Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১১ মাঘ ১৪২৫, ১৭ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

কবিতা গুচ্ছ

| প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৭ এএম



কামরুল আলম কিরণ
তোমাকে দেখার পর

তোমাকে দেখার পর বেড়ে গেছে আয়ু যেনো
একশ বছর,
উড়ছি আকাশে আমি চঞ্চল প্রজাপতি
আমার আর নেই বাড়ি, নেই কোনো ঘর।
তোমাকে দেখার পর ফেরারী এই আমি
কিছু আর লাগছে না ভালো,
সারাদিন সারাক্ষণ এই বুকে নিভে জ্বলে
হাজারো জোনাকীর আলো।
তোমাকে দেখার পর বয়সটা হঠাৎ যেনো
হয়ে গেলো বিশ,
সবকিছু এলোমেলো এ আমার কী হলো
পরাণের গহীনে সূরের মূর্ছনা গিটারের টুংটাং
বেজে চলে যেনো অহর্নিশ।

তাজ ইসলাম
অনন্য পুষ্পের সন্ধানে

কোন গেট খোলা নেই বুকে তার কঠিন বাঁধ
হৃদয় পাতা থেকে শিশির বিন্দু প্রেমও তার গড়িয়ে পড়েনি
অপেক্ষমান জোড়াচোখে।
দু ‹পা এগিয়ে গেলেই
উঠোনে রৌদ্রে শুকাতে দেয়া ধান রক্ষা
কৃপণ কিষাণীর মত তাড়িয়ে দেয় সে কামনা বাসনার পক্ষিকুল।
সযতনে রক্ষা করে বুকে ফোটা ফুল।
ছুঁইতে গেলেই বন্ধ করে সজোরে কপাট।
সে তখন উড়ে যায় প্রজাপতি হয়ে
অন্য আকাশের নিচে ভিন্ন বাগানে অনন্য পুস্পের সন্ধানে।
আর উড়তে উড়তে ঝরা পাতার মত ঝরতে থাকে তার
আত্ম বিশ্বাসের সোনালী শব্দমালা
দুয়ার বন্ধ হলেই কারো দুনিয়া বন্ধ হয় না
এক দ্বার বন্ধ হলে খোলা থাকে শতেক দুয়ার।

পঞ্চানন মল্লিক
হীম পরীর গান

জল জ্যোৎস্নার দিনে রোদের দৃশ্যমান শরীর নেই
ধবল কুয়াশার গান বেজে যাচ্ছে হীম পরীর ঠোঁটে,
শিশির ঘামে ইজিবাইকের চাকায় ভিজে যাচ্ছে সড়ক।
সোলারের ডিশে তৈরি হচ্ছে আঁধার।
পারত পক্ষে বাতাসও আর বসে নেই হীম হৃদযন্ত্র নিয়ে
আকাশের চির চেনা গালে এঁকে দিচ্ছে শীত চুম্বন।
ওদিকে ক’দিন আগে বৃক্ষাবাস থেকে
ভেঙে গেছে পাতার সংসার
ন্যাড়া গাছে তবু বাধা আছে শালিকের ঘর।
আবার কোকিলের দাম্পত্ব শেষে পাখি শিশুর হবে অন্নপ্রাশন।
তার আগে অবশ্য একবার আশ্রু মুকুলের সাথে
প্রবল ঝগড়া হবে কুয়াশার
আর ভিজে ভিজে পরীর গানে করতালি দেবে সরিষা ফুল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ