Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯, ০৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

আন্দোলনে নামবে বিএনপি

দাবি নতুন নির্বাচন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০২ এএম

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভূমিধ্বস বিজয় পেয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট। অন্যদিকে ৩০০টি সংসদীয় আসনের মধ্যে মাত্র ৭টিতে জয় পেয়ে ভরাডুবি হয়েছে বিএনপি তথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের। এর মধ্যে বিএনপির প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছে মাত্র ৫টি আসনে। এই নির্বাচনে রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ভোট চুরি করা হয়েছে অভিযোগ করে ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি। অবিলম্বে এই নির্বাচন বাতিল করে পুনঃনির্বাচনের দাবি করেছে দলটির। তাদের এই দাবি নির্বাচন কমিশন প্রত্যাখ্যান করায় এবার আন্দোলনে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন দলটির শীর্ষ নেতারা। এরই অংশ হিসেবে গত সোমবার বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য, ২০ দলীয় জোট এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতাদের সাথে বৈঠক করেছেন বিএনপি নেতারা। এসব বৈঠকে পুনঃনির্বাচন আদায়ে করণীয় এবং কৌশল নির্ধারণের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। দাবি আদায়ে আন্দোলনের পাশাপাশি আইনি লড়াইয়ের পরামর্শ এসেছে বিএনপি ও জোট নেতাদের কাছ থেকে।
বিএনপি সূত্রে জানা যায়, স্থায়ী কমিটি, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোটের বৈঠকে নেতারা নির্বাচনের সার্বিক মূল্যায়ন এবং পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছেন। দেশের কোন কেন্দ্রেই যে সুষ্ঠু নির্বাচন হয়নি সেবিষয়ে তারা একমত হয়েছেন। এজন্য এই নির্বাচন বাতিল করে নতুন নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনের বিষয়ে একমত হয়েছেন তারা। অন্যদিকে ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের পক্ষ থেকে আন্দোলনের পাশাপাশি আইনি লড়াইয়ের যে পরামর্শ এসেছে সেটিকেও ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন নেতারা। তারা জানিয়েছেন, আইনি লড়াইয়ের মধ্যে নির্বাচন বাতিল চেয়ে রিট করা হবে। এই নির্বাচন কেন অবৈধ ঘোষণা করে নতুন নির্বাচন দেয়া হবে না সে বিষয়েও আদালতের স্মরণাপন্ন হবে।
আন্দোলনের বিষয়ে বিএনপির একাধিক নেতা জানান, প্রাথমিকভাবে ৩ জানুয়ারি নির্বাচন বাতিল চেয়ে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সকল প্রার্থী নির্বাচন কমিশনে স্মারকলিপি প্রদান করবে। কোন কাজ হবেনা জেনেই তারা এই কর্মসূচির মাধ্যমে ধাপে ধাপে আন্দোলন এগিয়ে নেবে। অন্যান্য কর্মসূচি এখনো চূড়ান্ত না হলেও নির্বাচন কমিশন ঘেরাও, নির্বাচনের অনিয়ম-ভোটচুরি-জালিয়াতি ইত্যাদির যেসব তথ্য-ভিডিও চিত্র বিএনপির হাতে রয়েছে তা বিশ্ব গণমাধ্যমের কাছে তুলে ধরা হবে। জাতিসংঘ, ইউরোপিয় ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের কাছে এসব তথ্য-চিত্র তুলে ধরবে বিএনপি। পাশাপাশি বিএনপির বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী জেলে থাকায় তাদেরকে মুক্ত করার বিষয়টিও সর্বাগ্রে চিন্তা করছেন দলটির সিনিয়র নেতারা। তাদের মুক্ত করেই পরবর্তীতে রাজপথের দৃশ্যমান আন্দোলনে নামবেন তারা।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির এক নেতা জানান, বৈঠকে নির্বাচনের সার্বিক বিষয়ে মূল্যায়ন হয়েছে। এই নির্বাচন যে দেশে-বিদেশে গ্রহণযোগ্য হয়নি সেটি ইতোমধ্যে সরকার বুঝতে পেরেছে। কারণ এই নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে পারেনি, তাদের মতামতের প্রতিফলন হয়নি। তাই এই সরকার জনগণের সরকার নয়। তাই আমরা পুনরায় নির্বাচনের দাবি করছি। এই দাবি আদায়ে সকলে আন্দোলনের বিষয়ে একমত হয়েছেন। একই সাথে আইনি লড়াইয়ের বিষয়েও সিদ্ধান্ত হয়েছে। তিনি জানান, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেনসহ সিনিয়র আইনজীবীরা এই নির্বাচন বাতিল চেয়ে রিট করবেন। একইসাথে এই নির্বাচন কেন অবৈধ ঘোষণা করে নতুন নির্বাচন দেয়া হবে না সে বিষয়েও আদালতের স্মরণাপন্ন হবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। এরপাশাপাশি চলবে আন্দোলনও।
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এই নির্বাচনে গোটা রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ভোট চুরি করা হয়েছে। শুধু আওয়ামী লীগ নয়, আইন বিভাগ, বিচার বিভাগ, প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী তথা গোটা রাষ্ট্রযন্ত্রের সাথে বিএনপিকে যুদ্ধ করতে হয়েছে। ভোট শুরুর আগেই জাল ভোট দিয়ে ব্যালট বাক্স ভরে রাখা হয়েছে। বিরোধী দলের প্রার্থীর এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। এমনকি ভোটারদেরও ভোট কেন্দ্রে ঢুকতে দেয়া হয়নি। এমন অদ্ভুত নির্বাচন পৃথিবীর আর কোথাও হয়েছে কিনা তা নিয়ে তিনি সংশয় প্রকাশ করেন। এজন্য আমরা আন্দোলন ও আইনি লড়াইয়ের মাধ্যমে নতুন নির্বাচন আদায় করে নেব।
স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান বলেন, দলীয় সরকারের অধীনে যে, সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব না এবং আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে নির্বাচনে গেলে যে এই পরিস্থিতি হবে এটি আমি আগেই তুলে ধরেছি। তারপরও দল মনে করেছে জনগণকে বিষয়টি বোঝানো দরকার। এখন আমাদের যেমন ধারণা ছিল সেরকমই নির্বাচন হয়েছে। মানুষ তাদের ভোট দিতে পারেনি। তাদের সেই ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে এবং জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য আমরা আন্দোলনের বিকল্প দেখছি না। খুব শীঘ্রই আমরা আলোচনা করে কর্মসূচি ঘোষণা করবো।
স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, নির্বাচন পরিবর্তিত পরিস্থিতি আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। করণীয় নির্ধারণের প্রথম আলোচনা হলো, পরবর্তীতে আরও আলোচনা করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।#



 

Show all comments
  • Mohammed Kowaj Ali khan ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:১৪ এএম says : 0
    সাব্বাস আমাদের জাতীয় নেতৃবৃন্দ। এবার পিরাক টেলা। দেখি কিকরে।
    Total Reply(0) Reply
  • আবু আহমাদ ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৩৫ এএম says : 0
    আপনাদের দ্বারা কিছুই হবেনা। ঘুমিয়ে থাকুন। আপনাদের বীরত্ব জনগন দেখেছে। ভোটের দিন নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করলে হয়তো আন্দোলনে সুবিধা করতে পারতেন। এখন আর পারবেন না।
    Total Reply(0) Reply
  • ওয়াছেক আলী ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৫৩ এএম says : 0
    এমন ভোট আমার জিবনেও দেখিনি,ভোট দিতে গিয়ে শুনি আমার ভোট নাকি দেয়া হয়ে গেছে,এটা নির্বাচনের নামে প্রহসন,নির্জাতন সব হয়েছে,মানুষকে সুন্দর সুন্দর কথা বলে ধোঁকা দেয়া হয়েছে,এটা কোন নির্বাচন হতে পারেনা।
    Total Reply(0) Reply
  • Washek ali ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৫৭ এএম says : 1
    এমন ভোট আমার জিবনেও দেখিনি,ভোট দিতে গিয়ে শুনি আমার ভোট নাকি দেয়া হয়ে গেছে,এটা নির্বাচনের নামে প্রহসন,নির্জাতন সব হয়েছে,মানুষকে সুন্দর সুন্দর কথা বলে ধোঁকা দেয়া হয়েছে,এটা কোন নির্বাচন হতে পারেনা।
    Total Reply(0) Reply
  • Washek ali ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:৫৯ এএম says : 1
    এমন ভোট আমার জিবনেও দেখিনি,ভোট দিতে গিয়ে শুনি আমার ভোট নাকি দেয়া হয়ে গেছে,এটা নির্বাচনের নামে প্রহসন,নির্জাতন সব হয়েছে,মানুষকে সুন্দর সুন্দর কথা বলে ধোঁকা দেয়া হয়েছে,এটা কোন নির্বাচন হতে পারেনা।
    Total Reply(0) Reply
  • Madhu Shudan Datta ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০২ এএম says : 0
    বিয়ে করলে নির্বাচন কমিশন সিইসির মেয়েকেই বিয়ে করা উচিৎ সারাদিন পিটাইলেও বাপের বাড়ি গিয়ে বলবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Khan Salauddin ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৩ এএম says : 0
    এখন বুঝতে পারছেন...৫ ই জানুয়ারী প্রহসনের নির্বাচনে বিএনপি কেনো অংশ গ্রহন করেনি...খালেদা জিয়ার সিদ্ধান্তই সঠিক ছিলো...
    Total Reply(0) Reply
  • মো. নাজমুল হোসাইন ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৪ এএম says : 3
    পাতানো নির্বাচনই যদি হতো সেটাকে বিশ্বাসযোগ্য করার জন্য হলেও মহাজোট ঐক্যফ্রন্ট কে কমপক্ষে ৫০ টি আসনে জিতিয়ে দিতো। এখন আওয়ামীলীগ সেটা করেনি। তারা জনগণ কে বিশ্বাস করে সবকিছু তাদের উপর ছেড়ে দিয়েছে। জনগণও ভোটে নৌকার পক্ষে জোয়ারের পরিবর্তে সুনামি ঘটিয়ে ফেলেছে। এখানে আওয়ামীলীগের কি করার আছে? বা আমাদের দোষটা কোথায়?
    Total Reply(3) Reply
    • আবু আব্দুল্লাহ ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:৪৯ এএম says : 0
      আওয়ামীলীগ ভুল করেছে চুরি ধরা খেয়ে গেলো
    • Shahidul islam ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:৫৭ এএম says : 0
      Bhaia aponi ki ondo??????
    • sharif ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০০ পিএম says : 0
      jongoner upor awamiliger asta nei, apneto ondoleeg
  • Saif R Khan ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৪ এএম says : 0
    The people want a stable government we dont want constant fighting accept the results and try next time
    Total Reply(0) Reply
  • এম এ হাসেম ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৫ এএম says : 0
    আন্দোলন ছাড়া বিকল্প পথ খোজা বোকামি হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Salim Hossain ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৬ এএম says : 1
    আন্দোলন কি ফেসবুক আর অনলাইনে?
    Total Reply(0) Reply
  • Sepon Sepon Rahman ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৬ এএম says : 2
    তারা সব সময় বলেন। সিইসি আওয়ামীলীগ. পুলিশ আওয়ামীলীগ. সেনাবাহিনী সহ সকল প্রশাসন আওয়ামীলীগ। তাহলে জাতিসংঘ. চীন, ভারত.সৌদি. সবই কি আওয়ামীলীগ।
    Total Reply(1) Reply
    • shahidul islma ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১০:০০ এএম says : 0
      Aponader Sathe kotha na bolle mone hoy bagladesher sadiron manuser amol nama bari hobe na...... ami mone kori bujte parcen
  • Abdul Kader ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৬ এএম says : 2
    আন্দোলন যদি করতে হয় তবে করার মত নতুবা সাধারন পাবলিকের ক্ষতি হতাহতের দায়ভার আপনাদের নিতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Murshid Shiddique ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৭ এএম says : 2
    "দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হইতে পারেনা" এটা প্রমাণ করার দ্বারা এই মুহুর্তে ক্ষমতাসীনদের কোন চুলটাও যায় আসেনা। বিরোধীপক্ষ আন্দোলন-ফান্দোলনের যে হুমকিধামকি দিচ্ছে এসব কেবলই রাজনৈতিক বকওয়াজি। বিএনপি-জামায়াত চাইলেই এখন আর মাঠে নামতে পারবে না। মাঠে নামার সামর্থ্য, সময়, জনবল কোনটাই তাদের নেই। মামলা-দণ্ড নিয়ে কোর্টকাছারিতে দৌড়ঝাঁপ করেই সময় পার করতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Sajedul ISlam ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৭ এএম says : 1
    সাড়ে সতরো কুটি জনগনের অদিকার আদায়ের জন্য এই আন্দোলন হবে
    Total Reply(0) Reply
  • Md Shohidul Islam ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ২:৪৯ এএম says : 1
    বিএনপি হচ্ছে একটি বিকলাঙ্গ দল। দেশ পরিচালনায় অদক্ষ, আন্দোলনেও অদক্ষ। এরা সরকার বা বিরোধী দলে যেখানেই থাকুক না কেন, দেশ এবং জাতির কোন প্রকার মেধা ও যোগ্যতা রাখে না।
    Total Reply(0) Reply
  • rezaul haque ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১০:২৬ এএম says : 0
    রাষ্ট্র এখন .... হাতে...... মুক্ত করতে সংগ্রাম প্রয়োজন....
    Total Reply(0) Reply
  • abdur rouf ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:৪০ এএম says : 0
    neta bodlaitey hobey....shudhu khomotai jawer agenda thik na korey jonogoner jonno agenda thik kortey hobey...indiar congress theke shikhha nitey hobey....taholei kebol jonogoner mon paowa jete pare.....
    Total Reply(0) Reply
  • abdur rouf ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:৪২ এএম says : 0
    khomotai thaktey shadhin nirbachon comission koren nai....setar pholl ekhon pachhe.....
    Total Reply(0) Reply
  • Rakib ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:৪৪ এএম says : 0
    বাবা যা করতে চেয়েছিল , মেয়ে তা করে দেখালো ৷ বাংলাদেশ এখন গনতান্ত্রিক দেশ থেকে আওয়ামিতান্ত্রিক দেশ এ পরিনত হয়েছে ৷ ভোটার ছারাই ভোট ৷
    Total Reply(0) Reply
  • সাঈদী ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৭:২১ এএম says : 0
    চট্টগ্রাম ১৬ তে আমাদের কেন্দ্রে সহ আশপাশের আরও অনেক কেন্দ্রে সকাল দশটা থেকে ভোট গ্রহন বন্দ হয়ে যায়।
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Mofazzal Hossain ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:০৩ এএম says : 1
    BNP should be free from Jamayat. Jobayda should be involved with the central committee of BNP on the vital position. Then others political parties should be united with mass people on a single issue .Dictatorship should be ruined. Victory of democracy should be achieved.
    Total Reply(0) Reply
  • Abdul zabbar ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৯:৫১ এএম says : 0
    ১০ এর লাঠি একের বোঝা,,তো সবাই যদি একদিকে হয় এখানে। বি,এন,পি,বা নেতা কি করতে পারে???এই জুলুমবাজ সরকার দেশের টাকা,সরকারি আমলাদের দিয়ে ডিজিটাল মার্কা নির্বাচন বা ডিজিটাল ডাকাতি করেছে। সরকারের যে চমুচ গুলো সারাদিন ফেও ফেও করে তাদের দুটো কথা বলতে চাই,,১৯৯৬,২০০৮ নির্বাচনে আপনারা সরকারে ছিলেন। একটু মিলাই দেখবেন এই নির্বাচন আর সেই নির্বাচন,,,আর ডিজিটাল,ডিজিটাল বলে যে চিৎকার করেন,, তাহলে কেনো, নেট বন্দ করলেন,,সাংবিদিক ভাইদের নিষেধ ছবি ভিডিও করা যাবে না,,,,কেনো কেনো কেনো,,,,এর জবাব দেবে ইতিহাস,
    Total Reply(0) Reply
  • Jahidul Islam Duke ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ২:৪৬ পিএম says : 0
    Apnara case file korben r Judgment paben. Ei asay thaken.... Mirza Fakrul k bolen oath nia hasina er gunokriton kortay bolen.
    Total Reply(0) Reply
  • SK. NURUL HAQUE ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:৪৪ পিএম says : 0
    BNP is very weakness party, BNP must be change the leadership .
    Total Reply(0) Reply
  • SHARIFUL ISLAM ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৪ পিএম says : 0
    ১০ এর লাঠি একের বোঝা,,তো সবাই যদি একদিকে হয় এখানে। বি,এন,পি,বা নেতা কি করতে পারে???এই জুলুমবাজ সরকার দেশের টাকা,সরকারি আমলাদের দিয়ে ডিজিটাল মার্কা নির্বাচন বা ডিজিটাল ডাকাতি করেছে। সরকারের যে চমুচ গুলো সারাদিন ফেও ফেও করে তাদের দুটো কথা বলতে চাই,,১৯৯৬,২০০৮ নির্বাচনে আপনারা সরকারে ছিলেন। একটু মিলাই দেখবেন এই নির্বাচন আর সেই নির্বাচন,,,আর ডিজিটাল,ডিজিটাল বলে যে চিৎকার করেন,, তাহলে কেনো, নেট বন্দ করলেন,,সাংবিদিক ভাইদের নিষেধ ছবি ভিডিও করা যাবে না,,,,কেনো কেনো কেনো,,,,এর জবাব দেবে ইতিহাস
    Total Reply(0) Reply
  • SHARIFUL ISLAM ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১:০৫ পিএম says : 0
    bangali bhujbe 5 bochor por sayrasasoker mojha
    Total Reply(0) Reply
  • আবদুল্লাহ ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৪:০৩ পিএম says : 0
    এগিয়ে যাও ইনকিলাব
    Total Reply(0) Reply
  • M.mabud ৩ জানুয়ারি, ২০১৯, ৬:১১ পিএম says : 0
    Apnader onurut jubida Rahman ke anen pls. Tarpore andolon samne taken amake tarer awami gun diye barite dese
    Total Reply(0) Reply
  • kamal ৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ৩:৪৫ পিএম says : 0
    চোরের মায়ের কাছে চুরির নালিশ দিয়ে লাভ হবে?
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ আব্দুল গাফফার ৫ জানুয়ারি, ২০১৯, ১১:১৫ এএম says : 0
    আন্দোলন, আন্দোলন, আন্দোলন! মনে মুখে ঘরে ঘরে রাস্তা ঘাটে আন্দোলন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাতীয় সংসদ নির্বাচন

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ