Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ০৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

কলকাতার সিনেমা মুক্তির মাধ্যমে শুরু হচ্ছে নতুন বছর

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

নতুন বছরে দেশীয় সিনেমা মুক্তি দেয়ার পরিবর্তে কলকাতার সিনেমা মুক্তির মাধ্যমে শুরু হচ্ছে নতুন বছর। মুক্তি দেয়অর মতো দেশীয় কোনো সিনেমা নেই। তাই সাফটা চুক্তিতে মুক্তি দেয়া হচ্ছে কলকাতার সিনেমা। আগামী শুক্রবার, ৪ জানুয়ারি ২০১৯ সালের প্রথম সপ্তাহ। এদিন মুক্তি পাবে কলকাতার বিসর্জন সিনেমাটি। সিনেমাটি আমদানি করেছে মধুমিতা মুভিজ। প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেন, আমাদেরও ভালো লাগতো দেশি সিনেমা দিয়ে বছরটা শুরু করতে পারলে। কিন্তু ৪ তারিখ মুক্তি দেয়ার মতো কোনো দেশীয় সিনেমা তৈরি নেই। তাই বিসর্জন সিনেমাটি আমদানি করে মুক্তি দিচ্ছি। তিনি বলেন, কলকাতার সিনেমা হলেও এতে দেশি ফ্লেভার রয়েছে। সিনেমাটির নায়িকা আমাদের জয়া আহসান। সিনেমাটিতে অভিনয় করে তিনি প্রশংসিত হয়েছিলেন। আশা করছি, সিনেমাটি মুক্তি পেলে দর্শক বেশ উপভোগ করবেন। নওশাদ বলেন, বিসর্জন সিনেমাটির সিক্যুয়েল বিজয়া। আমরা সেই সিনেমাটিও মুক্তি দিতে যাচ্ছি। জানুয়ারির শেষদিকে সিনেমাটি মুক্তি পাবে। অনেকেই প্রশ্ন করছেন কলকাতার এত পুরনো সিনেমা এখানে হলে চলবে কিনা। আমার মতে ভালো সিনেমা সবসময়ই হলে দর্শক টানে। এই সিনেমাটি আমাদের দেশেও ভালো সাড়া ফেলেছে। বছরের প্রথম সিনেমা বিদেশি। আমাদের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জন্য এটি কী বার্তা দেয়? এমন প্রশ্নের জবাবে নওশাদ বলেন, একজন হলের মালিকের কাছে আবেগের চেয়ে ব্যবসাটা মুখ্য। যখন চাহিদা অনুযায়ী যোগানের ঘাটতি দেখা দেয় তখনই বিকল্প পথ ভাবতে হয়। সিনেমাতেও তাই হচ্ছে। আমাদের দেশের সিনেমা নেই। সেটা তো আর হল মালিকদের দায় নয়। তারা তো হল টিকিয়ে রাখতে নতুন সিনেমা চালানোর চেষ্টা করবেই। যেহেতু নিজের দেশের সিনেমা নেই তাই বাধ্য হয়েই বিদেশি সিনেমা মুক্তি দেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, যখন আমরা দেশের ভালো সিনেমা পাই সেটাও কিন্তু বড় আয়োজন করে মুক্তি দেই। আমদানি করি ভালো সিনেমার ঘাটতি পূরণ করতে। এটাকে নেতিবাচকভাবে দেখার কিছু নেই বলেই মনে করি। এদিকে বিসর্জন মুক্তি পাচ্ছে মধুমিতা, বলাকা, শ্যামলী, বসুন্ধরা সিনেপ্লেক্স, চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিনে। হল সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেও জানান তিনি। কলকাতার নির্মাতা কৌশিক গাঙ্গুলি পরিচালিত সিনেমা বিসর্জন। ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করে ইতিমধ্যে প্রথম বাংলাদেশি অভিনেত্রী হিসেবে ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডও জিতেছেন জয়া আহসান। এতে তার বিপরীতে ছিলেন কলকাতার নায়ক আবির চ্যাটার্জি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সিনেমা


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ