Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

চলে গেলেন কালজয়ী অভিনেতা কাদের খান

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৪৪ পিএম | আপডেট : ৮:৩৭ পিএম, ১ জানুয়ারি, ২০১৯

বলিউডের বহু হিট ফিল্মে এত দিন অনিবার্য ভাবে উপস্থিত ছিলেন আফগান বংশোদ্ভূত তারকা কাদের খান। ২০১৯ থেকে সেই জায়গাটা খালি হয়ে গেল। নতুন বছরের প্রথম দিনেই এল তার মৃত্যু সংবাদ। তার জীবনাবসানে শোকের ছায়া নেমে এসেছে বলিউডে।
তার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এক টুইট বার্তায় শোক জ্ঞাপন করে লিখেছেন, ‘কাদের খান তার দুর্দান্ত অভিনয় দক্ষতা দিয়ে পর্দায় উজ্জ্বল ভাবমূর্তি তুলে ধরতেন। তিনি অত্যন্ত বিখ্যাত একজন স্ক্রিপ্টরাইটারও ছিলেন, অনেক স্বরণীয় চলচ্চিত্রর সঙ্গে তিনি যুক্ত। তার মৃত্যুতে আমি শোকস্তব্ধ। তার পরিবারের প্রতি শ্রদ্ধা ও সমবেদনা।’
অমিতাভ বচ্চন টুইট করেছেন, ‘কাদের চলে গেলেন। দুঃখের খবর। আমার প্রার্থনা এবং সমবেদনা থাকবে। অসাধারণ মঞ্চ অভিনেতা, সিনেমারও এক প্রতিভা। আমার বহু সফল ছবিতে উনি ছিলেন।’
পরিচালক মধুর ভান্ডারকর লিখেছেন, ‘লেখক, অভিনেতা, কমেডিয়ান কাদের খানের মৃত্যুর খবর শুনে খুবই খারাপ লাগছে। উনি একইসঙ্গে আমাদের হাসাতেন এবং কাঁদাতেন।’
বরুণ ধওয়নের কথায়, কাদের ছিলেন তার অন্যতম আদর্শ। অনুপম খের মনে করেন, ‘কাদের খান আমাদের দেশের একজন সূক্ষ্ম অভিনেতা। সেটে ওর সঙ্গে কাজ করে অনেক কিছু শিখেছি। খুব ভাল লেখকও ছিলেন। ওকে মিস করব।
কাদের খানের পরিবারের সদস্যরা জানায়, কানাডার একটি হাসপাতালে বার্ধক্যজনিত কারনে ৮১ বছর বয়সে তিনি মারা যান। তিনি শ্বাসযন্ত্রের অসুস্থতায় আক্রান্ত হয়ে টরেন্টোর একটি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।
কাদের খানের পুত্র সরফরাজ গণমাধ্যমকে জানান, যেহেতু তার পরিবারের সবাই কানাডায় তাই তার পিতার শেষকৃত্য সেখানেই অনুষ্ঠিত হবে। টরন্টোতে সমাধিস্থ করা হবে তাকে।
আফগান পিতা ও ভারতীয় মায়ের সন্তান কাদের খান কাবুলে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৩ সালে ‘দাগ’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে যাত্রা শুরু হয় তার। ছবিতে ছিলেন রাজেশ খন্নাও। দীর্ঘ চার দশকেরও বেশি সময় ধরে ৩০০টির কাছাকাছি ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। সেইসঙ্গে পরিচালক, চিত্রনাট্যকারের ভূমিকাও পালন করেছেন। ২৫০টির বেশি ছবিতে সংলাপ লিখেছেন তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইন্তেকাল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ