Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

যুক্তরাষ্ট্রের বিবৃতিতে হতাশ বাংলাদেশ

কূটনৈতিক সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৭:৩২ পিএম

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পর্যবেক্ষক পাঠানোর বিষয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দেওয়া বিবৃতির বিষয়ে হতাশ বাংলাদেশ।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য, এশিয়ান নেটওয়ার্ক ফর ফ্রি ইলেকশন (এএনএফআরএল) এর পর্যবেক্ষক ভিসা আবেদন বাতিলের সিদ্ধান্ত ওই সংস্থাটির একান্তই নিজস্ব বিষয়। এছাড়া এএনএফআরএল পর্যবেক্ষকদের মধ্যে প্রায় অর্ধেক ভিসা আবেদনকারী ইতোমধ্যেই অনুমোদিত হয়েছে এবং বাকিগুলি প্রক্রিয়াধীন।
সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় এই নির্বাচনে বাংলাদেশের নিবন্ধিত সব রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করছে। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন স্বাধীনভাবে এই নির্বাচন পরিচালনা করছে। নির্বাচন পর্যবেক্ষণে আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের স্বাগত জানায় বাংলাদেশ। বিভিন্ন দেশ ও সংস্থার ১৭৫ জন বিদেশি পর্যপবেক্ষক এই নির্বাচন পর্যবেক্ষণের জন্য আবেদন করেছে।
এসব পর্যবেক্ষক কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী অ্যাক্রেডিটেশনও করেছে। এএনএফআরএলসহ এসব পর্যবেক্ষকদের ভিসা রয়েছে আবেদন প্রক্রিয়ার মধ্যে। এই পরিপ্রেক্ষিতে এএনএফআরএল-এর পর্যবেক্ষক ভিসা আবেদন বাতিলের সিদ্ধান্ত তাদের নিজস্ব বিষয়। এছাড়া এএনএফআরএল পর্যবেক্ষকদের মধ্যে প্রায় অর্ধেক ভিসা আবেদনকারী ইতোমধ্যেই অনুমোদিত হয়েছে এবং বাকিগুলি প্রক্রিয়াধীন।
বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, এএনএফআরএল-এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হিসেবে বাংলাদেশের বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ‘অধিকার’ রয়েছে। এটা সবাই জানে যে, অধিকার একটি পক্ষপাতমূলক ও বাংলাদেশের স্বার্থবিরোধী সংস্থা, বিশেষ করে আওয়ামী লীগ সরকারের বিরুদ্ধে সংস্থাটি কাজ করছে।
গত অক্টোবর-ডিসেম্বর, ২০১৮-তে অধিকারের প্রতিবেদনে দেখা যায়, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের একজন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলকে এই সংস্থার উচ্চ পদে নিয়োগ দিয়েছে। এই হিসেবেই সংস্থাটি নিরপেক্ষ ও বিশ্বাসযোগ্য অবস্থান হারিয়েছে। কেননা গণপ্রতিনিধিত্ব আইন ১৯৭২ সালের ৯১ (সি) (১) ধারা অনুযায়ী কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে জড়িত কোনো ব্যক্তি পর্যবেক্ষক হিসেবে বিবেচিত হতে পারেন না।

বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে বিশ্বের সবার প্রতি শ্রদ্ধা জানায়। গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া অনুযায়ী বাংলাদেশ তার সব বন্ধু ও অংশীদারদের কাছ থেকে গঠনমূলক বিবৃতিকে স্বাগত জানায়।
৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যবেক্ষণে আন্তর্জাতিক ও দেশীয় পর্যবেক্ষকদের সব ধরনের সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত বাংলাদেশ।
গত ২২ ডিসেম্বর এএনএফআরএল-এর পর্যবেক্ষকদের বাংলাদেশ সরকার একটি বিশ্বাসযোগ্য আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষণ মিশন চালানোর মতো যথাযথ সময়ের মধ্যে পরিচয়পত্র ও ভিসা দিতে না পারায় যুক্তরাষ্ট্র হতাশ হয়েছে বলে বিবৃতি দেওয়া হয়। সেই বিবৃতিতে আরো বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র সরকার ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক ইনস্টিটিউটের মাধ্যমে ওই মিশনে অর্থায়ন করেছিল। যথাসময়ে পরিচয়পত্র ও ভিসা না পেয়ে আনফ্রেল তাদের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন পর্যবেক্ষণ মিশন বাতিল করতে বাধ্য হয়েছে। ওই বিবৃতির প্রতিবাদে বাংলাদেশ সরকার থেকে রোববার এ বক্তব্য দেওয়া হলো।



 

Show all comments
  • nizam uddin Bhuiyan ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৮:১০ পিএম says : 1
    সব সাজানু নাটক আওয়ামীলীগের
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Shah Alam Khan ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১১:২৩ পিএম says : 4
    বাংলাদেশ সঠিক জবাব দিয়েছে এতে কোন সন্দেহের অবকাশ নেই। আমেরিকা বাংলাদেশের বর্তমান সরকারকে করায়ত্ত করার উদ্দেশ্যে অনেক আগে থেকেই বিভিন্ন ভাবে আক্রমণ করে আসছে এটাই আমরা দেখে আসছি। কাজেই ওরা এভাবেই আরো একটা আঘাত আনবে সেটাই বাস্তব। এখনও আরো সময় হাতে রয়েছে আমেরিকার, কাজেই বাংলাদেশকে আরো সচেতন থাকতে হবে যেকোন সময় যেকোন দিক থেকেই আঘাত আসতে পারে যদি নির্বাচনকে কোনভাবে প্রশ্নবিদ্ধ করা যায় আর সেই সুযোগে তাদের স্বার্থ আদায় করে নেয়া যায়!!! আল্লাহ্‌ আমাদেরকে আন্তর্জাতিক ষঢ়যন্ত্রের হাত থেকে বাঁচিয়ে রাখেন। আমিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ