Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯, ০৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

মসনবী শরীফ

মাওলানা জালাল উদ্দীন রূমী রহ.

কাব্যানুবাদ : রূহুল আমীন খান | প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

১৩৯৭. যায় ফিরিয়া স্ব-স্বভাবে থাকেনা নিশ্চুপ 

মূলের মাঝে যায় ফিরে আর ধরে মূলের রূপ।

১৩৯৮. মহান প্রভুর এটা করুণা ও দয়া আল্বত
ব্যাঘ্র-জেব্রা পরস্পরে হয় ভালবাসা মোহাব্বত।

১৩৯৯. যখন নিখিল বিশ্ব রোগাক্রান্ত, কয়েদী কারার
বিস্ময়ের কিবা আছে একদা বিনাশ হলে তার ?

১৪০০. খরগোশ সিংহকে দিল এই রূপ উপদেশ আর
বলিল : কেমনে যাই গলেতে যে বন্ধন আমার।

খরগোশের পিছপা হওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা
১৪০১. সিংহ বলে : রোগ-ব্যাধি বুঝিয়েছ বহু কথা বলে
বলে ফেল সোজাসুজি কেন তুমি পিছে গেলে চলে।

১৪০২. বলিল খরগোশ : আছে ওই সিংহ কুপের ভেতর
বিপদ-আপদ মুক্ত ওই কূপ দূর্গ-বরাবর।

১৪০৩. অবরোধ করে পথ ধরে নিয়ে বন্ধুকে আমার
করিতেছে অবস্থান কূপ মাঝে সাথে নিয়ে তার।

১৪০৪. বেছে নেয় কূপ তল যেই জন হয় বুদ্ধিমান
নির্জনতা নিঃসঙ্গতা হৃদয়ে প্রশান্তি করে দান।

১৪০৫. ‘লোকারণ্য-অন্ধকার’ হতে ভাল ‘কূপ-অন্ধকার’
পা চাটে যে মানুষের শির নয় নিরাপদ তার।

১৪০৬. সিংহ বলে : অগ্রে চলো দেখো কোথা অবস্থান তার
অব্যর্থ আঘাত মোর, কিছুতে সে পাবে না নিস্তার।

১৪০৭. খরগোশ বলিল আমি আতঙ্ক-আগুনে হনু ছাই
আমাকে বগলে নিন, তবে আমি সমুখে আগাই।

১৪০৮. হে দয়াল তাতে আমি নির্ভয়ে নিরাপদে থেকে
সিংহ হোথা আছে কি না দেখে নেব কূপে চোখ রেখে।

১৪০৯. খরগোশকে বগলদাবা করে সিংহ কূপে তাকাল
এবং নিজ ছায়াকে শত্রু ভেবে ঝাঁপিয়ে পড়ল

১৪১০. খরগোশে বগলে নিয়ে গর্জন করিয়া ভয়ঙ্কর
শত্রুকে করিতে ধ্বংস দর্পে সিংহ হল অগ্রসর।

১৪১১. পৌঁছে হেথা কূপ-জলে প্রতিবিম্ব দেখিল যখন
প্রত্যয় জন্মিল মনে ওটাই সে কথিত দুশমন ।

১৪১২. তারই মত অবয়ব বগলেও খরগোশ সেই
মিলে গেছে পুরোটাই সংশয় সন্দেহ কিছু নেই।

১৪১৩. দুশমন সমুখে দেখে দেরি মাত্র না করিয়া আর
ঝাঁপিয়ে পড়িল সিংহ সর্গজনে কূপের ভেতর।

১৪১৪. খুঁড়েছিল যেই কূপ নিজেই পতিত হল তায়
যুলুম করিলে কেহ পড়ে তাহা নিজের মাথায়।

১৪১৫. যালিমের অত্যাচার অন্ধকার কূপের মতন
বলেছেন মনীষীরা এই আপ্তবাক্য চিরন্তন।

১৪১৬. যত বড় যালিম যে- কূপও বড় ঠিক সে মাপের
মন্দের সাজাও মন্দ এটিই তো দাবী ইন্সাফের।

১৪১৭. সাবধান! যুলুম দিয়ে খনন করিছ তুমি কূপ
সেই কূপে পড়িবেই, রেহাই পাবেনা কোনো রূপ।

১৪১৮. দূর্বলের পরে যদি চালাও যুলুম অত্যাচার
অবশ্য পড়িবে কূপে পাবেনাকো কখনো নিস্তার।

১৪১৯. রেশম পোকার মত বুনিওনা জাল চারিধারে
খনন করিবে কূপ ? করিও তা নিজের আকারে।

১৪২০. ভেবনা দুর্বলে কভু অসমর্থ সাধ্য-শক্তিহীন
আসিবে তাহার পরে খোদার মদদ একদিন।

১৪২১. হও যদি শক্তিমত্ত অহঙ্কারী- ‘আস্হাবে ফীল’*১
তোমার শাস্তির তরে প্রস্তুত আছে ‘আবাবীল’।

১৪২২. নিরাপত্তা মাগে যবে দুর্বল মযলুম- যমিনের
সাজ সাজ রব ওঠে সেই ক্ষণে আসমানী ফৌজের।

১৪২৩. দাঁত দিয়ে ওহে তুমি চাও যদি অপরে কামড়াতে
ভেবে নিও আগে তার, অবশ্যই ব্যথা পাবে দাঁতে।

১৪২৪. কূপেতে দেখিল সিংহ নিজেকেই, কারণে দম্ভের
বুঝিল না চিনিল না, শত্রু হলো নিজেই নিজের।

১৪২৫. দেখিল নিজের ছায়া, ভাবিল দুশমন দাঁড়া তার
এবং নিজের পরে চালাল নিজেই তলোয়ার।

১৪২৬. অন্য-মাঝে আবিস্কার কর তুমি যুলুম যখন
সে যুলুম তোমাতেই, অন্যতে তা করিছ দর্শন।

১৪২৭. নেফাক, যুলুম পাপ যা রয়েছে স্বভাবে তোমার
অপরের মাঝে তুমি দেখিতেছ প্রতিচ্ছায়া তার।

১৪২৮. অপরের মধ্যে দিয়ে মূলে তুমি দেখ নিজ পাপ
নিজেকেই দাও ঠিক- অন্যে যবে দাও অভিশাপ।

১৪২৯. আপনার দোষ-ত্রুটি দেখে নাকো আপন নয়ন
দেখিলে বুঝিতে ঠিক- নিজে খোদ নিজের দুশমন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মসনবী শরীফ

৫ জুলাই, ২০১৯
৩১ মে, ২০১৯
২৪ মে, ২০১৯
১০ মে, ২০১৯
২৬ এপ্রিল, ২০১৯
১৯ এপ্রিল, ২০১৯
৫ এপ্রিল, ২০১৯
২৯ মার্চ, ২০১৯
১৮ জানুয়ারি, ২০১৯
৯ নভেম্বর, ২০১৮
১৯ অক্টোবর, ২০১৮
১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
১০ আগস্ট, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন