Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৬, ০৭ শাবান ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

গণতন্ত্রের কবর হয়েছে প্রহসনের নির্বাচনে

পুননির্বাচনের দাবিতে বৃহস্পতিবার ইসিতে ঐক্যফ্রন্টের স্মারকলিপি প্রদান : ড.কামাল হোসেন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহবায়ক ড. কামালহোসেন আবারও নির্বাচনের ফলাফল ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানান। সেই সাথে ঐক্যফ্রন্টের সমস্ত প্রার্থীদের নিয়ে আগামী ৩ জানুয়ারি নির্বাচন কমিশনে স্মারকলিপি প্রদানের ঘোষনা দেন। গতকাল মতিঝিলে তার চেম্বারে গতকাল রাতে ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের সাথে বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। ড. কামাল বলেন, সার্বিক অবস্থা বিবেচনা করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট কথিত নির্বাচনের ফলাফল ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করে পুনরায় নির্দলীয় সরকারের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু ও অশগ্রহণমূলক নির্বাচনের দাবি জানিয়েছে। এই নির্বাচন বাতিল করে পুনঃ নির্বাচনের দাবিতে আগামী ৩ জানুয়ারি ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীরাসহ সকল বিরোধী দলের প্রার্থী নির্বাচন কমিশনে স্মারকলিপি প্রদান করবেন এবং সেখান থেকে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।
ড. কামাল হোসেন বলেন, গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নামে যে প্রহসনমূলক নাটক মঞ্চস্থ হলো, তা সমগ্র দেশবাসী প্রত্যক্ষ করেছেন এবং তা হাড়ে হাড়ে উপলব্ধি করেছেন। একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থাকে কী ভাবে ধ্বংস করা হয়েছে, তা এদেশের মানুষসহ সমগ্র বিশ্ববাসীকে দেখিয়ে দিয়েছেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এবং তাদের আজ্ঞাবহ প্রধান নির্বাচন কমিশনার। এই কথিত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় সরকারকে বিজয়ী দেখালেও এতে প্রকারান্তরে হেরেছে বাংলাদেশ ও তার ১৭ কোটি মানুষ। এর মধ্যদিয়ে কবর রচিত হয়েছে আমাদের বহু আকাঙ্ক্ষিত গণতন্ত্রের।
নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্ট যে ৭টি আসন পেয়েছে তার কি শপথ গ্রহণ করবে? সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব ও ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমরাতো নির্বাচনকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করেছি। সেখানে শপথের তো কোন প্রশ্নই আসে না।
বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আ স ম আবদুর রব, আব্দুল আউয়াল মিন্টু, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, এডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, মাহমুদুর রহমান মান্ন, শহীদুল্লাহ কায়সার প্রমুখ। ##



 

Show all comments
  • Mohammed Kowaj Ali khan ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:২৩ এএম says : 1
    ওদেরকে দিয়ে নিরবাচন হইবে না। ওদের পদত্যাগচাই। এবং নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে পুণ নিরবাচন হোক এতেই ভালো হইবে।
    Total Reply(0) Reply
  • নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:৩৮ এএম says : 0
    This was altogether a farce election.
    Total Reply(0) Reply
  • Wahedul Islam ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:৩৯ এএম says : 0
    এই দেশে গণতন্ত্র কখনোই ছিল না। যেখানে জনগনের কাছে কোনও জবাবদিহিতা নেই সেখানে গণতন্ত্র থাকে কি করে? গণতন্ত্র থাকলে তো কবর রচনা হবে ।
    Total Reply(1) Reply
    • Mohammad Sirajullah MD ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ৪:০১ এএম says : 4
      Khamosh Dr. Kamal ! You produces an undemocratic constitution which was never ratified by the People. Did you keep a provision for care taker Government ? Now you are talking. Pl;ease appologize to the People and say that You made a mistake and start a m,ovement to re-write the constitution and gert that passed by ther General Voters and not by the disfunctional Parliament, where MPs can not talk.
  • Soikot Sultan ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:৪১ এএম says : 0
    আমি জালিমকে সুযোগ দিই তাদের পাপকে পাকাপোক্ত করার জন্য। অতঃপর তাদের জন্য রয়েছে কঠিন অপমানকর শাস্তি। (সূরা আল ইমরানঃ১৭৮)..
    Total Reply(0) Reply
  • Khaled Mahfuz ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:৪২ এএম says : 0
    আমি চিত্‍কার করিয়া কাঁদিতে চাহিয়া করিতে পারিনি চিত্‍কার , বুকের ভেতর কষ্ট নিয়ে জালিমশাসক কে দিয়েছি ধিক্কার । আর কত ????
    Total Reply(0) Reply
  • Mohiuddin Khan Mohon ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:৪৩ এএম says : 0
    এ যে দেখছি খুনির কাছে খুনের বিচার চাওয়া! যেতে হবে জনগণের কাছে। তা না উনারা যাচ্ছেন গণতন্ত্রকে জবাইকারী এক কসাইয়ের কাছে!
    Total Reply(0) Reply
  • M Jahirul Haq Raza ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:৪৩ এএম says : 0
    এগুলো করে লাভ নেই বাড়ি গিয়ে নাকে তেল দিয়ে ঘুমাও।
    Total Reply(0) Reply
  • জালাল উদ্দিন রুমি ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:৪৪ এএম says : 0
    ইতিহাস বলে "আজ পর্যন্ত নিয়মতান্ত্রীক আন্দোলন করে কোন সৈরশাসকে ক্ষমতা থেকে নামানো সম্ভব হয় নি"
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Mofazzal Hossain ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:২৫ এএম says : 0
    That was an unbelievable election and crime? How it was possible to make a fun with people!
    Total Reply(0) Reply
  • Shafi ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১০:৫৫ এএম says : 0
    BNP couldnt reap the election this time because no votes came from grassroots workers Jamate Islam. BNP used to take advantage of JI for long time but not this time. Their coalition with Dr. Kamal and kader Siddiqui prove the point that BNP never was or will be party of its own without the support of Jamete Islam. The real force behind BNP for all those time was hidden power of JI.BNP always got their grassroots support by alienating AL as India's puppet. That kind "juju fear"not seen in this election because Imran khan bow down to his arch enemy modi to the point Pakistani cricketer shamelessly tied shoe of Indian cricketer. But that didn't melt modi heart, on top that Imran got kicked and cornered by his allies. Pakistan has used Bangladesh as a bait in the past as they used Afghanistan. In these new era, people has changed and I believe people of Bangladesh have gotten smarter. Alhamduallah.
    Total Reply(0) Reply
  • zahid ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:৩০ পিএম says : 0
    Where is democracy in Bangladesh ?
    Total Reply(0) Reply
  • Jolkonna ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ৮:৫৩ এএম says : 0
    My question is where is republic and democracy???
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাতীয় সংসদ নির্বাচন

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ