Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৪ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

পূর্বসূরিদের মতো রোহিঙ্গা বলায় সু চিরও আপত্তি

প্রকাশের সময় : ৯ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : মিয়ানমারের নিপীড়িত সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়কে রোহিঙ্গা বলতে নিষেধ করেছেন দেশটির বর্তমান নেতা অং সান সুচি। মিয়ানমারের ধারাবাহিক স্বৈরাচারী সরকারগুলো রোহিঙ্গাদের বাঙালি বলে দাবি করে তাদেরকে নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত রেখেছে, যদিও ঐতিহাসিকদের মতে কয়েক শতাব্দী ধরে তারা দেশটিতে বাস করছেন। রোহিঙ্গা বলায় আপত্তি জানিয়ে সুচি তাদের পূর্বসুরিদের পথই বেছে নিলেন। মিয়ানমারে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে রোহিঙ্গা শব্দ ব্যবহার না করার অনুরোধ জানানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন সুচির মুখপাত্র ইউ কায়া জে ইয়া। সুচি বর্তমানে পররাষ্ট্র মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন। আমরা রোহিঙ্গা শব্দটি ব্যবহার করি না। কারণ সরকারিভাবে স্বীকৃত ১৩৫টি আদিবাসী গোষ্ঠীর মধ্যে রোহিঙ্গা নেই বলে উল্লেখ করেন মুখপাত্র ইউ কায়া। আমাদের অবস্থান হচ্ছে বিতর্কিত শব্দ ব্যবহার জাতীয় সংহতি প্রক্রিয়াকে সমর্থন করে না এবং এতে সমস্যার সমাধান হবে না। মিয়ানমারে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রোহিঙ্গাদের দুর্দশা নিয়ে এক প্রতিবেদনে রোহিঙ্গা শব্দটি ব্যবহার করায় এপ্রিলের শেষের দিকে প্রায় ৫০০ বৌদ্ধ মৌলবাদী ইয়াঙ্গুনে মার্কিন দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ করেন। ১৯৮২ সালের একটি বিতর্কিত আইন বলে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব সুবিধা থেকে বঞ্চিত করে আসছে মিয়ানমার সরকার। নিউইয়র্ক টাইমস।



 

Show all comments
  • Saki ৯ মে, ২০১৬, ১২:৫৫ পিএম says : 0
    Suchi got Nobel prize for peace
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পূর্বসূরিদের মতো রোহিঙ্গা বলায় সু চিরও আপত্তি
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ