Inqilab Logo

বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৬ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

চূড়ান্তভাবে বিজয়ী হয়েছেন বাশার আসাদ : গার্ডিয়ান

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

ব্রিটেনের প্রভাবশালী পত্রিকা দ্য গার্ডিয়ান বলেছে, ২০১৮ সাল শেষ হয়েছে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের চূড়ান্ত বিজয়ের মধ্যদিয়ে। এ বিজয় অর্জিত হয়েছে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার ও সিরিয়ায় আরব দেশগুলোর দূতাবাস খোলার প্রতিযোগিতার মধ্যদিয়ে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সম্প্রতি সিরিয়া থেকে দ্রুত সেনা প্রত্যাহারের কথা ঘোষণা করেছেন। তার এ ঘোষণার মধ্যদিয়ে সিরিয়ায় অবস্থান করা মার্কিন সেনাদের পক্ষ থেকে সিরিয়ার জন্য সম্ভাব্য যেকোনো রকমের হুমকি শেষ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে গার্ডিয়ান। গত সপ্তাহে সংযুক্ত আরব আমিরাত দামেস্কে নতুন করে দূতাবাস চালু করেছে। ২০১১ সালে সিরিয়ায় বিদেশি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের সহিংসতা শুরুর পরপরই দেশটি দূতাবাস বন্ধ করে দিয়েছিল। আমিরাত দূতাবাস চালুর পর বাহরাইন ও কুয়েত একই ঘোষণা দিয়েছে। এছাড়া, আরো কিছু আরব দেশ এ পথে এগুবে বলে মনে করা হচ্ছে। পাশাপাশি বহিষ্কারের সাত বছর পর আরব লীগও এখন সিরিয়াকে এ সংস্থায় ফিরিয়ে নিতে চাইছে। গার্ডিয়ানের মতে- পাঁচ মাস আগে সিরিয়ার সেনারা যখন দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় দারা প্রদেশের নিয়ন্ত্রণ নেয় তারপর থেকে এসব ঘটন ঘটছে। দারা ছিল বিদেশি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের জন্মভূমি এবং এটাই ছিল সন্ত্রাসীদের সর্বশেষ শক্তিশালী অবস্থান। গার্ডিয়ান লিখেছে, “গত ছয় মাসের সামরিক ও কূটনৈতিক ঘটনাপ্রবাহ বিবেচনায় নিয়ে এ কথা নিঃসন্দেহে বলা যায় যে, আসাদ সরকার এ দ্বন্দ্বে সুস্পষ্ট ও চূড়ান্তভাবে বিজয়ী হয়েছে।” পার্সটুডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিজয়ী হয়েছেন বাশার আসাদ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ