে বরিশাল সদর আসনের ৩ লাখ ৯৭ হাজার ৫১৪ জন ভোটার ১৭৪টি কেন্দ্রের ৮৯৫টি বুথে ভোটাধিকার প্রয়োগ করার কথা। এবার বরিশাল-৫ আসনে মহিলা ভোটার ১ লাখ ৯৬ হাজার ৮৮৯৫ জন।
সারা দেশের মত বরিশাল বিভাগীয় সদরের ভোটারগণও একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ ভোটের প্রতিক্ষায় রয়েছেন। ২৪ ডিসেম্বর থেকে সেনাবাহিনী সারা দেশে নির্বাচনী মাঠে নামার প্রতীক্ষায় দক্ষিণাঞ্চলের আমজনতাও। তবে গতকাল এ অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় বিজিবি পৌঁছেছে। এসব বিবেচনায় একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতীক্ষায় সারা দেশের মত দক্ষিণাঞ্চলের সাধারণ মানুষ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মানুষ

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৪ জানুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন