Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ০৬ মাঘ ১৪২৫, ১২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

ফের সীমান্ত বন্ধের হুমকি ট্রাম্পের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

দেয়াল নির্মাণে অর্থ বরাদ্দ না পেলে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত পুরোপুরি বন্ধের হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুক্রবার ভোরে একাধিক টুইট বার্তায় তিনি বলেছেন, দেয়াল নির্মাণের পরিকল্পনার বিকল্প হবে মেক্সিকো থেকে পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া। এর ফলে মার্কিন গাড়ি কোম্পানিগুলো মেক্সিকোতে থাকা তাদের কারখানা গুটিয়ে নিতে বাধ্য হবে বলেও সতর্ক করেন তিনি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, গত অক্টোবরেও ওই সীমান্ত বন্ধের হুমকি দিয়েছিলেন ট্রাম্প। মার্কিন সীমান্তে আসা অবৈধ অভিবাসীদের ঢল থামাতে লাতিন আমেরিকার সরকারগুলোর ওপর চাপ তৈরিতেই ওই হুমকি দিয়েছিলেন তিনি। গত শনিবার থেকে অচলাবস্থায় পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারের একাংশ। অর্থ বরাদ্দ নিশ্চিত না হওয়ায় বাধ্যতামূলক ছুটি বা বেতন ছাড়াই কাজ করতে বাধ্য হচ্ছেন লাখ লাখ সরকারি কর্মী। যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি অর্থ বরাদ্দের কোনও প্রস্তাব কার্যকর করাতে সংশ্লিষ্ট বিলকে দুই কক্ষের অনুমোদন ছাড়াও পেতে হয় প্রেসিডেন্টের সম্মতি। সর্বশেষ অর্থ বরাদ্দের প্রস্তাবে দেয়াল নির্মাণে ৫০০ কোটি ডলার বরাদ্দে ডেমোক্র্যাট আইনপ্রণেতারা একমত না হওয়ায় তাতে সম্মতি দিতে অস্বীকার করেন ট্রাম্প। হাউস অব রিপ্রেজেন্টিটিভে রিপাবলিকানদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকায় বিল পাশ করাতে ডেমোক্র্যাটদের ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে ট্রাম্পকে। বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, অচলাবস্থার ষষ্ঠ দিনে বৃহস্পতিবার কয়েক মিনিটের জন্য বৈঠকে বসে মার্কিন পার্লামেন্টের দুই কক্ষই। তবে অচলাবস্থা নিরসনে সেখানে কোনও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। আগামী সোমবার হাউস অব রিপ্রেজেন্টিটিভ ও সিনেটের আবারও বৈঠকে বসার কথা রয়েছে। তার আগে শুক্রবার ভোরে টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘যদি প্রগতিবিরোধী ডেমোক্র্যাটরা দেয়াল নির্মাণ শেষ করার অর্থ না দেয় তাহলে আমরা দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্ত পুরোপুরি বন্ধ করে দিতে বাধ্য হবো’। সীমান্ত বন্ধ করে দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সম্পর্ক নাফটা চুক্তি পূর্ববর্তী সময়ের মতো অবস্থায় নিয়ে যাবেন বলেও সতর্ক করেন ট্রাম্প। এই চুক্তির মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও মেক্সিকোর মধ্যে উন্মুক্ত বাণিজ্যের সুযোগ সৃষ্টি হয়। তার সিদ্ধান্তের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের গাড়ি নির্মাণ শিল্পের কারখানা মেক্সিকো থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ফিরিয়ে আনতে বাধ্য হতে পারে বলেও জানান ট্রাম্প। স¤প্রতি নাফটা চুক্তির পরিবর্তে মেক্সিকো ও কানাডার সঙ্গে ইউএসএমসিএ নামে নতুন চুক্তি স্বাক্ষর করেছে যুক্তরাষ্ট্র। নতুন এই মুক্ত বাণিজ্য চুক্তির বিষয়ে শুক্রবার কিছুই বলেননি ট্রাম্প। নতুন এই চুক্তির প্রশংসা করে ট্রাম্প বলে আসছেন এর ফলে মার্কিন অর্থনীতি ব্যাপক লাভবান হবে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, মার্কিন সরকারের তথ্য অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকোর মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ ২০১৭ সালে ছিল ৬১ হাজার ৫৯০ কোটি মার্কিন ডলার। এই বিপুল পরিমাণ দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের দুই দেশের মধ্যকার বিভাজন কিভাবে কার্যকর হবে তা এখনও স্পষ্ট নয়। ট্রাম্পের হুমকিকে পাশ কাটিয়ে মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাডোর সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আমরা অবিবেচক হতে চাই না আর আমরা মনে করি না আমাদের এই সিদ্ধান্তের মধ্য দিয়ে যেতে হবে’। ডেমোক্র্যাট এবং কয়েকজন রিপাবলিকান আইনপ্রণেতা ট্রাম্পের দেয়াল নির্মাণের পরিকল্পনাকে ব্যয়বহুল, অপ্রয়োজনীয় এবং অকার্যকর প্রজেক্ট বলে মনে করেন। বেশিরভাগ রিপাবলিকান আইনপ্রণেতা ট্রাম্পের পরিকল্পনাকেই সমর্থন করছেন। সিএনএন, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ