Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

রাশিয়ায় বন্ধ হতে পারে বিবিসি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৪:৩৩ পিএম

ব্রিটেন ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি ওয়ার্ল্ড নিউজ এবং বিবিসি ওয়েবসাইটে রাশিয়া সম্পর্কিত প্রচারিত যাবতীয় সংবাদের ‘নিরপেক্ষতা’ ও ‘বস্তুনিষ্ঠটা’ যাচাই করবে রুশ সংবাদমাধ্যম নিয়ন্ত্রক সংস্থা। এর ফলে সেখানে বন্ধ করে দেয়া হতে পারে সংবাদমাধ্যমটির সম্প্রচার ও অনলাইন পেজ। এক প্রতিবেদনে এই খবর জানিয়েছে বিবিসি।

ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলছেন, ‘বিবিসিতে রাশিয়া বিষয়ক প্রচারিত সংবাদ নিয়ে সম্প্রতি নানা প্রশ্ন উঠেছে। তাই খুব শিগগিরি এগুলো যাচাই করা হবে।’ তবে বিবিসির দাবি, বিবিসি ওয়ার্ল্ড নিউজ রাশিয়ার আইন কানুন মেনেই তাদের সম্পর্কিত সকল সংবাদ প্রচার করেছে।
এর আগে গত বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম নিয়ন্ত্রক সংস্থা অফিস অব কমিউনিকেশনস বা অফকম বলেছিল, ‘ক্রেমলিন সমর্থিত রুশ টেলিভিশন নেটওয়ার্ক আরটি তাদের অন্তত সাতটি অনুষ্ঠানে নিরপেক্ষতা ভঙ্গ করেছে। চলতি বছরের ১৭ মার্চ থেকে শুরু করে ২৬ এপ্রিলের মধ্যে এসব ঘটনা ঘটেছে।’
এ দিকে অফকমের এ বক্তব্যের জবাবে তাদের পাল্টা সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে রুশ কর্তৃপক্ষ। তবে এ ঘটনার সূত্রপাত আরও অনেক আগে। বিশেষ করে ইংল্যান্ডের সালিস বারিতে একজন সাবেক রুশ গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ের ওপর নার্ভ গ্যাস হামলার ঘটনায় টেলিভিশন নেটওয়ার্ক আরটির কভারেজ নিয়েও সমালোচনা করেছে অফকম।
যদিও যুক্তরাজ্য ও তাদের পশ্চিমা মিত্র দেশগুলো দীর্ঘদিন যাবত এ হামলার জন্য রাশিয়াকেই দায়ী করে আসছিল। আর যা নিয়ে যুক্তরাজ্য ও রাশিয়া মধ্যকার সম্পর্কে বেশ তিক্ত পরিস্থিতিও সৃষ্টি হয়। অফকমের দাবী, রুশ গুপ্তচর স্ক্রিপাল বিষয়ক সংবাদ প্রচারের ক্ষেত্রে নিরপেক্ষতা বজায় রাখেনি আরটি। তবে এখন বিবিসির সংবাদকেও পক্ষপাতদুষ্ট বলছে রাশিয়া।
রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া যাখারোভা এক ফেসবুক পোস্টে বলেন, ‘এখন বিবিসির খবর যাচাই করা ছাড়া আমাদের আর কোনো উপায় নেই।’



 

Show all comments
  • আলী আকবর ২২ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৯:৩৭ পিএম says : 0
    BBC উস্কানীমুলক খবর পরিবেশন করে---- অতীতের গীরীঙ্গীপনা স্বভাব এখনও আছে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রাশিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ