Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

রূপগঞ্জে বকেয়া বেতন-ভাতার দাবিতে কারখানা ভাঙচুর মহাসড়ক অবরোধ

প্রকাশের সময় : ৮ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার আউখাব এলাকার হারবেস্ট রিচ (বেনেটেক্স) পোশাক কারখানায় চার মাসের বকেয়া বেতন-ভাতার দাবিতে আবারো শ্রমিক অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। কথা মতো বেতন-ভাতা পরিশোধ না করায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে দফায় দফায় বিক্ষোভ করেছে শ্রমিকরা। উত্তেজিত শ্রমিকরা কারখানার ভেতরে ব্যাপক ভাঙচুর করে। গতকাল শনিবার পৌনে ১১টার দিকে শ্রমিকদের মাঝে এ অসন্তোষ দেখা দিলে তারা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করেন। প্রত্যক্ষদর্শী ও শ্রমিকরা জানান, আউখাব এলাকার হারবেস্ট রিচ (বেনেটেক্স) গার্মেন্টে প্রায় ১১শ’ শ্রমিক কাজ করেন। শ্রমিকরা গত একমাস আগে থেকেই কারখানা কর্তৃপক্ষের কাছে বকেয়া বেতন-ভাতার দাবি জানিয়ে আসছেন। গত এপ্রিল মাসের প্রথম দিকেও গার্মেন্টেসে শ্রমিক অসন্তোষ দেখা দিয়েছিলো। তখন মালিকপক্ষ গত ১০ এপ্রিল শ্রমিকদের বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধ করার আশ্বাস দিয়েছিলো। ওই সময় আংশিক কিছু পরিমাণ বেতন-ভাতা পরিশোধ করেন। একমাস পার হয়ে গেলেও শ্রমিকদের বেতন-ভাতা দেয়ার কোন খবর নেই। তাই শ্রমিকরা বাধ্য হয়ে বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধের দাবিতে শনিবার সকালে বেলা পৌনে ১১টার দিকে আবারো শ্রমিকরা কারখানার ভেতরে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় উত্তেজিত শ্রমিকরা লাঠিসোঁটা ও ইটপাটকেল নিয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে অবস্থান নেন। শ্রমিকদের একটাই কথা বেতন-ভাতা পরিশোধ না করা পর্যন্ত তারা মহাসড়ক থেকে সরে দাঁড়াবেন না। পরে শ্রমিক-পুলিশ ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার এক পর্যায়ে শ্রমিকরা মহাসড়ক ছেড়ে কারখানার ভেতরে অবস্থান করেন। এ সময় উত্তেজিত শ্রমিকরা কারখানার ভেতরে ব্যাপক ভাঙচুর চালায়। এ সময় বিপুলসংখ্যক পুলিশ সদস্য পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এদিকে, প্রায় দেড় ঘণ্টাব্যাপী ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধের ফলে সড়কের উভয় পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীসাধারণ। ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের এএসপি মিজানুর রহমান জানান, মালিকপক্ষের সঙ্গে কথা বলে শ্রমিকদের বেতন-ভাতা পরিশোধ করার ব্যবস্থা করা হবে। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। কারখানা এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ অবস্থানে রয়েছে।
চাঁদা দাবিতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ২ ভাইকে কুপিয়ে জখম
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দাবিকৃত ৫০ হাজার টাকা চাঁদা না পেয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতিবাদ করায় দুই ভাইকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়। এ সময় নগদ টাকা লুটে নেয়ারও অভিযোগ রয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে উপজেলার কাঞ্চন এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। আহত ব্যবসায়ী সাদ্দাম হোসেন জানান, কাঞ্চন বাজারে তাদের রাশিক ফ্যাশন হাউজ নামে একটি কাপড়ের দোকানঘর রয়েছে। ইসলাম নামে এক চাঁদাবাজ বেশ কয়েক দিন ধরে সাদ্দাম হোসেনের কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে আসছিলো। সকালে দাবিকৃত চাঁদার টাকা না দেয়ায় ইসলামসহ ৪ থেকে ৫ জন ধারালো অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করে। এ সময় সাদ্দাম হোসেনকে কুপিয়ে জখম করা হয়। বাঁধা দিতে এগিয়ে এলে তার বড় ভাই মুশফিকুর রহমানকেও কুপিয়ে জখম করা হয়। এ সময় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ক্যাশে থাকা একলাখ টাকাসহ মালপত্র লুটে নেয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে অভিযুক্ত ইসলাম বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, এ ধরনের ঘটনার একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রূপগঞ্জে বকেয়া বেতন-ভাতার দাবিতে কারখানা ভাঙচুর মহাসড়ক অবরোধ
আরও পড়ুন