Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

হেলিকপ্টার যোগে ঢাকায় নেয়া হয়েছে পাবনা-৪ আসনে বিএনপি প্রার্থী হাবিবসহ দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত ১০ জনকে, আটক ৮

পাবনা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৫:২৩ পিএম

পাবনা-৪ আসনের (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া উপজেলা নিয়ে গঠিত) বিএনপির প্রার্থীর গণসংযোগে হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা। হামলায় বিএনপিধানের শীষ প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিবকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরো ১০ জন কমবেশী আহত হয়েছেন বলে বিএনপি দাবী করেছে। বুধবার বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে পাবনা-ঈশ্বরদী মহাসড়কের আলহাজ্ব মোড়ে এই হামলার ঘটনা ঘটে। ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ ও বিজেপি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আহত হাবিবুর রহমান হাবিবকে উন্নত চিকিৎসার জন্যে পাবনা থেকে হেলিকপ্টার যোগে ঢাকায় নেয়া হয়েছে।
ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জহুরুল হক জানান, বুধবার বেলা ১২ টার দিকে ঈশ্বরদীর আলহাজ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনী প্রচারণার সময় প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব ও তার নেতাকর্মীরা জড়ো হন। এ সময় হঠাৎ করে দুর্বৃত্তরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় উপর আকস্মিকভাবে দুর্বৃত্তরা হাবিবুর রহমান হাবিবকে কুপিয়ে জখম করে।’
বিএনপি প্রার্থী হাবিবের কোমড়ের নীচে ও পায়ে জখম করা হয়েছে। এ সময় নেতাকর্মীরা বাঁধা দিতে গেলে তাদের উপরও হামলা চালানো হয় বলে দাবী করেছে বিএনপি। এই ঘটনায় আহসানুল ইসলাম রিপন, বাচ্চু, সরদার আতাউর রহমান, বরকত আলী, রমজান আলী, ভোলা প্রামানিক ও বীর হোসেনসহ অন্তত: দশ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।
প্রার্থী হাবিবের ভাই আব্দুস সাত্তার বাচ্চু জানান, আমরা সম্পূর্ণ নিয়মতান্ত্রিক ভাবে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনসহ সবার অনুমতি সাপেক্ষে এই গণসংযোগ শুরু করতে প্রস্তুুতি নিচ্ছিলাম। অথচ হঠাৎ করে স্বশস্ত্র অবস্থায় ৪০-৫০টি মোটর সাইকেল যোগে এসে দুর্বৃত্তরা হামলা চালায়। এতে আমার ভাই বিএনপি কেন্দ্রীয় নেতা ও ৪ আসনের প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিবসহ ১০জন বিএনপি’র নেতা-কর্মী সমর্থক আহত হয়েছে ।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হাবিব এ ঘটনার জন্য যুবলীগ ও ছাত্রলীগকে দাবী করে করেছেন। গণসংযোগ ও পথসভার জন্য আয়োজিত গণসংযোগে যোগদানকারীদের উপর যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা হামলা চালিয়েছে।
তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করে ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মকলেছুর রহমান মিন্টু জানান, হামলার ঘটনার জন্য বিএনপি’র অভ্যন্তরীণ কোন্দল দায়ী। নিশ্চিত ভরাডুবি জেনে হাবিব মিথ্যাচার বলছেন।
ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, হাবিবের কোমড়ের নীচে ও উরুতে মারাত্মক জখম হয়েছে। প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে তার উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন। হাবিবকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর পাবনায় পাঠানো হযেছে।
পাবনা জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মনির আহমেদ জানান, বুধবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে পাবনা জেনালের হাসপাতাল থেকে হাবিবুর রহমান হাবিবকে উন্নত চিকিৎসার হেলিকপ্টার যোগে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।
এ ব্যাপারে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহমেদ হোসেন ভূইয়া সাংবাদিকদের জানান, ধানের শীষের প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব আমাদের অনুমতি সাপেক্ষে এই গনসংযোগ শুরু করেন। তারপরেও যে ঘটনাটি ঘটেছে সেটি অনাকাংখিত।
পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় ৮জনকে আটক করা হয়েছে। পাবনাসহ ঈশ্বরদীতে আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে বিপুল সংখ্যক, র‌্যাব, পুলিশ ও বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। প্রসঙ্গত : এই আসনের আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ভূমিমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধা শামসুর রহমান শরীফ ডিলু এম.পি নির্বাচনের আগে আ’লীগ নেতা-কর্মীদের বলেছিলেন, কারো সাথে কোন বিরোধ-মারামারি দেখতে চাই না। ’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাতীয় সংসদ নির্বাচন

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ