Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ জানুয়ারি ২০১৯, ০৭ মাঘ ১৪২৫, ১৩ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

প্রশ্ন : যারা অনিয়মিতভাবে নামাজ পড়ে, তাদের ঈমান কোন পর্যায়ে থাকে? নামাজ-কালাম না পড়ে ঈমান আছে বলে দাবী করা কি ঠিক?

আশরাফুল ইসলাম
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:১৪ এএম

উত্তর : আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস স্থাপনের পর ইসলামের সর্বাপেক্ষা বড় ফরজ হলো নামাজ। নামাজ না পড়লে একটা মানুষের ঈমান চরম দুর্বল পর্যায়ে চলে যায়। ইচ্ছাকৃতভাবে নামাজ ছেড়ে দেওয়া একটি ঈমানবিরোধী কাজ। নামাজ-কালাম না পড়ে ঈমান আছে বলে দাবী করা যায় তবে সে ঈমান পূর্ণাঙ্গ হতে পারে না। শরীয়তের কাঙ্খিত ঈমানের জন্য অন্তত: শরীয়তের ফরজ ওয়াজিব আমলসমূহ বিশেষভাবে অপরিহার্য।

সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতাওয়া বিশ্বকোষ।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
inqilabqna@gmail.com



 

Show all comments
  • Mohammed Kowaj Ali khan ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:১৯ এএম says : 2
    নামাজ পড়লেও কয়জনের নামাজ শুদ্ধ হয়?শুদ্ধ নামাজ না পড়িলে নামাজ কোন কাজে আসিবেনা বলকে অশুদ্ধ নামাজ হইবেন দুনিয়া এবং আখেরাত ধংসের কারণ।
    Total Reply(1) Reply
    • Abul Kashem ৮ জানুয়ারি, ২০১৯, ৩:৫৭ এএম says : 1
      Mr.Ali Khan, How do you know whose salaat will be accepted by Allah SWT? It is advisable not to be critic about one's salaat and othr religious activities. Allah is Alam.He knows everything.Ameen
  • Hossain Md Amir ২ জানুয়ারি, ২০১৯, ৭:২২ এএম says : 1
    সম্মানিত মুহতারাম আমার মনে হয় প্রশ্নের প্রথম অংশের উত্তর আসেনি
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ